বাংলা নিউজ > ময়দান > ঐতিহাসিক সিরিজ জয়ের দিনে বিরল নজিরের সাক্ষী স্পর্শ করলেন শাকিবরা
শ্রীলঙ্কাকে ১০৩ রানে হারায় বাংলাদেশ।
শ্রীলঙ্কাকে ১০৩ রানে হারায় বাংলাদেশ।

ঐতিহাসিক সিরিজ জয়ের দিনে বিরল নজিরের সাক্ষী স্পর্শ করলেন শাকিবরা

  • শাকিব আউট হয়েছেন ৩ বলে ০ রান করে। শাকিবের মতন ২ বল খেলে রানের খাতা না খুলেই সাজঘরে ফিরে যান তরুন প্রতিভাবান ক্রিকেটার মেহেদি হাসান মিরাজও। আর প্রথম বলেই আউট হয়ে প্যাভিলিয়নে ফিরে যান পেসার শরিফুল।

শুভব্রত মুখার্জি

শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে শাকিবরা ঐতিহাসিক ওয়ানডে সিরিজ জিতেছে মিরপুরের ২২ গজে। মুসফিকুর রহিমের দুরন্ত শতরান, মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের ৪১ রানে ভর করে বৃষ্টির ভ্রুকুটিকে উপেক্ষা করে দ্বিতীয় ম্যাচ জিতে সিরিজে আপাতত ২-০ ফলে এগিয়ে মুস্তাফিজুররা। প্রথম ওয়ানডের পরে মিরপুরে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে ও আশানুরূপ ব্যাটিং পারফরম্যান্স দেখাতে পারেনি বাংলাদেশ টাইগাররা।

মুসফিকুর রহিমের ১২৫ এবং মাহমুদুল্লাহ’র ৪১ ছাড়া বলার মতো স্কোর করতে পারেনি কোন বাংলাদেশি ব্যাটসম্যানরা। প্রথম ম্যাচের মতো ফের একবার ব্যর্থ দলের তরুণ প্রতিভাবান ক্রিকেটাররা। প্রথম ম্যাচে ব্যাট হাতে করেছিলেন মাত্র ১৫ রান। দ্বিতীয় ওয়ানডেতেও ব্যাট হাতে হতাশ করেছেন অন্যতম সেরা অলরাউন্ডার শাকিব আল হাসান।

শাকিব আউট হয়েছেন ৩ বলে ০ রান করে। শাকিবের মতন ২ বল খেলে রানের খাতা না খুলেই সাজঘরে ফিরে যান তরুন প্রতিভাবান ক্রিকেটার মেহেদি হাসান মিরাজও। আর প্রথম বলেই আউট হয়ে প্যাভিলিয়নে ফিরে যান পেসার শরিফুল ইসলাম। প্রসঙ্গত এটি ছিল শরিফুলের অভিষেক ম্যাচ। ফলে ১১ জন ব্যাটসম্যানের ৩ জন আউট হয়েছেন শূন্য রানে।

উল্লেখ্য এই ৩ ব্যাটসম্যানই শূন্য রানে আউট হওয়ার ফলে এক বিরল নজির স্থাপন হয়েছে। শূন্য রানে আউট হওয়া তিন ব্যাটসম্যান শাকিব, মিরাজ, শরিফুল যথাক্রমে বল খেলেছেন ৩, ২, ১। অর্থাৎ এই তিন‌ ব্যাটসম্যান ব্রোঞ্জ, সিলভার এবং গোল্ডেন ‘ডাক’র নজির গড়েছেন। শেষ বার বাংলাদেশের ক্রিকেট ইতিহাসে গোল্ডেন, সিলভার, ব্রোঞ্জ ‘ডাক’র নজির ছিল ২০০৭ সালে । সে বারও প্রতিপক্ষ ছিল শ্রীলঙ্কা। সৈয়দ রাসেল, আব্দুর রাজ্জাক এবং শাহরিয়ার নাফীস আউট হয়েছিলেন যথাক্রমে গোল্ডেন, সিলভার, ব্রোঞ্জ ডাক করে। অর্থাৎ ঐতিহাসিক সিরিজ জয়ের দিনে ১৪ বছর বাদে ফের বিরল ঘটনার সাক্ষী থাকল বাংলাদেশ ক্রিকেট।

বন্ধ করুন