বাংলা নিউজ > ময়দান > মারাদোনার মৃত্যুতে শোক প্রকাশ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর
মারাদোনা যখন শহরের অতিথি। ছবি- হিন্দুস্তান টাইমস আর্কাইভ/অশোক নাথ দে।
মারাদোনা যখন শহরের অতিথি। ছবি- হিন্দুস্তান টাইমস আর্কাইভ/অশোক নাথ দে।

মারাদোনার মৃত্যুতে শোক প্রকাশ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর

  • সোশ্যাল মিডিয়ায় শোক প্রকাশ করেছেন কেন্দ্রীয় ক্রীড়ামন্ত্রী কিরেন রিজিজুও।

ফুটবলার শুধু ফুটবলের জন্য হয় না। দিয়েগো মারাদোনার মতো কিংবদন্তি সারা বিশ্বের সম্পদ। তাঁর গুনমুগ্ধদের মধ্যে নিছক ফুটবলপ্রেমী ছাড়াও সমাজের সর্বস্তরের মানুষ রয়েছেন। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী তাঁদের মধ্যেই একজন।

স্বাভাবিকভাবেই মারাদানোর মৃত্যুশোক ছুঁয়ে গিয়েছে প্রধানমন্ত্রী মোদীকেও। তিনি সেই শোক চেপেও রাখেননি। বরং সোশ্যাল মিডিয়ায় এমন গ্লোবাল আইকনের মৃত্যুর বেদনা প্রকাশ করেছেন তিনি।

টুইটারে মারাদোনার আত্মার শান্তি কামনা করে মোদী লেখেন, 'দিয়েগো মারাদোনা ফুটবলের একজন ওস্তাদ ছিলেন। যাঁর খ্যাতি বিশ্বজোড়া। ফুটবল মাঠে সারা কেরিয়ার জুড়ে মারাদোনা আমাদের অবিস্মরণীয় সব মুহূর্ত উপহার দিয়েছেন। তাঁর অকাল প্রয়াণে আমরা সবাই শোকাহত। ওঁর আত্মার শান্তি কামনা করি।'

সোশ্যাল মিডিয়ায় শোক প্রকাশ করেছেন কেন্দ্রীয় ক্রীড়ামন্ত্রী কিরেন রিজিজুও। তিনি লেখেন, ‘আরও একজন মারাদোনা কখনও জন্ম নেবে না।তিনিই ফুটবলের প্রথম সুপারস্টার, যাঁকে আমরা সরাসরি টেলিভিশনের পর্দায় দেখেছি। আমি মহান পেলে এবং মন্ত্রমুগ্ধকর গ্যারিঞ্চার খেলা সরাসরি দেখিনি। তবে আমি ভাগ্যবান যে, মারাদোনার ম্যাজিক দেখেছি সরাসরি।’

উল্লেখ্য, বুধবার হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে প্রয়াত হন দিয়েগো মারাদোনা। মৃত্যকালে তাঁর বয়স হয়েছিল মাত্র ৬০ বছর। মস্তিষ্কে রক্ত জমাট বেঁধে যাওয়ায় অস্ত্রোপচারের পর গত ১১ নভেম্বর হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়েছিলেন। এদিন হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার পর খবর দেওয়া হয় হাসপাতালে। কিছুক্ষণের মধ্যেই অ্যাম্বুলেন্স পৌঁছেও যায়। কিন্তু শেষরক্ষা হয়নি। শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন ফুটবলের রাজপুত্র।

বন্ধ করুন