বাংলা নিউজ > ময়দান > প্রিয় দল রিয়ালের মতোই নাটকীয় কামব্যাকে মাদ্রিদ ওপেনের শেষ আটে নাদাল
গফিনের বিরুদ্ধে দুরন্ত লড়াইয়ের পর ম্যাচ জিতে নাদালের উচ্ছ্বাস। ছবি- রয়টার্স। (REUTERS)

প্রিয় দল রিয়ালের মতোই নাটকীয় কামব্যাকে মাদ্রিদ ওপেনের শেষ আটে নাদাল

  • প্রি-কোয়ার্টার ফাইনালে গফিনের বিরুদ্ধে চারটি ম্যাচ পয়েন্ট সেভ করেন নাদাল।

কয়েক ঘন্টা আগেই সান্তিয়াগো বার্নাবেউতে প্রিয় দল রিয়াল মাদ্রিদের দুরন্ত কামব্যাকের সাক্ষী ছিলেন রাফায়েল নাদাল। তার ঠিক পরের দিনই মাদ্রিদ ওপেনে প্রায় একইরকমভাবে এক অসাধ্য সাধন করলেন কিংবদন্তি স্প্যানিশ টেনিস তারকা। ডেভিড গফিনের বিরুদ্ধে তিন ঘণ্টারও বেশি সময়ের ম্যাচে চার ম্যাচ পয়েন্ট বাঁচিয়ে জিতলেন নাদাল।

গফিনের বিরুদ্ধে তিন সেটের ম্যাচে প্রথম সেটে ৬-৩ ব্যবধানে জিতে দ্বিতীয় সেটেও ৫-৩ এগিয়ে ছিলেন নাদাল। তবে হঠাৎ করেই ছন্দপতন। দুই ম্যাচ পয়েন্ট হারানো থেকে দুইবার সার্ভিস ব্রেক হয় নাদালের। শেষমেশ ৫-৭ সেট খোয়ান নাদাল। তৃতীয় সেটেও একই গল্প। একেবারে নিজের স্বাভাবিক ছন্দে দেখাচ্ছিল না নাদালকে। ৬-৬ হয়ে যাওয়ার পর টাই ব্রেকারে এক দুই নয়, চার চারবার ম্যাচ পয়েন্ট বাঁচিয়ে শেষমেশ গফিনকে হারাতে সক্ষম হন সর্বাধিক গ্র্যান্ড স্ল্যামজয়ী টেনিস তারকা। 

এই কামব্যাকটা ম্যান সিটির বিরুদ্ধে রিয়ালের কামব্যাকের সঙ্গে অনেকটাই একরম। ওই ম্যাচেই রিয়াল শেষ কয়েক মিনিটে দুই গোল করে প্রথমে পরাজয় আটকায় এবং শেষমেশ এক্সট্রা টাইমে সিটিকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ফাইনালে নিজেদের টিকিট বুক করে। বার্নাবেউয়ের ‘সি সে পিউদে’ অর্থাৎ ‘হ্যা, আমরা পারব’ ধ্বনি নাদালের ম্যাচেও শোনা যায়। প্রসঙ্গত, লস ব্লাঙ্কোসের ক্লাব সদস্য নাদাল যাতে প্রিয় দলের খেলা দেখতে পারেন, তাই তিনি নিজেই মাদ্রিদ ওপেনের আয়োজককারীদের বুধবার তাঁর ম্যাচের সময় বদলাতে অনুরোধও করেন। 

শেষমেশ প্রিয় দলের পাশাপাশি নিজেও ম্যাচ জিতে মাদ্রিদ ওপেনের কোয়ার্টার ফাইনালে পৌঁছলেন নাদাল। তৃতীয় বাছাই নাদাল, পরের রাউন্ডে তাঁরই উত্তরসূরি হিসাবে পরিচিত আরেক স্প্যানিয়ার্ড কার্লোস আলকারেজের মুখোমুখি হবেন। আলকারেজ নিজের ১৯তম জন্মদিনে ক্যামেরন নরিকে ৬-৪, ৬-৭ (৪), ৬-৩ ব্যবধানে মাত দেন। 

 

বন্ধ করুন