বাংলা নিউজ > ময়দান > টোকিও অলিম্পিক্স > Tokyo 2020: হ্যাটট্রিক বন্দনার, হকিতে কোয়ার্টার ফাইনালের আশা বাঁচিয়ে রাখল ভারত
বন্দনা কাটারিয়া হ্যাটট্রিক করেন। ছবি: পিটিআই
বন্দনা কাটারিয়া হ্যাটট্রিক করেন। ছবি: পিটিআই

Tokyo 2020: হ্যাটট্রিক বন্দনার, হকিতে কোয়ার্টার ফাইনালের আশা বাঁচিয়ে রাখল ভারত

  • এই নিয়ে গ্রুপ লিগের দু'টি ম্যাচে জয় পেলেন রানি রামপালরা। শনিবার তাঁরা দক্ষিণ আফ্রিকাকে দাপটের সঙ্গে হারিয়ে লড়াইয়ে টিকে থাকলেন। এখন অবশ্য ভারতকে শেষ রাউন্ডের আয়ারল্যান্ড বনাম গ্রেট ব্রিটেন ম্যাচের দিকে তাকিয়ে থাকতে হবে। এই ম্যাচে আয়ারল্যান্ড পরাজিত হলেই কোয়ার্টার ফাইনালে পৌঁছে যাবে ভারত।

অবশেষে স্বস্তি ফিরল। রুদ্ধশ্বাস ম্যাচে হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের পর দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে জয় ছিনিয়ে নিল ভারত। তিন বার এগিয়ে যাওয়ার পরেও ৩-৩ করে ভারতকে চাপে ফেলে দিয়েছিল দক্ষিণ আফ্রিকা। তবে শেষ পর্যন্ত বন্দনা কাটারিয়ার হ্যাটট্রিকের সুবাদেই ৪-৩ ম্যাচ জিতে কোয়ার্টার ফাইনালের আশা বাঁচিয়ে রাখল ভারত। পাশাপাশি বন্দনা ইতিহাসে নাম লিখিয়ে ফেললেন। বন্দনা হলে মহিলা হকির প্রথম প্লেয়ার, যিনি অলিম্পিক্সে হ্যাটট্রিক করলেন।

এই নিয়ে গ্রুপ লিগের দু'টি ম্যাচে জয় পেলেন রানি রামপালরা। শনিবার তাঁরা দক্ষিণ আফ্রিকাকে দাপটের সঙ্গে হারিয়ে লড়াইয়ে টিকে থাকলেন। এখন অবশ্য ভারতকে শেষ রাউন্ডের আয়ারল্যান্ড বনাম গ্রেট ব্রিটেন ম্যাচের দিকে তাকিয়ে থাকতে হবে। এই ম্যাচে আয়ারল্যান্ড পরাজিত হলেই কোয়ার্টার ফাইনালে পৌঁছে যাবে ভারত। আসলে গ্রুপ লিগের শেষ দু'টি ম্যাচ ছাড়া বাকি তিনটি ম্যাচেই হেরেছে ভারত। যে কারণে এখনও চাপে রয়েছেন রানি রামপালরা। 

পুল-'এ'র প্রথম তিন ম্যাচে যথাক্রমে নেদারল্যান্ডস, জার্মানি ও গ্রেট ব্রিটেনের কাছে পরাজিত হয়েছিল ভারতের মহিলা হকি দল। চতুর্থ ম্যাচে অবশ্য আয়ারল্যান্ডকে ১-০ গোলে হারিয়ে দেয় তারা। আর এ দিন বন্দনার অসাধারণ পারফরম্যান্সের হাত  ধরে দ্বিতীয় জয় পেল ভারত।

শনিবার দুরন্ত ছন্দে ছিলেন বন্দনা। তাঁর লড়াই যেন স্বব্ধ করে দেয় দক্ষিণ আফ্রিকাকে। একাই তিন গোল করেছেন বন্দনা কাটারিয়া। প্রথম কোয়ার্টারেই ৪ মিনিটের মাথায় বন্দনার গোলে ১-০ এগিয়ে যায় ভারত। কিন্তু প্রথম কোয়ার্টারেই গোলশোধ করে দেয় দক্ষিণ আফ্রিকা। দ্বিতীয় কোয়ার্টারেও একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি। বন্দনা ভারতকে এগিয়ে দেওয়ার পরেই দ্বিতীয় কোয়ার্টারের শেষের দিকে ফের সমতা ফেরায় দক্ষিণ আফ্রিকা। তৃতীয় কোয়ার্টারের শুরুতেই ভারত ফের এগিয়ে যায়। রানি রামপালের অসাধারণ পাস থেকে গোল করেন নেহা। 

কিন্তু ফের গোলশোধ করে দক্ষিণ আফ্রিকা। ৩-৩ হয়ে যাওয়ার পরে তৃতীয় কোয়ার্টারেই রানি রামপাল একটি সহজ সুযোগ নষ্ট করেছিলেন। তবে বন্দনার দৌলতে এই গোল নষ্টের খেসারত ভারতকে দিতে হয়নি। চতুর্থ কোয়ার্টারে হ্যাটট্রিক করে ভারতকে জয় এনে দেন বন্দনা। ভারত জিতলেও, টিমের রক্ষণ নিয়ে কিন্তু চিন্তা থেকেই যাবে। নক আউটে ভারত যদি উঠতে পারে, সে ক্ষেত্রে ডিফেন্সকে আরও সংগঠিত হতে হবে।

বন্ধ করুন