বাংলা নিউজ > ময়দান > ‘পাকিস্তানে কোনও ড্রপ-ইন পিচের প্রয়োজন নেই;’ পিসিবি ও পাকিস্তান সরকারের সমালোচনায় মিয়াঁদাদ
জাভেদ মিয়াঁদাদ ও রামিজ রাজা
জাভেদ মিয়াঁদাদ ও রামিজ রাজা

‘পাকিস্তানে কোনও ড্রপ-ইন পিচের প্রয়োজন নেই;’ পিসিবি ও পাকিস্তান সরকারের সমালোচনায় মিয়াঁদাদ

  • বিস্ফোরক মিয়াঁদাদ, পিসিবি-পাক সরকারকে প্রকাশ্যেই একহাত কিংবদন্তির।

শুভব্রত মুখার্জি: পাকিস্তান তথা বিশ্ব ক্রিকেটের অন্যতম বিতর্কিত চরিত্র তিনি। ঠোঁটকাটা স্বভাবের মিয়াঁদাদ বরাবর কোন বিষয় নিয়ে রাখঢাক না করেই মন্তব্য করে থাকেন। তা সে তার খেলোয়াড়ি জীবনে হোক বা তার মাঠের বাইরে। বরাবর তার এই স্বভাবের জন্য তিনি থেকেছেন সংবাদের শিরোনামে। ব্যাট হাতে বাইশ গজে যে বিধ্বংসী মেজাজে তিনি খেলতেন, খেলা ছাড়ার পরেও সেই এক রকমভাবে চাঁচাছোলা ভাষায় কথা বলে ফের শিরোনামে চলে এলেন জাভেদ মিয়াঁদাদ। 

পিসিবি ড্রপ-ইন পিচ বসানোর পথে অনেকটাই এগিয়েছে। কিন্তু দেশে এমন উইকেটের কোনও প্রয়োজন নেই বলে মনে করেন জাভেদ মিয়াঁদাদ। এই বিষয়ে বলতে গিয়ে তিনি পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি) এর পাশাপাশি দেশের সরকারেরও সমালোচনা করেছেন।

প্রসঙ্গত সম্প্রতি পাকিস্তান সুপার লিগের (পিএসএল) ড্রাফট অনুষ্ঠানে পিসিবি চেয়ারম্যান রামিজ রাজা জানান করাচি ও লাহোরে নতুন এই ড্রপ-ইন পিচ বসানো হবে। আরিফ হাবিব গ্রুপের সঙ্গে ড্রপ-ইন পিচ নিয়ে একটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর করেছে পিসিবি। দুটি পিচের আনুমানিক খরচ ৩৭ কোটি টাকা। এত অর্থ খরচ করে এমন পিচ ব্যবহারের কোনও যুক্তিই খুঁজে পাচ্ছেন না মিয়াঁদাদ। কারণ,তার মত প্রথাগত উইকেটে খেলেই বড় ক্রিকেটার হওয়া সম্ভব।

করাচিতে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তিনি জানান ‘পাকিস্তানে কোনও ড্রপ-ইন পিচের প্রয়োজন নেই। সবধরনের পিচই পাকিস্তানে তৈরি হয়। আমরাও এই পিচে খেলেই বিশ্বমানের ক্রিকেটার হয়েছি। খুব কম লোকই এই পিচ নিয়ে ওয়াকিবহাল। মূলত ড্রপ-ইন পিচের ধারণা আসে অস্ট্রেলিয়ায় কেরি প্যাকারের হাত ধরে। কারণ তার কাছে বিশ্বে ক্রিকেট সিরিজ আয়োজনের জন্য মাঠ ছিল না।’ মিয়াঁদাদ আরও যোগ করে বলেন, ‘সরকারে যারাই আসে, বড় কাজ করার কথা বলে। কিন্তু দেশে কিছুই কাজ হচ্ছে না। সরকারের উচিত খেলাধুলায় আরও বেশি বিনিয়োগ করে যুবাদের খেলাধুলার প্রতি আকৃষ্ট করা।’

বন্ধ করুন