বাংলা নিউজ > ময়দান > PSL 2021: জালমিকে পরাস্ত করে প্রথম খেতাব জয় মহম্মদ রিজওয়ানের মুলতান সুলতানসের
ট্রফি হাতে মুলতান সুলতানস দল। ছবি- পিএসএল (টুইটার)।
ট্রফি হাতে মুলতান সুলতানস দল। ছবি- পিএসএল (টুইটার)।

PSL 2021: জালমিকে পরাস্ত করে প্রথম খেতাব জয় মহম্মদ রিজওয়ানের মুলতান সুলতানসের

  • শেষ চার বছরে তৃতীয়বার ফাইনালে হারের মুখ দেখতে হল পেশোয়ার জালমিকে।

আবারও ফাইনালে হারের গ্লানি জুটল শোয়েব মালিকদের পেশোয়ার জালমির ভাগ্যে। প্রথমবার ফাইনালে উঠেই ৪৭ রানে তাঁদের পরাস্ত করে ট্রফি ঘরে তুলল মহম্মদ রিজওয়ানের নেতৃত্বাধীন মুলতান সুলতানস।

শোয়েব মাকসুদ (৬৫) ও রাইলি রুসোর (৫০) সুবাদে নিজেদের বিশ ওভারে চার উইকেট খুইয়ে ২০৬ রান তোলে মুলতান সুলতানস। সামিন গুল ও মহম্মদ ইরফানের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ের সুবাদে প্রথমে রান করতে কিছুটা সমস্যাই হচ্ছিল ওপেনিং করতে নামা রিজওয়ান এবং শান মাসুদের। তবে ধীরে ধীরে ছন্দে ফিরে ৬৬ রানের মজবুত ওপেনিং পার্টনারশিপে মাকসুদদের জন্য ভীত গড়ে দেন দুই ওপেনার।

এরপরেই ব্যাটে নেমে ঝড় তোলেন মাকসুদ ও রুসো। দুইজনে মিলে তৃতীয় উইকেটে ৪৪ বলে ৯৮ রানের পার্টনারশিপে মুলতানকে বড় রানের লক্ষ্যে পৌঁছে দেওয়ার কাজটি সুদক্ষভাবে করেন। ৩৫ বলে ছয়টি চার ও তিনটি ছক্কার সুবাদে ৬৫ রানে অপরাজিত থাকেন মাকসুদ। তাঁর থেকেও বেশি স্ট্রাইক রেটে ২১ বলে নিজের অর্ধশতরান ইনিংস খেলে সাজঘরে ফেরেন রুসো।

শেষের দিকে খুশদিল শাহের পাঁচ বলে ১৫ রানের ইনিংসের সুবাদে দু'শোর গন্ডি টপকায় সুলতানস। গুল নিজের চার ওভারে ২৬ রান দিয়ে দুই উইকেট নিলেও মাকসুদ ঝড়ে চুড়ান্ত ব্যর্থ হন জালমি অধিনায়ক ওয়াহাব রিয়াজ। তিনি চার ওভারে দেন ৫২ রান।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে দুরন্ত ছন্দে থাকা জালমির শেষ দুই ম্যাচের নায়ক হজরতউল্লাহ জাজাইকে মাত্র ছয় রানের মাথায় সাজঘরে ফেরান ব্লেসিং মুজারাবানি। কামরান আকমল (২৮ বলে ৩৬) ও জনাথন ওয়েলসের  (১৩ বলে ৬) আউট হলে ৫৮ রান তিন উইকেট হারিয়ে জয়ের রাস্তায় বড় ধাক্কা খায় জালমি। অভিজ্ঞ শোয়েব মালিক প্রায় একা হাতেই ইনিংস টেনে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলেও ২৮ বলে ৪৮ রান করে তিনি সাজঘরে ফিরলে জালমির আশা কার্যত শেষ হয়ে যায়। 

অবশেষে ১৫৯ রানে থেমে যায় তাঁদের ইনিংস। ‘তরুণ’ ইমরান তাহির ইনিংসের ১৭ নম্বর ওভারে তিন উইকেট তুলে নিয়ে জালমির অবশিষ্ট আশাটুকুও শেষ করে দেন। ফাইনালে নিজের চার ওভারে ৩৩ রান খরচ করে তিন উইকেট তুলে নেন তিনি। তবে টুর্নামেন্টের সর্বোচ্চ উইকেটশিকারী শাহনওয়াজ দাহানি এদিন কোন উইকেট নিতে পারেননি।

এই নিয়ে শেষ চার বছরে তৃতীয়বার ফাইনালে পরাস্ত হল জালমি। নিজেদের টুর্নামেন্টের দ্বিতীয়ভাগে দুরন্ত পারফরম্যান্স ও ধারাবাহিকতা দেখিয়ে প্রথমবার ফাইনালে উঠেই খেতাব ঘরে তুলল মুলতান। তাঁর দুর্ধর্ষ ইনিংসের সুবাদে ফাইনালের ম্যান অফ দ্য ম্যাচ নির্বাচিত হন মাকসুদ। অধিনায়ক রিজওয়ান টুর্নামেন্টের সেরা উইকেটরক্ষক নির্বাচিত হন।

বন্ধ করুন