বাংলা নিউজ > ময়দান > আম্পায়ারের কারণে ভাঙল সিন্ধুর সোনা জয়ের স্বপ্ন! প্রকাশ্যে বিতর্কের পুরো ভিডিয়ো
প্রকাশ্যে এল আম্পায়ারের সঙ্গে সিন্ধুর বিতর্কের পুরো ভিডিয়ো (ছবি-টুইটার)
প্রকাশ্যে এল আম্পায়ারের সঙ্গে সিন্ধুর বিতর্কের পুরো ভিডিয়ো (ছবি-টুইটার)

আম্পায়ারের কারণে ভাঙল সিন্ধুর সোনা জয়ের স্বপ্ন! প্রকাশ্যে বিতর্কের পুরো ভিডিয়ো

  • দুইবারের অলিম্পিক্সের পদক জয়ী পিভি সিন্ধু শনিবার জাপানের আকানে ইয়ামাগুচির কাছে হেরে যান। এরফলে ব্যাডমিন্টন এশিয়া চ্যাম্পিয়নশিপে ব্রোঞ্জ নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয় এই সিন্ধুকে। তবে সিন্ধুর এই ম্যাচটি ছিল বিতর্কে ভরা।

দুইবারের অলিম্পিক্সের পদক জয়ী পিভি সিন্ধু শনিবার জাপানের আকানে ইয়ামাগুচির কাছে হেরে যান। এরফলে ব্যাডমিন্টন এশিয়া চ্যাম্পিয়নশিপে ব্রোঞ্জ নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয় এই সিন্ধুকে। তবে সিন্ধুর এই ম্যাচটি ছিল বিতর্কে ভরা। আসলে ভুল পয়েন্ট দেওয়ায় জন্যই নাকি হারতে হয়েছিল সিন্ধুকে। এই ম্যাচের পরে চেয়ার আম্পায়ারের বিরুদ্ধে গর্জে উঠলেন পিভি সিন্ধু। চেয়ার আম্পায়ারের বিরুদ্ধে অন্যায়ভাবে পয়েন্ট কেটে নেওয়ার অভিযোগ তুললেন। সেমিফাইনালে জাপানের আকানে ইয়ামাগুচির বিরুদ্ধে পরাজিত হওয়ার পরে তিনি অভিযোগ করেনচেয়ার আম্পায়ার অনৈতিকভাবে ইয়ামাগুচিকে একটি পয়েন্ট দিয়েছেন।

এদিনের ম্যাচের দ্বিতীয় সেট চলাকালীন আম্পায়ার এক পয়েন্ট দিয়ে দেন সিন্ধুর প্রতিপক্ষকে। কারণ হিসাবে তিনি বলেন, সার্ভ করতে বেশি সময় নিয়েছেন সিন্ধু। সেই কারণেই পেনাল্টি হিসাবে এক পয়েন্ট দেওয়া হয় ইয়ামাগুচিকে। এই বিষয় নিয়ে আম্পায়ারের সঙ্গে বিতর্কে জড়িয়ে পড়েন সিন্ধু। এই পয়েন্টের আগে পর্যন্ত দাপটের সঙ্গে প্রথম সেট জিতে ছিলেন সিন্ধু। দ্বিতীয় সেটেও ১৪-১১ পয়েন্টে এগিয়েই ছিলেন তিনি। তবে এই ঘটনার পরেই ম্যাচের গতি বদলে যায়। সেই ঘটনার পরে স্কোর দাঁড়ায় ১৪-১২। এরপরেই ম্যাচে ফেরে ইয়ামাগুচি। শেষ পর্যন্ত ২১-১৩, ১৯-২১, ১৬-২১ ফলে হারতে হয় সিন্ধুকে। এই ঘটনায় প্রচণ্ড ক্ষুব্ধ হন তিনি। সেই ভিডিয়ো প্রকাশ্যে এসেছে।

ঘটনার সময়ে উত্তেজিত হয়ে পড়েন সিন্ধু ফলে মনসংযোগ ব্যাহত হয় তাঁর। এরফলে সিন্ধু আর ম্যাচে ফিরে আসতে পারেননি। শেষ পর্যন্ত টুর্নামেন্টের শীর্ষ বাছাই ইয়ামাগুচির কাছে হেরে যান ভারতীয় তারকা। সোনা জয়ের স্বপ্ন ভেঙে যায় সিন্ধুর। ব্রোঞ্জ নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয় তাঁকে। ম্যাচের শেষে সিন্ধু জানিয়েছেন,‘আমি সার্ভ করতে সময় নিচ্ছিলাম কারণ তখন প্রতিপক্ষ তৈরি ছিল না।’ কিন্তু তাঁর কথা শুনতে রাজি হননি আম্পায়ার।

পিভি সিন্ধু আরও বলেছেন,‘হঠাৎই ইয়ামাগুচিকে এক পয়েন্ট দিয়ে দেওয়া হয়। এটা অত্যন্ত অন্যায় হয়েছে। আমি মনে করি ম্যাচ হেরে যাওয়ার অন্যতম কারণ এই ঘটনা। সেই সময়ে স্কোর ১৫-১১ হতে পারত। কিন্তু আম্পায়ারের কারণে তা হয়নি। এরপরেই ম্যাচে ফিরে আসে ইয়ামাগুচি এবং পরপর পয়েন্ট জিততে থাকে।’

বন্ধ করুন