বাংলা নিউজ > ময়দান > ১৮ বছর পর খেলতে এসে শেষ মুহূর্তে সিরিজ বাতিল,পাক সমর্থকদের ক্ষোভের মুখে কিউয়িরা
শেষ মুহূর্তে সিরিজ বাতিল করে পাকিস্তানের ক্ষোভের মুখে নিউজিল্যান্ড।
শেষ মুহূর্তে সিরিজ বাতিল করে পাকিস্তানের ক্ষোভের মুখে নিউজিল্যান্ড।

১৮ বছর পর খেলতে এসে শেষ মুহূর্তে সিরিজ বাতিল,পাক সমর্থকদের ক্ষোভের মুখে কিউয়িরা

  • কিউয়িদের এই সিদ্ধান্তে অসন্তুষ্ট পাক সমর্থকরা টুইটারে তাদের ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছেন। অনেকের বক্তব্য পাকিস্তানে দেশের প্রধানমন্ত্রী এবং রাষ্ট্রপতি যে সুরক্ষা পান না, তার থেকে ও বেশি সুরক্ষা প্রদান করা হয় বিদেশি ক্রিকেটারদের।

শুভব্রত মুখার্জি : দীর্ঘ এক দশক পরে পাকিস্তানের মাটিতে ফিরেছে ক্রিকেট। এই আবহেই আমিরশাহীতে আর কয়েক দিন পর থেকেই শুরু হবে টি-২০ বিশ্বকাপ। সেই বিশ্বকাপকে মাথায় রেখেই পাকিস্তানে ওয়ানডে এবং টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলার কথা ছিল নিউজিল্যান্ডের। তবে একেবারে শেষ মুহূর্তে এসে ক্রিকেটারদের সুরক্ষার বিষয়টি সামনে এনে গোটা সিরিজটিই বাতিল করেছে কিউয়িকা। উল্লেখ্য ১৮ বছর পরে পাকিস্তানের মাটিতে সিরিজ খেলতে পা রেখেছিল নিউজিল্যান্ড। সেই সিরিজ বাতিল হওয়ার ফলে কার্যত হতাশ পাকিস্তারেন ক্রিকেটার, কর্মকর্তা থেকে শুরু করে সমর্থকরা। আর এই সিরিজ বাতিলের ফলে সোশ্যাল মিডিয়াতে স্বাভাবিক ভাবেই পাক সমর্থকদের রোষানলে পড়েছে কিউয়িরা।

উল্লেখ্য পাকিস্তানে তিনটি একদিনের ম্যাচ এবং পাঁচটি টি-২০ ম্যাচ খেলার কথা ছিল নিউজিল্যান্ডের। যদিও পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের তরফে এই সুরক্ষা সমস্যার বিয়টি একেবারেই উড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। উল্লেখ্য প্রথম ম্যাচের দিন সকালেই নিউজিল্যান্ডের সিকিউরিটি বিশেষজ্ঞরা মাঠে উপস্থিত হয়ে সব কিছু খতিয়ে দেখে ক্রিকেটারদের সুরক্ষা সমস্যার কথাটি জানানোর পরেই ম্যাচ সহ গোটা সিরিজ বাতিলের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

কিউয়িদের এই সিদ্ধান্তে অসন্তুষ্ট পাক সমর্থকরা টুইটারে তাদের ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছেন। অনেকের বক্তব্য পাকিস্তানে দেশের প্রধানমন্ত্রী এবং রাষ্ট্রপতি যে সুরক্ষা পান না, তার থেকে ও বেশি সুরক্ষা প্রদান করা হয় বিদেশি ক্রিকেটারদের। কিউয়িরা ওদের সিকিউরিটি স্টাফদের পাকিস্তানে পাঠিয়েছে। তারা অনুশীলন ম্যাচ খেলেছে। এমনকি ট্রফির পাশে দাঁড়িয়ে দুটি দেশের অধিনায়ক ছবি পর্যন্ত তুলেছেন এরপরে কিভাবে সিরিজ বাতিলের সিদ্ধান্ত কিউয়িরা নিল ! বিশ্বকাপে উইলিয়ামসনদের 'দেখে' নেওয়ার ও কথা বলেন অনেকে।

পিসিবির তরফে জানানো হয় সুরক্ষার বিষয়টি নিয়ে দুই দেশের প্রধানমন্ত্রীর কথা হয়েছে। সুরক্ষার বিষয়টি বিশদে বর্ণনা করে আশ্বস্ত ও করা হয়েছিল নিউজিল্যান্ডকে। জানানো হয়েছিল পাকিস্তানের ইন্টেলিজেন্স নেটওয়ার্ক খুব ভাল। সেই জায়গায় দাঁড়িয়ে একেবারে ফুলপ্রুফ আয়োজন করা হয়েছে পাকিস্তান সরকারের তরফে। পিসিবি এই মুহূর্তে দাঁড়িয়েও সিরিজ আয়োজন করতে উদ্যোগী ছিল। কিন্তু কোনও কথায় কর্ণপাত করেনি নিউজিল্যান্ড।

বন্ধ করুন