বাংলা নিউজ > ময়দান > ১০০-র বেশি T20 খেলা প্লেয়ারদের মধ্যে সবচেয়ে খারাপ গড় ও স্ট্রাইকরেটের নজির মুশফিকুরের
মুশফিকুরকে ফিরিয়ে চামিকা করুণারত্নের উচ্ছ্বাস।

১০০-র বেশি T20 খেলা প্লেয়ারদের মধ্যে সবচেয়ে খারাপ গড় ও স্ট্রাইকরেটের নজির মুশফিকুরের

  • বৃহস্পতিবার এশিয়া কাপের ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে ফের ব্যর্থ হলেন মুশফিকুর। মরণ-বাঁচন ম্যাচে মাত্র ৫ বলে তিনি ৪ রান করলেন। যার জেরে তাঁর গড় এবং স্ট্রাইকরেট আরও কমেছে। এই মুহূর্তে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে তাঁর স্ট্রাইকরেট ১১৫.০৩ এবং গড় ১৯.৪৮।

বাংলাদেশের জার্সিতে ১০২টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলে ফেলেছেন মুশফিকুর রহিম। তবে তিনি ৯৩টি ইনিংস খেলেছেন। কিন্তু তাতেও টি-টোয়েন্টিতে তাঁর নজির অত্যন্ত লজ্জার। বিশ্ব ক্রিকেটে মোট ১৫ জন প্লেয়ার একশো বা তার বেশি টি-টোয়েন্টি খেলে ফেলেছেন। তাদের মধ্যে সবচেয়ে খারাপ গড় এবং স্ট্রাইকরেট বাংলাদেশের তারকারই।

শ্রীলঙ্কা বনাম বাংলাদেশ ম্যাচের লাইভ আপডেট জানতে ক্লিক করুন এখানে: https://bangla.hindustantimes.com/sports/sl-vs-ban-live-score-check-all-updates-sri-lanka-and-bangladesh-asia-cup-2022-match-in-dubai-31662037141637.html

বৃহস্পতিবার এশিয়া কাপের ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে ফের ব্যর্থ হলেন মুশফিকুর। মরণ-বাঁচন ম্যাচে মাত্র ৬ বলে তিনি ৫ রান করেন। যার জেরে তাঁর গড় এবং স্ট্রাইকরেট আরও কমেছে। এই মুহূর্তে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে তাঁর স্ট্রাইকরেট ১১৫.০৩ এবং গড় ১৯.৪৮। এত খারাপ পরিসংখ্যান বাকি যাঁরা ১০০ বা তার বেশি টি-টোয়েন্টি খেলে ফেলেছেন, তাঁদের কারও নেই।

আরও পড়ুন: সূর্যের ঝড়ে আমি একেবারে উড়ে গিয়েছিলাম- যেন ঘোর কাটছে না কোহলির

টসে জিতে প্রথমে বাংলাদেশকে ব্যাট করতে পাঠায় শ্রীলঙ্কা। দলের ১৯ রানের মাথায় শুরুতেই প্রথম উইকেট হারায় বাংলাদেশ। সাব্বির রহমান ৬ বলে ৫ রান করে আউট হন। তার পরে মেহেদি হাসান ২৬ বলে ৩৮ করে সাজঘরে ফেরেন। মুশফিকুর রহিমের সংগ্রহ ৫ বলে ৪ রান। অধিনায়ক শাকিব আল হাসান করেছেন ২২ বলে ২৪ রান। আফিফ হোসেন করেছেন ২২ বলে ৩৯ রান। এটাই বাংলাদেশের ইনিংসে সর্বোচ্চ রান। মাহমুদুল্লাহ ২২ বলে ২৭ রান করেন। ছয়ে ব্যাট করতে নেমে ৯ বলে ঝড়ো ২৪ রান করে অপরাজিত থাকেন মোসাদ্দেক হোসেন। তাঁর এই ইনিংসের হাত ধরেই নির্দিষ্ট ২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে শেষ পর্যন্ত ১৮৩ রান করে ফেলে বাংলাদেশ।

ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা এবং চামিকা করুণারত্নে ২টি করে উইকেট নিয়েছেন। শ্রীলঙ্কার হয়ে ১টি করে উইকেট নিয়েছেন দিলশন মাদুশঙ্কা, মহেশ থিকশানা, অসিথা ফার্নান্দো।

প্রসঙ্গত, এই ম্যাচ যে জিতবে, সেই দলই সুপার ফোরে যাবে। অন্য দলটি এশিয়া কাপ থেকে ছিটকে যাবে। স্বাভাবিক ভাবেই দুই দলের কাছে এই ম্যাচটি একেবারে ডু ওর ডাই।

বন্ধ করুন