বাংলা নিউজ > ময়দান > মস্কোতে উশু চ্যাম্পিয়নশিপে সোনা কাশ্মীরের সাদিয়ার, প্রশংয়ায় পঞ্চমুখ মোদী
উশু চ্যাম্পিয়নশিপে সোনা কাশ্মীরের সাদিয়ার (ছবি সৌজন্যে টুইটার)

মস্কোতে উশু চ্যাম্পিয়নশিপে সোনা কাশ্মীরের সাদিয়ার, প্রশংয়ায় পঞ্চমুখ মোদী

  • শ্রীনগরের ১৫ বছর বয়সী তরুণীর প্রশংসা করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী থেকে ওমর আবদুল্লাহ।

মস্কোতে অনুষ্ঠিত উশু চ্যাম্পিয়নশিপে ভারতকে সোনা এনে দিলেন রাশ্মীরের মেয়ে সাদিয়া তারিক। এই সাফল্যের জন্য ১৫ বছর বয়সী তরুণীর প্রশংসা করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। ২২ ফেব্রুয়ারি থেকে এই চ্যাম্পিয়নশিপের আয়োজন করা হয়। সাদিয়া ফাইনাল ম্যাচে রাশিয়ার প্রতিদ্বন্দ্বীকে হারান।

টুইটে সাদিয়ার প্রশংসা করে প্রধানমন্ত্রী মোদী লেখেন, ‘মস্কোয় আয়োজিত উশু স্টারস চ্যাম্পিয়নশিপে সোনা জয় করার জন্য সাদিয়া তারিককে অভিনন্দন জানাতে চাই। সাদিয়ার এই সাফল্য দেশের উঠতি অ্যাথলিটদের আরও বেশি করে অনুপ্রাণিত করবে। তাঁর ভবিষ্যতের জন্য অনেক শুভেচ্ছা রইল।’ জবাবে সাদিয়া লেখেন, ‘স্যার, আমার সাম্প্রতিক কৃতিত্বের জন্য আমাকে অভিনন্দন জানানোয় আমি আপনাকে আন্তরিকভাবে ধন্যবাদ জানাতে চাই। এটি আমাদের জাতির জন্য একটি গর্বের মুহূর্ত এবং আমি অবশ্যই আমার ভারতকে গর্বিত করার চেষ্টা চালিয়ে যাব।’ সাদিয়ার এই সোনা জয়ের পর জম্মু এবং কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ওমর আবদুল্লাহও শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। তাছাড়া প্রাক্তন কেন্দ্রীয় ক্রীড়ামন্ত্রী তথা আথেন্স অলিম্পিক পদকজয়ী রাজ্যবর্ধন রাঠৌরও শুভেচ্ছা জানান তাঁকে।

সোনা অর্জন করতে সাদিয়া তিনটে লড়াই জেতেন টুর্নামেন্টে। শেষ ম্যাচে রাশিয়ার প্রতিযোগী ছাড়াও কাজাখস্তান এবং চেক প্রজাতন্ত্রের উশু খেলোয়াড়দের হারান সাদিয়া। সাদিয়া ইতিমধ্যেই জাতীয় জুনিয়র উশু চ্যাম্পিয়নশিপে দুই বার সোনা জয় করেছেন। তাঁর বাড়ি শ্রীনগরে। শ্রীনগরের প্রেজেন্টেশন কনভেন্ট স্কুলে তিনি দশম শ্রেণীতে পড়াশুনো করেন। জানা গিয়েছে, সাদিয়ার বাবা তারিক লোন পেশায় একজন চিত্র সাংবাদিক। এই চ্যাম্পিয়নশিপে ভারত থেকে মোট ৩৮ জন প্রতিযোগী অংশগ্রহণ করেছিলেন। গোটা দেশ থেকে ২৩ জন জুনিয়র এবং ১৫ জন সিনিয়র উশু খেলোয়াড় এই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করেন।

বন্ধ করুন