বাংলা নিউজ > ময়দান > চলতি UCL-এ ১১ ম্যাচ অপরাজিত ম্যান সিটি, ১০ বছর পরে কি আবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগের খেতাব জিততে পারবেন পেপ গুয়ার্দিওয়ালা!
ম্যাচের মধ্যে পেপ গুয়ার্দিওয়ালা (ছবি: গুগল)
ম্যাচের মধ্যে পেপ গুয়ার্দিওয়ালা (ছবি: গুগল)

চলতি UCL-এ ১১ ম্যাচ অপরাজিত ম্যান সিটি, ১০ বছর পরে কি আবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগের খেতাব জিততে পারবেন পেপ গুয়ার্দিওয়ালা!

  • প্রায় ১০ বছর পরে কি পেপ গুয়ার্দিওয়ালার শাপমোচন হতে চলেছে। উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের স্বাদ এখনও পর্যন্ত দু’বার পেয়েছেন তিনি। ২০০৮-০৯ ও ২০১০-১১ সালে বার্সেলোনার হয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ খেতাব জিতেছিলেন পেপ গুয়ার্দিওয়ালা।

প্রায় ১০ বছর পরে কি পেপ গুয়ার্দিওয়ালার শাপমোচন হতে চলেছে। উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের স্বাদ এখনও পর্যন্ত দু’বার পেয়েছেন তিনি। ২০০৮-০৯ ও ২০১০-১১ সালে বার্সেলোনার হয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ খেতাব জিতেছিলেন পেপ গুয়ার্দিওয়ালা। তারপর থেকে আর চ্যাম্পিয়ন্স লিগের স্বাদ পাননি তিনি। বার্সেলোনা ছাড়া পর থেকে অনেক সাফল্য ও ব্যর্থতা এসেছে গুয়ার্দিওয়ালার ফুটবল জীবনে, কিন্তু কোনও বারই চ্যাম্পিয়ন্স লিগের কাছে পৌঁছাতে পারেননি তিনি। এবার প্রায় ১০ বছর পরে আবারও চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জেতার স্বপ্ন দেখতে শুরু করলেন গুয়ার্দিওয়ালা। এবার তিনি ম্যান সিটির কোচ।

এবারের চ্যাম্পিয়ন্স লিগে একেবারে চ্যাম্পিয়নের মতোই খেলছে ম্যান সিটি। চলতি মরসুমে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে এখন পর্যন্ত একটিও ম্যাচ হারেনি ম্যান সিটি। একমাত্র গ্রুপ পর্যায়ের একটি ম্যাচে পোর্তোর সঙ্গে ড্র করার ফলে পয়েন্ট নষ্ট করতে হয়েছিল ম্যান সিটিকে। সেই ম্যাচে এক পয়েন্ট পেতে হয়েছিল পেপ গুয়ার্দিওয়ালার ছেলেদের। বাকি সবকটি ম্যাচে জয় পেয়েছে ম্যান সিটি। তারা চলতি চ্যাম্পিয়ন্স লিগে এখনও পর্যন্ত টানা ১১টি ম্যাচে জয় পেয়েছে। কোনও ইংলিশ দল হিসাবে ইউরোপিয়ান ফুটবল ইতিহাসে প্রথমষ এমনকি চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ফুটবলের ইতিহাসে এটি এখনও পর্যন্ত একটি রেকর্ড।   

মঙ্গলবার ম্যান সিটির ঘরের মাঠে যখন পেপ গুয়ার্দিওয়ালার ছেলেরা পিএসজির জালে একের পর এক বল জড়াচ্ছেন তখন থেকেই হিসাব নিকাশ কষা শুরু হয়েগিয়েছিল। শেষ ২০১০-১১ সালে কোচ হিসাবে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ফাইনাল খেলার স্বাদ পেয়েছিলেন গুয়ার্দিওয়ালা। সে বছর তিনি ছিলেন মেসিদের কোচ। ১০ বছর পরে আবারও উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে নামবেন তিনি। এবারও কি তিনি চ্যাম্পিয়ন্স লিগ খেতাব জিততে পারবেন। সেদিকেই তাকিয়ে বিশ্ব ফুটবল।  

বন্ধ করুন