বাড়ি > ময়দান > বিভেদ শুধু গায়ের রংয়েই আটকে নেই, ইরফানের ইঙ্গিত আরও গুরুতর বৈষম্যের দিকে
ইরফান পাঠান। ছবি- পিটিআই।
ইরফান পাঠান। ছবি- পিটিআই।

বিভেদ শুধু গায়ের রংয়েই আটকে নেই, ইরফানের ইঙ্গিত আরও গুরুতর বৈষম্যের দিকে

  • ভারতের ঘরোয়া ক্রিকেটে বর্ণবাদের উপস্থিতি রয়েছে, ধারণা প্রাক্তন অল-রাউন্ডারের।

আমেরিকায় জর্জ ফ্লয়েড হত্যাকাণ্ডের পর থেকে বর্ণবিদ্বেষের বিরুদ্ধে প্রতিবাদে উত্তাল সারা বিশ্ব। বর্ণবাদের বিরুদ্ধে মুখরিত ক্রীড়াবিশ্বও। বাদ যায়নি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটমহল। ক্রিস গেইল, ড্যারেন স্যামি, ডোয়েন ব্র্যাভোরা ইতিমধ্যেই নিজেদের মুখ খুলেছেন। স্যামি তো সরাসরি ভারতে আইপিএল খেলতে এসে বর্ণবিদ্বেষের শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগও করেছেন।

ভারতীয়দের মধ্যে বর্ণবাদ ও বৈষম্য নিয়ে বিশেষ আলোচনা না হলেও ইরফান পাঠান নিজের মতামত প্রকাশ করেছেন। তিনি ভারতের ঘরোয়া ক্রিকেটে বর্ণবৈষম্যের উপস্থিতি রয়েছে বলে দাবি করেন। পরে সোশ্যাল মিডিয়ায় ধর্মবিশ্বাসের নিরিখে বৈষম্যের ছবিও যে ভারতে প্রায়শই চোখে পড়ে, সেটাও স্পষ্ট করে জানিয়েছেন টিম ইন্ডিয়ার প্রাক্তন অল-রাউন্ডার।

ইরফান টুইটে লেখেন, ‘বৈষম্য শুধু চামড়ার রংয়ের ক্ষেত্রেই সীমাবদ্ধ নয়। শুধু মাত্র আপনি অন্য ধর্মে বিশ্বাসী বলে সমাজে বাড়ি কিনতে পারবেন না, এটাও একপ্রকার বৈষম্য।’

টুইটারে এমন মতামত জানানোর পর ইরফানের কাছে জানতে চাওয়া হয় তিনি নিজে কখনও এমন অভিজ্ঞতার মুখে পড়েছেন কিনা। উত্তরে পাঠান বলেন, ‘এটা এমন একটা উপলব্ধি, যা কেউ অস্বীকার করতে পারবেন না।’

এর আগে ভারতের ঘরোয়া ক্রিকেটে দক্ষিণী ক্রিকেটারদের সঙ্গে মজা করে অনেক সময় বর্ণবাদী মন্তব্য করা হয় বলে উল্লেখ করেন ইরফান। তবে জুনিয়র পাঠান এটাও স্পষ্ট করে দিয়েছেন যে, ঘরোয়া ক্রিকেটের এমন আচরণ কখনই উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বর্ণবিদ্বেষী মন্তব্য নয়। নিছক মজার ছলেই টিপ্পনি শোনা যায়। যদিও এমন কাজও যথাযথ নয় বলে মত টিম ইন্ডিয়ার প্রাক্তন অল-রাউন্ডারের।

বন্ধ করুন