বাড়ি > ময়দান > পাঠানকোটে রায়নার পিসেমশাইয়ের হত্যাকারীরা ধরা পড়ল পঞ্জাব পুলিশের হাতে
অশোক কুমার ও সুরেশ রায়না। ছবি- সোশ্যাল মিডিয়া।
অশোক কুমার ও সুরেশ রায়না। ছবি- সোশ্যাল মিডিয়া।

পাঠানকোটে রায়নার পিসেমশাইয়ের হত্যাকারীরা ধরা পড়ল পঞ্জাব পুলিশের হাতে

  • তিন জন দুষ্কৃতীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

এক মাসের মধ্যে সুরেশ রায়নার পিসেমশাইয়ের খুনের কিনারা করল পঞ্জাব পুলিশ। পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী অমরিন্দর সিং বুধবার ঘোষণা করেন, গত মাসে তারকা ক্রিকেটারের পিশেমশাইয়ের বাড়িতে হামলা চালানো দুষ্কৃতীরা ধরা পড়েছে পঞ্জাব পুলিশের হাতে।

হামলায় জড়িত এক আন্তঃরাজ্য দুষ্কৃতী চক্রের তিন জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অভিযুক্ত আরও ১১ জনকে এখনও গ্রেফতার করা যায় নি। তাদের খোঁজ চালাচ্ছে পুলিশ।

পঞ্জাবের পাঠানকোট জেলার থারিয়াল গ্রামে ১৯ অগস্ট রাতে নিজের বাড়িতেই দুষ্কৃতিদের হাতে খুন হন রায়নার পিসেমশাই অশোক কুমার। আহত হন পরিবারের আরও চার সদস্য। পরে হাসপাতালে মৃত্যু হয় অশোক কুমারের ছেলে কৌশলের।

আমিরশাহি থেকে দেশে ফিরে রায়না অপরাধীদের খুঁজে বার করার জন্য পঞ্জাব পুলিশকে অনুরোধ জানান। তিনি এপ্রসঙ্গে দৃষ্টি আকর্ষণ করেন পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রীরও। সোশ্যাল মিডিয়ায় রায়না বিহিত চাওয়ার পরেই অমরিন্দর সিং স্পেশাল ইনভেস্টিগেশন টিম গঠন করে তদন্তের নির্দেশ দেন। একশোরও বেশি সন্দেহভাজনের মধ্যে থেকে শেষমেশ খুঁজে বার করা হয় অপরাধিদের।

১৫ সেপ্টেম্বর তদন্তকারী দল খবর পায়, ঘটনার দিন সকালে ডিফন্স রোডে দেখা গিয়েছিল এমন তিন জন সন্দেহভাজন পাঠানকোট রেল স্টেশনের কাছে বস্তিতে রয়েছে। সেখানে হানা দিয়েই পুলিশ তাদের গ্রেফতার করে।

তিন জনের কাছ থেকে অশোক কুমারের একটি আঙটি, একটি মেয়েদের আঙটি, সোনার চেন ও নগদ টাকা উদ্ধার করা হয়েছে। পুলিশ সূত্রে তিন অপরাধির নাম জানা গিয়েছে সাওন, মোহাব্বত ও শাহরুখ খান। তিন জনেই রাজস্থানের বাসিন্দা এবং একটি চক্র মারফৎ পঞ্জাব, জম্মু-কাশ্মীর ও উত্তরপ্রদেশে এমন বহু অপরাধমূলক কাজ করেছে অতীতে।

বন্ধ করুন