বাংলা নিউজ > ময়দান > টোকিও অলিম্পিক্স > ‘জয়ের’ পরও ব্রোঞ্জ হাতছাড়া বিনোদ কুমারের, প্রশ্নের মুখে প্যারালিম্পিক্স কমিটি
বিনোদ কুমার। (ছবি সৌজন্য, টুইটার @mkstalin)
বিনোদ কুমার। (ছবি সৌজন্য, টুইটার @mkstalin)

‘জয়ের’ পরও ব্রোঞ্জ হাতছাড়া বিনোদ কুমারের, প্রশ্নের মুখে প্যারালিম্পিক্স কমিটি

  • অথচ ২২ অগস্ট তাঁর ক্লাসিফিকেশন হয়েছিল।

‘জয়ের’ পরও ব্রোঞ্জ হাতছাড়া হল বিনোদ কুমারের। যিনি পুরুষদের ডিসকাস থ্রোয়ের এফ-৫২ বিভাগে তৃতীয় হয়েছিলেন। সোমবার প্যারালিম্পিক্সের আয়োজক কমিটির তরফে জানানো হয়েছে, শারীরিক সমক্ষতার নিরিখে যে এফ-৫২ বিভাগে বিনোদকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছিল, সেই বিভাগে তিনি উপযুক্ত নন। অথচ ২২ অগস্ট তাঁর ক্লাসিফিকেশন হয়েছিল। 

প্যারালিম্পিক্সের আয়োজক কমিটির তরফে বিবৃতিত জারি করে বলা হয়েছে, ভারতের অ্যাথলিট বিনোদকে কোনও বিভাগে অন্তর্ভুক্ত পারছে না কমিটি। তাই ‘তাই পুরুষদের ডিসকাস থ্রোয়ের এফ-৫২ বিভাগের পদক ইভেন্টের জন্য ওই অ্যাথলিট যোগ্য নন’ এবং ওই প্রতিযোগিতায় তাঁর ফলাফল বাতিল করা হচ্ছে।

যদিও প্যারালিম্পিক্সের আয়োজক কমিটির সেই সিদ্ধান্ত নিয়ে প্রশ্ন উঠছে। গত ২২ অগস্ট বিনোদের ক্লাসিফিকেশন হয়েছিল। তখন তো ছাড়পত্র পেয়েছিলেন। তাহলে আটদিনের ব্যবধানে এমন কী হল যে তাঁর ক্লাসিফিকেশন পালটে গেল? 

রবিবার ডিসকাস থ্রোয়ের এফ-৫২ বিভাগের ফাইনালে পঞ্চম চেষ্টায় ১৯.৯১ মিটার ছোড়েন ভারতীয় অ্যাথলিট। সঙ্গে গড়েন এশিয়ান রেকর্ড। সেই থ্রোয়ের সুবাদে প্যারালিম্পিক্সে ব্রোঞ্জ পদক জিতে নেন বিনোদ। যদিও কিছুক্ষণ পর প্যারালিম্পিক্সের আয়োজকদের তরফে জানানো হয়, পুরুষদের ডিসকাস থ্রোয়ের এফ-৫২ বিভাগের ফলাফল নিয়ে আপাতত পর্যালোচনা চলছে। যদিও ভারতীয় শিবির নিশ্চিত ছিল যে টোকিও প্যারালিম্পিক্সে ভারতের তৃতীয় পদকটা বিনোদের গলায় ঝুলবে। ভারতীয় দলের ডেপুটি শেফ দ্য মিশন আরহান বাগাতি সংবাদসংস্থা এএনআইকে বলেছিলেন, ‘মাত্র চারদিন আগে ওঁর (বিনোদ কুমার) ক্লাসিফিকেশন প্রক্রিয়া করা হয়েছিল। আমি ওখানে ছিলাম। প্যারালিম্পিক্সের তিনজন ক্লাসিফিয়ার বিনোদ কুমার এফ-৫২ গ্রুপের মধ্যে রেখেছেন। অভিযোগ জমা পড়লেও আমরা আত্মবিশ্বাসী যে পর্যালোচনার পরও বিনোদই পদক জিতবেন।’

বন্ধ করুন