বাংলা নিউজ > ময়দান > টোকিও অলিম্পিক্স > Tokyo 2020: শেফ দ্য মিশনের বৈঠকে যোগ দিতে গিয়ে চরম দুর্ভোগে পড়তে হল সদস্যদের
শেফ দ্য মিশনের বৈঠকে যোগ দিতে গিয়ে দুর্ভোগ।
শেফ দ্য মিশনের বৈঠকে যোগ দিতে গিয়ে দুর্ভোগ।

Tokyo 2020: শেফ দ্য মিশনের বৈঠকে যোগ দিতে গিয়ে চরম দুর্ভোগে পড়তে হল সদস্যদের

  • শুক্রবার বিভিন্ন দেশের থেকে সম্মানীয় সদস্যরাই শেফ দ্য মিশনের বৈঠকে যোগ দিতে জাপান গিয়েছিলেন। তারা জাপানের নারিতা বিমানবন্দরে নামার পর থেকেই বিভিন্ন সমস্যার জেরবার হতে শুরু করেন। ইমিগ্রেশনের জন্যই চার ঘণ্টা লেগে যায়। অভিযোগ সেই সময়, খাবার, জল এই সবের কিছুই ব্যবস্থা ছিল না।

৯ জুলাই টোকিও অলিম্রিক্সের শেফ দ্য মিশনের বৈঠক ছিল। আর সেই বৈঠকে যোগ দিতে গিয়ে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হল বিভিন্ন দেশের সম্মানীয় সদস্যদের। যা নিয়ে ক্ষোভে ফুটছেন প্রতিটা দেশই। ইন্ডিয়ান অলিম্পিক্স অ্যাসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট নরিন্দর বাত্রা বিষয়টি জানিয়েছেন।

শুক্রবার বিভিন্ন দেশের থেকে সম্মানীয় সদস্যরাই শেফ দ্য মিশনের বৈঠকে যোগ দিতে জাপান গিয়েছিলেন। তারা জাপানের নারিতা বিমানবন্দরে নামার পর থেকেই বিভিন্ন সমস্যার জেরবার হতে শুরু করেন। ইমিগ্রেশনের জন্যই চার ঘণ্টা লেগে যায়। অভিযোগ সেই সময়, খাবার, জল এই সবের কিছুই ব্যবস্থা ছিল না। অলিম্পিক্স আয়োজকদের তরফে কোনও স্বেচ্ছা সেবকও সেখানে উপস্থিত ছিল না। জার্মানির তরফেও এই বিষয়টি নিয়ে তীব্র প্রতিবাদ জানানো হয়েছে।

নারিন্দর বাত্রা অলিম্পিক্সের আয়োজকদের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। এবং পুরো ঘটনাটি জানান তিনি। আইওএ প্রেসিডেন্ট বলেছেন, ‘আমি আয়েোজকদের সঙ্গে যোগাযোগ করেছি। ওদের তরফে আমাকে জানানো হয়েছে, সরকারের সঙ্গে এই নিয়ে ওরা কথা বলেছে। এই ঘটনা দ্বিতীয় বার ঘটবে না।’

করোনার জেরে এক বছর অলিম্পিক্স পিছিয়ে গিয়েছে। এই বছর ২৩ জুলাই থেকে অলিম্পিক্স শুরু হওয়ার কথা। করোনার কারণেই ফাঁকা স্টেডিয়ামে এ বার গেমসের আয়োজন হবে। অলিম্পিক্স চলবে ৮ অগস্ট পর্যন্ত।

বন্ধ করুন