বাংলা নিউজ > ময়দান > ‘কয়েকটা শট খেললেই কেউ সেহওয়াগ বা রিচার্ডস হয়ে যায় না’, পৃথ্বী শ'র ধারাবাহিকতা নিয়ে কড়া সমালোচনা প্রাক্তন পাক অধিনায়কের
পৃথ্বী শ। ছবি- এএনআই।
পৃথ্বী শ। ছবি- এএনআই।

‘কয়েকটা শট খেললেই কেউ সেহওয়াগ বা রিচার্ডস হয়ে যায় না’, পৃথ্বী শ'র ধারাবাহিকতা নিয়ে কড়া সমালোচনা প্রাক্তন পাক অধিনায়কের

  • শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে দুইবার ৪০-এর ঘরে পৌঁছেও ওয়ান ডেতে নিজের প্রথম অর্ধশতরান করতে ব্যর্থ হন ভারতীয় ওপেনার।

শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে তিন ওয়ান ডের সিরিজে পৃথ্বী শর ইনিংসের শুরুতেই আক্রমণাত্মক ব্যাটিং ও অবিশ্বাস্য সব শটে মুগ্ধ হয়েছেন অনুরাগী থেকে সমর্থক সকলেই। তবে প্রতিটি ৫০ ওভারের ম্যাচেই একাধিকবার শুরুটা ভাল করেও উইকেট ছুড়ে দিয়ে এসেছেন পৃথ্বী। দুইবার ৪০-এর ঘরে পৌঁছেও বড় রান তো দূর ওয়ান ডেতে নিজের প্রথম অর্ধশতরানও করতে ব্যর্থ হন ভারতীয় ওপেনার।

তবে পৃথ্বী শর আক্রমণাত্মক ব্যাটিংয়ে অনেকেই বীরেন্দ্র সেহওয়াগ এবং ভিভ রিচার্ডসের ছাপ লক্ষ্য করেছেন। কিন্তু প্রাক্তন কিংবদন্তিদের সঙ্গে তুলনায় আসতে গেলে আগে তাঁদের মতো ধারবাহিকভাবে পৃথ্বীকে রান করে নিজে প্রমাণ করতে হবে বলেই মনে করছেন প্রাক্তন পাকিস্তান অধিনায়ক সলমন বাট। 

বাট নিজের ইউটিউব চ্যানেলে জানান, ‘অনেক সমর্থকই ভিভ রিচার্ডস বা বীরেন্দ্র সেহওয়াগের উদাহরণ দিয়ে দাবি করেন পৃথ্বী শকে নিজের খেলার ধরনে পরিবর্তন করতে বলা অন্যায্য। তবে একমাত্র ধারাবাহিকভাবে পারফর্ম করলেই কোন নির্দিষ্ট স্টাইলকে নিজের খেলার ধরন বলে সেই অনুযায়ীই খেলা চালিয়ে যাওয়া সম্ভব। ভিভ বা সেহওয়াগের মতো কয়েকটা শট খেললেই কেউ সেহওয়াগ বা রিচার্ডস হয়ে যায় না। বড় শতরান ও ধারাবাহিকতার মাধ্যমেই নিজের ভিন্ন ধরনের ব্যাটিং স্টাইলের স্বপক্ষে কেউ যুক্তি পেশ করতে পারে।’  

পৃথ্বীর গলদ ধরিয়ে দেওয়ার পাশাপাশি তাঁর কী করা উচিত সেই পথও বাতলে দিয়েছেন বাট। পাক ক্রিকটারের মতে, ‘ও দুই-তিনটে চোখ ধাঁধানো শট মারার পরেই আউট হয়ে যায়। যদি কোন কিছু বড় রান করার ক্ষেত্রে বাধা হয়ে দাঁড়ায়, তবে সেক্ষেত্রে সেটা বদলে ফেলে সবার আগে রান করা দরকার। তারপর না হয় বাকি কিছু নিয়ে ভাবা যাবে। পৃথ্বী সব ধরনের শট খেলতে সক্ষম। তবে ওর নিজেকে একটু সময় দেওয়ার দরকার। শুরুতেই ও অত্যাধিক শট খেলছে। এর বদলে আমার মতে পরিবেশ, উইকেট এবং প্রতিপক্ষ বিচার করেই পরিস্থিতি অনুযায়ী ক্রিকেটটা খেলা দরকার।’

বন্ধ করুন