বাংলা নিউজ > ময়দান > ব্রিস্টলে টেস্টের সর্বকালীন রেকর্ড শেফালির, সচিন ছাড়া এমন কৃতিত্ব ছেলেদের ক্রিকেটেও আর কারও নেই
অনবদ্য নজির শেফালির। ছবি- আইসিসি।
অনবদ্য নজির শেফালির। ছবি- আইসিসি।

ব্রিস্টলে টেস্টের সর্বকালীন রেকর্ড শেফালির, সচিন ছাড়া এমন কৃতিত্ব ছেলেদের ক্রিকেটেও আর কারও নেই

  • ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে প্রথম ইনিংসে ৯৬ রানে আউট হওয়া শেফালি দ্বিতীয় ইনিংসে অপরাজিত রয়েছেন ৫৫ রানে।

ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে অভিষেক টেস্টের প্রথম ইনিংসে মাত্র ৪ রানের জন্য ব্যক্তিগত হাফ-সেঞ্চুরি হাতছাড়া করেছেন শেফালি বর্মা। ব্রিস্টল টেস্টের প্রথম ইনিংসে তিনি আউট হন ৯৬ রানে। দ্বিতীয় ইনিংসেও ইতিমধ্যেই হাফ-সেঞ্চুরির গণ্ডি টপকে গিয়েছেন তিনি। তৃতীয় দিনের শেষে শেফালি অপরাজিত ৫৫ রানে।

দলগতভাবে ভারত ম্যাচে চাপে থাকলেও দুই ইনিংসেই ব্যাট হাতে একাধিক নজির গড়েন শেফালি। অভিষেক টেস্টে সবথেকে বেশি রান করা ভারতীয় মহিলা ক্রিকেটারের তকমা আগেই ছিনিয়ে নিয়েছেন শেফালি। এবার দ্বিতীয় ইনিংসে হাফ-সেঞ্চুরি করা মাত্রই এমন এক রেকর্ড গড়লেন তিনি, যা সচিন তেন্ডুলকর ছাড়া আর কারও নেই।

ছেলে ও মেয়েদের ক্রিকেট মিলিয়ে টেস্টের দুই ইনিংসেই হাফ-সেঞ্চুরি করা সবথেকে কমবয়সী ক্রিকেটারদের তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে নাম লিখিয়ে নিলেন শেফালি। এই রেকর্ড রয়েছে তেন্ডুলকরের নামে। তিনি ১৭ বছর ১০৭ দিন বয়সে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে টেস্টের দুই ইনিংসেই হাফ-সেঞ্চুরি করেছিলেন। শেফালি চলতি টেস্টের দুই ইনিংসে হাফ-সেঞ্চুরি করলেন ১৭ বছর ১৩৯ দিন বয়সে।

উল্লেখ্য, সচিন ও শেফালি ছাড়া ১৭ বছর বয়সে আর কোনও ক্রিকেটার এমন কৃতিত্ব অর্জন করতে পারেননি। সেদিক থেকে মেয়েদের ক্রিকেটে সবথেকে কম বয়সে একই টেস্টের দুই ইনিংসে হাফ-সেঞ্চুরি করার রেকর্ড গড়লেন শেফালি।

ইতিহাসের চতুর্থ মহিলা ক্রিকেটার হিসেবে অভিষেক টেস্টের দুই ইনিংসেই হাফ-সেঞ্চুরির গণ্ডি টপকে যান শেফালি। তাঁর আগে এই কৃতিত্ব দেখিয়েছেন ইংল্যান্ডের লেসলি কুক (৭২ ও ১১৭), অস্ট্রেলিয়ার জেস জোনাসেন (৯৯ ও ৫৪) এবং শ্রীলঙ্কার ভানেসা বোওয়েন (৭৮ ও ৬৩)।

বন্ধ করুন