বাংলা নিউজ > ময়দান > টোকিও অলিম্পিক্স > Tokyo 2020: টেনিস প্লেয়ার নাকি জিমন্যাস্ট, জোকারের দু'টি ছবি গুলিয়ে দিল সব
জিমন্যাস্ট জোকার।

Tokyo 2020: টেনিস প্লেয়ার নাকি জিমন্যাস্ট, জোকারের দু'টি ছবি গুলিয়ে দিল সব

  • শনিবার থেকে অলিম্পিক্সে যাত্রা শুরু করবেন নোভক জকোভিচ। তাঁর প্রথম প্রতিপক্ষ বলিভিয়ার হুগো দেলিয়েন। এই বছর জোকার সোনা পেলে স্টেফি গ্রাফকে স্পর্শ করবেন তিনি।

টেনিস কোর্ট ছেড়ে এ বার জিমন্যাস্টিকের অনুশীলনে মগ্ন থাকতে দেখা গেল, পুরুষ টেনিসের এক নম্বর প্লেয়ার নোভক জকোভিচকে। গেমস ভিলিজে বেলজিয়ামের জিমন্যাস্টিক টিমের সঙ্গে ক্রস ট্রেনিং করতে দেখা গিয়েছে নোভককে।

নোভক যে কতটা ফিট, ফ্লেক্সিবেল. তা তাঁর ট্রেনিং দেখেই বোঝা গিয়েছে। কী স্বচ্ছন্দেই না তিনি বেলজিয়ামের জিমন্যাস্টদের সঙ্গে ট্রেনিং করেছেন। টেনিস কোর্টে তাঁকে যতটা সাবলীল লাগে, ঠিক ততটাই তাঁকে জিমন্যাস্টিকেও সাবলীল লেগেছে। তাঁর ক্রস ট্রেনিং করার ছবি রীতিমতো ভাইরাল হয়েছে। যা দেখে মুগ্ধ বিশ্বের ক্রীড়া মহল।

শনিবার থেকে অলিম্পিক্সে যাত্রা শুরু করবেন নোভক জকোভিচ। তাঁর প্রথম প্রতিপক্ষ বলিভিয়ার হুগো দেলিয়েন। এই বছর জোকার সোনা পেলে স্টেফি গ্রাফকে স্পর্শ করবেন তিনি। ১৯৮৮ সালে স্টেফি গ্রাফ চারটি মেজরেই চ্যাম্পিয়ন হয়েছিলেন। অর্থাৎ তিনটি গ্র্যান্ডস্লাম সহ অলিম্পিক্সেও সোনা পেয়েছিলেন স্টেফি। স্টেফিই একমাত্র টেনিস প্লেয়ার যিনি একই বছরে চারটি মেজরে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার স্বাদ পেয়েছিলেন। জকোভিচ ইতিমধ্যে এই বছর তিনটি গ্র্যান্ডস্লাম জিতেছেন। এ বার তাঁর সামনে অলিম্পিক্সে সোনা জয়ের হাতছানি।

অলিম্পিক্সে এখনও পর্যন্ত সোনা পাননি জোকার। ২০০৮সালে তিনি ব্রোঞ্জ জিতেছিলেন। সেই আফসোসটাই এই বছর মিটিয়ে নিতে চান তিনি। দেখার, এই বছর জকোভিচের সোনা জয়ের লক্ষ্য পূরণ হয় কিনা!

বন্ধ করুন