বাড়ি > ময়দান > টিম ইন্ডিয়ার কিট স্পনসর হওয়ার দৌড়ে এগিয়ে প্যুমা, লড়াইয়ে নামতে পারে অ্যাডিডাসও
ফুটবল হাতে বিরাট কোহলি। ছবি- পিটিআই।
ফুটবল হাতে বিরাট কোহলি। ছবি- পিটিআই।

টিম ইন্ডিয়ার কিট স্পনসর হওয়ার দৌড়ে এগিয়ে প্যুমা, লড়াইয়ে নামতে পারে অ্যাডিডাসও

  • ভারতের বাজার ধরতে আগ্রহী জার্মান ক্রীড়া সরঞ্জাম প্রস্তুতকারী সংস্থাটি।

ভারতীয় ক্রিকেট দলের কিট স্পনসর হওয়ার দৌড়ে নাম লেখাল প্যুমা। ক্রীড়া সরঞ্জাম প্রস্তুতকারী জার্মান সংস্থাটি বিসিসিআইয়ের কাছ থেকে দরপত্র কিনেছে। শোনা যাচ্ছে লড়াইয়ে নাম লেখাতে পারে প্যুমার প্রতিদ্বন্দ্বী সংস্থা অ্যাডিডাস, যার সদর দফতরও অবস্থিত জার্মানিতেই।

নাইকির সঙ্গে ভারতীয় বোর্ডের চুক্তি ছিল ২০২০ পর্যন্ত। ২০১৬ সালে ৪০০ কোটি টাকার বিনিময়ে টিম ইন্ডিয়ার কিট স্পনসর হয় নাইকি। মেয়াদ শেষ হওয়ার পর মার্কিন সংস্থাকে তুনলায় কম অর্থের বিনিময়ে চুক্তি নবীকরণের প্রস্তাব দেয় বিসিসিআই। যদিও সেই প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করে তারা।

নাইকি সরে যাওয়ার পরেই ভারতীয় দলের কিট স্পনসর হওয়ার জন্য টেন্ডার ডাকে বিসিসিআই। ১ লক্ষ টাকার বিনিময়ে দরপত্র আহ্বান করে বিজ্ঞাপন দেওয়া হয় বোর্ডের তরফে। বিসিসিআইয়ের তরফে নিশ্চত করা হয়েছে যে, প্যুমা ইতিমধ্যেই বিড ডকুমেন্ট কিনেছে। পাশাপাশি ইঙ্গিত দেওয়া হয়েছে যে, ভারতের কিট স্পনসর হতে আগ্রহী অ্যাডিডাসও।

নাইকির নতুন করে দরপত্র জমা দেওয়ার সম্ভাবনাও একেবারে উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না। বিসিসিআইয়ের দেওয়া প্রস্তাবের থেকেও কম অর্থে ভারতের কিট স্পনসর হওয়ার জন্য দরপত্র জমা দিতে পারে নাইকি। বাণিজ্যিকমহলের ধারণা, এবার পরিস্থিতির কথা মাথায় রাখলে মাত্র ২০০ কোটি টাকার বিনিময়েও ৫ বছরের জন্য টিম ইন্ডিয়ার কিট স্পনসর হতে পারে কোনও সংস্থা।

প্যুমা অবশ্য ভারতের বাজার ধরতে প্রবল আগ্রহী। তারা আইপিএলের আঙিনায় মাথা গলিয়েছে আগেই। বিশেষ করে বিরাট কোহলি ও লোকেশ রাহুলকে ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর নিযুক্ত করে ভারতের বাজারে জাঁকিয়ে বসতে চাইছে তারা। টিম ইন্ডিয়ার কিট স্পনসর হওয়ার দৌড়ে তাই এগিয়ে প্যুমাই।

বন্ধ করুন