বাংলা নিউজ > ময়দান > অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে সুযোগ হয়নি, স্থগিত হয়ে যাওয়া IPL-এর মঞ্চেই জার্সি বদল গিল-কামিন্সের
প্যাট কামিন্স ও শুভমন গিল। ছবি- স্ক্রিনগ্র্যাব।
প্যাট কামিন্স ও শুভমন গিল। ছবি- স্ক্রিনগ্র্যাব।

অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে সুযোগ হয়নি, স্থগিত হয়ে যাওয়া IPL-এর মঞ্চেই জার্সি বদল গিল-কামিন্সের

  • অস্ট্রেলিয়ায় টেস্ট সিরিজে একে-অপরের প্রতিপক্ষ ছিলেন দুই KKR সতীর্থ।

শুভব্রত মুখার্জি

২০২০-২১ মরশুমে অস্ট্রেলিয়া সফরে টেস্ট সিরিজে স্বপ্নের জয় পেয়েছিল ভারতীয় জাতীয় ক্রিকেট দল। চোট আঘাতে জর্জরিত হওয়ার পরেও ভারতীয় ক্রিকেটাররা যে মানসিক দৃঢ়তার পরিচয় দিয়ে সিরিজ জিতেছিল তা এককথায় অনবদ্য। সেই সিরিজে প্রথম টেস্টে ভারত ওপেনার হিসেবে পৃথ্বী শ সুযোগ পেয়েছিলেন মায়াঙ্ক আগরওয়ালের পাশে। পৃথ্বী ব্যর্থ হওয়ার পরে দ্বিতীয় টেস্টে তাঁর জায়গায় দলে ওপেনার হিসেবে সুযোগ পান শুভমন গিল। আর সুযোগ পেয়েই যাকে বলে একেবারে কেল্লাফতে করে দেন গিল। একের পর এক ভালো ইনিংস খেলে দলে নিজের জায়গা পাকা করে ফেলেন তিনি।

সেই সিরিজে একে অপরের প্রতিপক্ষ হয়ে খেললেও তার কয়েকমাস বাদেই স্থগিত হওয়া আইপিএলে কেকেআর ফ্রাঞ্চাইজির হয়ে সতীর্থ হিসেবে খেলছিলেন গিল ও কামিন্স। আইপিএল চলাকালীন বায়ো বাবলে থাকা ক্রিকেটার-সহ একাধিক ব্যক্তি করোনা আক্রান্ত হওয়ার ফলে স্থগিত করতে হয় আইপিএল। এরপরে আইপিএলে খেলতে আসা ক্রিকেটার, কোচিং স্টাফ, ধারাভাষ্যকার-সহ সমস্ত অস্ট্রেলিয়ার নাগরিককে পাঠানো হয় মলদ্বীপে । সেখানে নিভৃতবাস কাটিয়ে তবেই দেশের উদ্দেশ্যে ফিরে যেতে সমর্থ হন অজি ক্রিকেটাররা। বলা যায় একটা অত্যন্ত কঠিন সময় কাটাতে হয় আইপিএলে খেলতে আসা ক্রিকেটারদের। পেসার প্যাট কামিন্সও এর ব্যতিক্রম নন।

অজি ক্রিকেটাররা এরপর সিডনির হোটেলে ২ সপ্তাহ নিভৃতবাস কাটানোর পরে তাঁদের পরিবারের সাথে মেলামেশা করার সুযোগ পান। প্রতিযোগিতা স্থগিত হওয়ার পরে কেমন সময়ের মধ্যে দিয়ে গেছেন ক্রিকেটাররা তা বোঝাতে নিজের ইউটিউব চ্যানেলে প্যাট কামিন্স একটি ভিডিও প্রকাশ করেন। যেখানে দেখা যায় কেকেআরের সতীর্থ গিল ও কামিন্স নিজেদের জাতীয় দলের টেস্ট জার্সি একে অপরের সাথে বিনিময় করছেন। ভিডিওতে কামিন্সকে বলতে শোনা যায়, ' আজ ৩ রা মে। আমরা আমদাবাদে ফের নিভৃতবাসে, আইসোলেশনে ফিরে এসেছি। দুর্ভাগ্যের বিষয় আমাদের বেশ কিছু ক্রিকেটার করোনা পজিটিভ হয়েছেন। প্রত্যেককে নিয়মিত পরীক্ষা করা হচ্ছে। হোটেলের স্টাফদেরও নিয়মিত পরীক্ষা করা হচ্ছে। আমাদেরকে প্রতি ৪৮ ঘন্টাতে একবার করে পরীক্ষা করা হচ্ছে। '

ভিডিওতে দেখা যায় প্যাট কামিন্স ও শুভমন গিল নিজেদের মধ্যে জার্সি বদল করছেন। কামিন্স জানান, 'এটা শুভমানের টেস্ট জার্সি। আমরা একে অপরকে কথা দিয়েছিলাম টেস্ট সিরিজ শেষ হলে আমরা জার্সি বদল করব। তবে সেই সুযোগ তখন পাইনি। শুভমানের এমসিজিতে টেস্টে অভিষেক ঘটে। পরবর্তী সিডনি এবং গাব্বা টেস্টেও ও খেলেছিল। আমার বন্ধুরা, সেই সময়ের বাকি থাকা কাজটা আমরা আইপিএলে এসে সম্পন্ন করলাম।'

বন্ধ করুন