বাংলা নিউজ > ময়দান > ‘অধিনায়ক হিসেবে বেঞ্চমার্ক তৈরি করেছো’, তিক্ততা ভুলে কোহলিকে আবেগপ্রবণ বার্তা অশ্বিনের

‘অধিনায়ক হিসেবে বেঞ্চমার্ক তৈরি করেছো’, তিক্ততা ভুলে কোহলিকে আবেগপ্রবণ বার্তা অশ্বিনের

বিরাট কোহলি এবং রবিচন্দ্রন অশ্বিন।

কোহলি শনিবার স্বেচ্ছায় টেস্ট দলের নেতৃত্ব ছেড়ে দেওয়ার পর আবেগঘন মেসেজ করলেন অশ্বিন। সেই মেসেজে কোনও রকম তিক্ততা ছিল না। একজন গ্রেট ক্রিকেটারের জন্য অন্য গ্রেট ক্রিকেটারের আবেগ যেন উপচে পড়েছে সেই বার্তায়।

রবিচন্দ্রন অশ্বিনের সঙ্গে বিরাট কোহলির মনোমালিন্যের ঘটনা কারও কাছেই অজানা নয়। কোহলির জন্যই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে পর্যন্ত সাদা বলের ক্রিকেটে ব্রাত্যের তালিকায় ছিলেন অশ্বিন। এমন কী ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে গুরুত্বপূর্ণ টেস্ট সিরিজে একটি ম্যাচেও অশ্বিনকে খেলাননি কোহলি। যা নিয়ে তীব্র সমালোচনাও হয়েছে। বহু সময়ে কোহলির উপর ঘুরিয়ে হলেও ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছেন অশ্বিনও। কিন্তু সেই কোহলি শনিবার স্বেচ্ছায় টেস্ট দলের নেতৃত্ব ছেড়ে দেওয়ার পর আবেগঘন মেসেজ করলেন অশ্বিন। সেই মেসেজে কোনও রকম তিক্ততা ছিল না। একজন গ্রেট ক্রিকেটারের জন্য অন্য গ্রেট ক্রিকেটারের আবেগ যেন উপচে পড়েছে সেই বার্তায়।

অশ্বিন টুইটারে লিখেছেন, ‘ক্রিকেটের অধিনায়ক সব সময়ে তাঁর রেকর্ডের জন্য সম্মানিত হন। পাশাপাশি তারা যে ধরনের সাফল্য পায়, তার জন্যও সম্মান করা হয়ে থাকে। কিন্তু অধিনায়ক হিসেবে তুমি একটি বেঞ্চমার্ক তৈরি করেছো। প্রত্যেকেই কিন্তু অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ড, শ্রীলঙ্কায় তোমার যে সাফল্য, সেই কথা বলবে এবং মনে রাখবে।’

অশ্বিন টুইটারে আরও লিখেছেন, ‘জয় একটা ফলাফল ছাড়া আর কিছু নয়। ফসল কাটার আগে বীজ বপনটাই আসল। সেই প্রক্রিয়াটা বিরাট অত্যন্ত যত্নসহকারে করেছো। আর তার মধ্যে দিয়েও নিজের একটি মান তৈরি করেছে। সেই সঙ্গে আমাদের জন্য প্রত্যাশার একটা মানও তৈরি করেছিলে। দারুণ কাজ করেছো বিরাট।’

অশ্বিন আবেগপ্রবণ হয়ে আরও লিখেছেন, ‘আমি বলতে পারি, ক্যাপ্টেন হিসেবে ওর সবচেয়ে বড় প্রাপ্তি হল, ভারতের পূর্ববর্তী ক্যাপ্টেনদের ছাপিয়ে যাওয়া। আর সেই সঙ্গে পরবর্তী প্রজন্মের একটা মান রেখে যাওয়া। ভবিষ্যতের ক্রিকেটাররা সেখান থেকে শুধু সামনেই এগোতে চাইবে।’

টেস্ট বোলার হিসেবে বিরাট কোহলির নেতৃত্বে অশ্বিনের পারফরম্যান্স আকাশছোঁয়া ছিল। তিনি যে ৫৫টি ম্যাচ খেলেছেন, তাতে ২২.১৩ গড়ে ২৯৩টি উইকেট নিয়েছেন। এ ছাড়াও ২১বার পাঁচ উইকেট নেওয়ার নজির গড়েছেন। তবে সেই সম্পর্কেও চিড় ধরেছিল। কিন্তু সব মনোমালিন্য ভুলে নেতা কোহলির বিদায়বেলায় নিজের আবেগ ধরে রাখতে পারেননি অশ্বিনও।

বন্ধ করুন