বাংলা নিউজ > ময়দান > টোকিও অলিম্পিক্স > চব্বিশ ঘণ্টায় তিন ম্যাচে হার, ব্রোঞ্জও পেলেন না ‘গ্লোল্ডেন স্ল্যামের’ স্বপ্নে বিভোর জোকোভিচ

চব্বিশ ঘণ্টায় তিন ম্যাচে হার, ব্রোঞ্জও পেলেন না ‘গ্লোল্ডেন স্ল্যামের’ স্বপ্নে বিভোর জোকোভিচ

নোভাক জকোভিচ। (ছবি সৌজন্য পিটিআই)

শেষ ২৪ ঘণ্টা একেবারেই ভালো গেল না নোভাক জকোভিচের।

টানা তিনটি অলিম্পিক্সের সিঙ্গলসে পদকহীন থাকলেন নোভাক জকোভিচ। শনিবার টোকিও অলিম্পিক্সে পুরুষদের সিঙ্গলসে ব্রোঞ্জ পদক হাতছাড়া হল সার্বিয়ান তারকার। ৬-৪, ৬-৭ (৬-৮), ৬-৩ সেটে জিতলেন স্পেনের পাবলো ক্যারেনা বুস্তা। সেইসঙ্গে গত ২৪ ঘণ্টায় টানা তিন ম্যাচে হারের মুখে পড়লেন জকোভিচ।

(টোকিও অলিম্পিক্স ২০২০-এর যাবতীয় খবর, আপডেটের জন্য চোখ রাখুন -- এখানে)

শুক্রবার ‘গ্লোল্ডেন স্ল্যামের’ স্বপ্ন ভেঙে যাওয়ার পর ব্রোঞ্জ পদক ম্যাচের প্রথম সেটেই ধাক্কা খান বিশ্বের এক নম্বর তারকা। ৬-৪ গেমে প্রথম সেট জিতে যান পাবলো। যিনি আগেই ডানিল মেদভেদেভকে হারিয়ে দিয়েছিলেন। দ্বিতীয় সেটেই কার্যত হেরে যাচ্ছিলেন জকোভিচ। একটি ম্যাচ পয়েন্ট বাঁচিয়ে ম্যাচে সমতা ফেরান। টোকিয়োর মারাত্মক গরমে নির্ণায়ক সেটে অবশ্য ক্রমশ ম্যাচের উপর থেকে রাশ হারিয়ে ফেলতে থাকেন জকোভিচ। তৃতীয় সেটের প্রথম গেমেই মাথা গরম করে ফাঁকা স্টেডিয়ামে র‍্যাকেট ছুড়ে দেন। সেই সুযোগ ক্রমশ নিজের দখলে ম্যাচ নিতে থাকেন পাবলো। শেষপর্যন্ত ষষ্ঠ নম্বর ম্যাচ পয়েন্টে ব্রোঞ্জ পদক জয় নিশ্চিত করেন।

সেই হারের ফলে টানা তিনটি অলিম্পিক্সের সিঙ্গলসে কোনও পদক পেলেন না জকোভিচ। শেষবার অলিম্পিক্স সিঙ্গলসে পদক জিতেছিলেন ২০০৮ সালে। গতবার জুয়ান দেল পোত্রোর কাছে হেরে কাঁদতে কাঁদতে কোর্ট হেরেছিলেন জকোভিচ। ২০ টি গ্র্যান্ডস্ল্যামজয়ীর জন্য অস্বস্তি বাড়িয়েছে আরও একটি পরিসংখ্যান। ২০১৯ সালের এটিপি ট্যুর ফাইনালসের পর এই প্রথম টানা দুটি সিঙ্গলস ম্যাচে হারের মুখে পড়েছেন জকোভিচ। সেইবার লন্ডনের ওটু এরিনায় ডমিনিক থিয়েম এবং রজার ফেডেরারের বিরুদ্ধে হেরে গিয়েছিলেন সার্বিয়ান তারকা।

বন্ধ করুন