বাংলা নিউজ > ময়দান > অধিনায়ক থেকে কোচ বিরল নজিরের শরিক রাহুল দ্রাবিড়
শ্রেয়স আইয়ারের সঙ্গে দ্রাবিড়। ছবিছ এএনআই
শ্রেয়স আইয়ারের সঙ্গে দ্রাবিড়। ছবিছ এএনআই

অধিনায়ক থেকে কোচ বিরল নজিরের শরিক রাহুল দ্রাবিড়

  • ২০০৭ সালে ওভালে যখন ভারতীয় ব্যাটাররা ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে নজির গড়েন, তখন দলের অধিনায়ক দ্রাবিড়। ২০২১ সালে কানপুরে কিউয়িদের বিরুদ্ধে যখন এই নজির গড়ল ভারত তখন দলের প্রধান কোচ তিনি।

শুভব্রত মুখার্জি: ২০০৭ থেকে ২০২১ দীর্ঘ ১৪ বছরে ২২ গজে আমূল পরিবর্তন হয়েছে। তবে এই পরিবর্তনের ধারা যাঁকে খুব বেশি স্পর্শ করতে পারেনি, তিনি হলেন ভারতের কিংবদন্তি ব্যাটার রাহুল শরথ দ্রাবিড় । ভূমিকার পরিবর্তন হয়েছে। ক্রিকেটার তথা অধিনায়ক দ্রাবিড় বর্তমানে নয়া ভূমিকায়। ভারতীয় জাতীয় ক্রিকেট দলের প্রধান প্রশিক্ষকের দায়িত্ব সামলাচ্ছেন তিনি। তবে যে জিনিসটা বদলায়নি তা হল ২২ গজে প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষ পারফরম্যান্সের খিদে। আর সেই রাহুল দ্রাবিড় এ বার শরিক হয়ে গেলেন ক্রিকেটের ইতিহাসে এক বিরলতম নজিরের।

ক্রিকেটের ইতিহাসে প্রথমে অধিনায়ক এবং পরবর্তীতে কোচ হিসেবে এক বিরল নজিরের শরিক হলেন তিনি। ষষ্ঠ, সপ্তম এবং অষ্টম উইকেটে ভারতীয় টেস্ট দল যখন তিনটি উইকেট জুটিতেই অর্ধশতরানের পার্টনারশিপ গড়ল তখন দ্রাবিড় একবার দলের অধিনায়ক এবং অন্য বার তিনি দলের কোচ হিসেবে এই রেকর্ডের অংশীদার হলেন। ২০০৭ সালে ওভালে যখন ভারতীয় ব্যাটাররা ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে নজির গড়েন, তখন দলের অধিনায়ক দ্রাবিড়। ২০২১ সালে কানপুরে কিউয়িদের বিরুদ্ধে যখন এই নজির গড়ল ভারত তখন দলের প্রধান কোচ তিনি।

২০০৭ সালে ষষ্ঠ উইকেটে ধোনি ও সচিন ৬৩ রান, সপ্তম উইকেটে ধোনি ও কুম্বলে ৯১ রান এবং অষ্টম উইকেটে জাহির এবং কুম্বলে পার্টনারশিপে ৬২ রান যোগ করেন। ২০২১ সালে কানপুরে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ষষ্ঠ উইকেটে অশ্বিন ও আইয়ার ৫২ রান, সপ্তম উইকেটে আইয়ার ও সাহা ৬৪ রান এবং অষ্টম উইকেটে অপরাজিত ৬৭ রানের পার্টনারশিপ করেন সাহা এবং অক্ষর। আর বর্তমানে ভারতীয় দলের হেড কোচ হিসেহে দ্রাবিড় দায়িত্ব নেওয়ার পর প্রথম টেস্ট খেলছে রাহুল দ্রাবিড়।

বন্ধ করুন