বাংলা নিউজ > ময়দান > অধিনায়কত্বের পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হবে বাবরকে, তুঙ্গে জল্পনা

অধিনায়কত্বের পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হবে বাবরকে, তুঙ্গে জল্পনা

বাবর আজম। ছবি- এপি 

পাকিস্তান ক্রিকেট দলের অধিনায়কত্বের পদ থেকে সরিয়ে ফেলা হতে পারে বাবর আজমকে। এমনটাই খবর পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড সূত্রে। সম্প্রতি পাকিস্তানের পারফরম্যান্স মোটেই ভালো নয়। তাই খুব তাড়াতাড়ি বৈঠকে বসতে চলেছে পিসিবি। সেখানেই সিদ্ধান্ত হতে পারে।

পাকিস্তান ক্রিকেট দলের অধিনায়কত্বের পদ থেকে সরিয়ে ফেলা হতে পারে বাবর আজমকে। এমনটাই খবর পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড সূত্রে। সম্প্রতি পাকিস্তানের পারফরম্যান্স মোটেই ভালো নয়। গত বছর ডিসেম্বরে পাকিস্তানের মাটিতে খেলতে আসে ইংল্যান্ড। ঘরের মাটিতে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে একটি টেস্টও জিততে পারেনি বাবর আজমের নেতৃত্বাধীন পাকিস্তান দল। তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজে তিনটি ম্যাচই জেতে ইংল্যান্ড।

শুধু ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে সিরিজ নয়, নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধেও পাকিস্তানের ফলাফল খুব একটা ভালো নয়। কিউইদের বিরুদ্ধে টেস্ট সিরিজ কোনও রকমে ড্র করে পাকিস্তান। নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে শেষ টেস্টে সরফরাজ আহমেদের শতরানে ড্র কররে পাক শিবির। ব্ল্যাক ক্যাপসের বিরুদ্ধে সিরিজ ড্রয়ের ব্যপারটাও মোটেও ভালো ভাবে নেয়নি পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড। খুব তাড়াতাড়ি রিভিউ বৈঠকে বসতে চলেছেন পাক ক্রিকেট বোর্ডের কর্তারা। সেই বৈঠকেই ঠিক হবে বাবর আজমের ভবিষ্যৎ। পাক দলের অধিনায়কত্বের দায়িত্বে তাঁকে দেখা যাবে কিনা।

পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের চেয়ারম্যানের পদ থেকে সরিয়ে দেওয়ার পর দায়িত্বে আসেন নাজাম শেঠি। তড়িঘড়ি পাকিস্তান দলের জাতীয় নির্বাচক করা হয় প্রাক্তন ক্রিকেটার শাহিদ আফ্রিদিকে। এরপরই পাক দলে দেখা যায় পরিবর্তন। মহম্মদ রিজওয়ানকে বসিয়ে নিয়ে আসা হয় সরফরাজ আহমেদকে। আফ্রিদির এমন সিদ্ধান্তে বিতর্ক কম হয়নি। কিন্তু সেই সব বিতর্কের জবাব দিয়েছেন রিজওয়ান। শতরান করে তিনি বুঝিয়ে দিয়েছেন, এখনও শেষ হয়ে যাননি তিনি। ফলে রিজওয়ানের কামব্যাক কার্যত কঠিন বলা চলে।

এই সব ডামাডোল পরিস্থিতির মধ্যেই রিভিউ বৈঠকে বসতে চলেছে পাক বোর্ড। তবে মজার বিষয় হল, বর্তমান পিসিবি সেটআপটি একটি অন্তর্বর্তী ব্যবস্থা ছাড়া আর কিছুই নয়। তাদের একজন অন্তর্বর্তীকালীন প্রধান নির্বাচক এবং অন্তর্বর্তীকালীন প্রধান কোচও রয়েছে। ফেব্রুয়ারিতে চুক্তি শেষ হওয়ার পর পাকিস্তানের প্রধান কোচ সাকলিন মুস্তাক পদত্যাগ করতে পারেন। পিসিবি মিকি আর্থারের সঙ্গেও আলোচনা চালায়, কিন্তু তিনি দ্বিতীয়বারের জন্য কোচ হওয়ার প্রস্তাব ফিরিয়ে দেন। রামিজ রাজার থেকে নাজাম শেঠির নেতৃত্বাধীন ব্যবস্থাপনার দায়িত্ব নেওয়ার মাত্র তিন সপ্তাহ হয়েছে এবং তারপর থেকে তারা অত্যন্ত সক্রিয় ছিল। তারা মহম্মদ ওয়াসিমের নেতৃত্বাধীন নির্বাচক কমিটিকে বরখাস্ত করে পথ চলা শুরু করে। এবং তারা শীঘ্রই আরও অনেক পরিবর্তন করতে চায়। এমনটাই খবর খবর পিসিবি সূত্রে।

এই খবরটি আপনি পড়তে পারেন HT App থেকেও। এবার HT App বাংলায়। HT App ডাউনলোড করার লিঙ্ক https://htipad.onelink.me/277p/p7me4aup

 

বন্ধ করুন