বাংলা নিউজ > ময়দান > PSL 2022: ‘অন ডিউটি দেশকে বেচে দেওয়া ফিক্সার’, ঝামেলা লেগে গেল পাকিস্তানের ২ ক্রিকেটারের!
সলমন বাট এবং সরফরাজ আহমেদ। (ফাইল ছবি, সৌজন্যে রয়টার্স এবং টুইটার)

PSL 2022: ‘অন ডিউটি দেশকে বেচে দেওয়া ফিক্সার’, ঝামেলা লেগে গেল পাকিস্তানের ২ ক্রিকেটারের!

  • যে সরফরাজ পাকিস্তান সুপার লিগের (পিএসএল) তিনটি ম্যাচে মাত্র ৩৭ রান করেছেন।

ফর্ম এবং অধিনায়কত্ব প্রশ্ন তুলেছিলেন প্রাক্তন পাকিস্তানি ক্রিকেটার সলমন বাট। তা নিয়ে পালটা দিলেন পাকিস্তানের প্রাক্তন অধিনায়ক তথা কোয়েট্টা গ্ল্যাডিয়েটর্সের অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ। খোঁচা দিয়ে বললেন, ‘অন ডিউটি পাকিস্তানকে বেচে দেওয়া ফিক্সার।’

বুধবার টুইটারে পাকিস্তানের প্রাক্তন অধিনায়ক সরফরাজ বলেন, 'কারও মনোভাব নিয়ে প্রশ্ন তোলার ক্ষেত্রে অন ডিউটি পাকিস্তানকে বেচে দেওয়া ফিক্সারের সকলের শেষে থাকা উচিত।' টুইটের কোথাও বাটের নাম করেননি পাকিস্তানকে ২০১৭ সালে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে চ্যাম্পিয়ন করা অধিনায়ক। তবে তাঁর নিশানায় যে বাট ছিলেন, তা বুঝতে অসুবিধা হয়নি নেটিজেনদের।

কিন্তু আচমকা নাম না করে বাটকে এরকমভাবে আক্রমণ কেন করলেন সরফরাজ? আসলে সরফরাজের সাম্প্রতিক ফর্ম নিয়ে সমালোচনা করেছিলেন বাট। যে সরফরাজ পাকিস্তান সুপার লিগের (পিএসএল) তিনটি ম্যাচে মাত্র ৩৭ রান করেছেন। স্ট্রাইক রেট ১১৫.৬২। সেই পারফরম্যান্সের প্রেক্ষিতে বাট বলেছিলেন, ‘ও (সরফরাজ) নিজের উপর কোনও দয়া করছে না। ও শুধুমাত্র নিজের জন্য সমস্যা বাড়াচ্ছে। আমি নিশ্চিত যে আজ ওর কাছে কোনও উত্তর নেই।’ সঙ্গে বাট বলেন, ‘ওর নিজের উপর মনোযোগ দেওয়া দরকার। নিজের পারফরম্যান্সের দিকে ওর দেখা উচিত। গত দেড় বছর ধরে দ্বিতীয় উইকেটকিপার হিসেবে পাকিস্তান দলের সঙ্গে ঘুরে বেড়াচ্ছে ও। অন্যদের পারফরম্যান্সে নাক না গলিয়ে ওর নিজের দিকে নজর দেওয়া উচিত।’

উল্লেখ্য, ২০১০ সালের স্পট-ফিক্সিং কাণ্ডের সময় পাকিস্তানের অধিনায়ক ছিলেন বাট। সেই কাণ্ডের মূল কেন্দ্রবিন্দুতে মহম্মদ আমির এবং মহম্মদ আসিফ ছিলেন। সেই ঘটনার জেরে ২০১০ সালের অগস্টে বাটেন হাত থেকে পাকিস্তান টেস্ট দলের অধিনায়কত্ব কেড়ে নেওয়া হয়েছিল। বাদ দেওয়া হয়েছিল একদিনের দল থেকেও। নিষিদ্ধ করা হয়েছিল বাটদের।

বন্ধ করুন