বাংলা নিউজ > ময়দান > আম্পায়ারের উপর মেজাজ হারানোর শাস্তি, ম্যাচ ফি-র ১৫ শতাংশ কেটে নেওয়া হল রাহুলের
কেএল রাহুল। ছবি: পিটিআই
কেএল রাহুল। ছবি: পিটিআই

আম্পায়ারের উপর মেজাজ হারানোর শাস্তি, ম্যাচ ফি-র ১৫ শতাংশ কেটে নেওয়া হল রাহুলের

  • লাঞ্চের ঠিক আগেই জেমস আন্ডারসনের বলে বেয়ারস্টোর হাতে ক্যাচ তুলে আউট হন কেএল রাহুল। হাফসেঞ্চুরির আগে আউট হওয়ায় আম্পায়ারের ওপর রাগে ফুঁসে উঠেছিলেন তারকা ব্যাটসম্যান। তার জেরেই শাস্তি পেতে হল রাহুলকে।

শনিবার ওভালে চতুর্থ টেস্টের তৃতীয় দিনে কেএল রাহুলের আউট নিয়ে বিতর্ক রয়েছে। আম্পায়ারের সিদ্ধান্তে ক্ষুব্ধ রাহুল প্রকাশ্যে ক্ষোভও উগড়ে দেন। আর এতেই শাস্তির কবলে পড়তে হয় তাঁকে। আইসিসি-র নিয়ম ভাঙার অপরাধে রাহুলের ম্যাচ ফি-র ১৫ শতাংশ কেটে নেওয়া হয়।

আইসিসি-র কোড অফ কন্ডাক্ট অনুযায়ী লেভেল ওয়ান অপরাধ করেছেন রাহুল। এই ঘটনার ফলে দু'বছরের মধ্যে প্রথম বার আইসিসি-র শৃঙ্খলারক্ষা কমিটির রেকর্ডে এই ঘটনাটি রাহুলের অপরাধ হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করা হল। 

রাহুলের বিরুদ্ধে অভিযোগ এনেছিলেন অনফিল্ড আম্পায়ার রিচার্ড ইলিংওয়ার্থ ও অ্যালেক্স হারফ, তৃতীয় আম্পায়ার মাইকেল গগ এবং চতুর্থ অফিসিয়াল মাইক বার্নস। ভারতের ওপেনার নিজের ভুল স্বীকার করে নিয়েছেন।

লাঞ্চের ঠিক আগেই জেমস আন্ডারসনের বলে বেয়ারস্টোর হাতে ক্যাচ তুলে সাজঘরে ফিরে গিয়েছিলেন কেএল রাহুল। হাফসেঞ্চুরির আগে আউট হয়ে যাওয়ায় আম্পায়ারের ওপর ক্ষোভ প্রকাশ করেছিলেন তারকা ব্যাটসম্যান। যার জেরে শাস্তির কবলে পড়তে হয় তাঁকে।

ওভাল টেস্টে প্রথম ইনিংসে ৯৯ রানে পিছিয়ে পড়েছিল ভারত। দ্বিতীয় দিনে ভারতের স্কোর ছিল কোনও উইকেট না হারিয়ে ৪৩ রান। সেখান থেকে তৃতীয় দিনের শুরুটাও ভাল করেছিলেন ভারতীয় ওপেনার লোকেশ রাহুল এবং রোহিত শর্মা। তবে যখন মনে হচ্ছিল বিনা উইকেটেই ভারত লিড নিতে সক্ষম হবে, ঠিক তখনই আউট হন রাহুল। আর এই আউটকে ঘিরেই যত বিতর্ক।

শনিবার ওভালে চতুর্থ টেস্টের তৃতীয় দিনে কেএল রাহুলের আউট নিয়ে বিতর্ক রয়েছে। আম্পায়ারের সিদ্ধান্তে ক্ষুব্ধ রাহুল প্রকাশ্যে ক্ষোভও উগড়ে দেন। আর এতেই শাস্তির কবলে পড়তে হয় তাঁকে। আইসিসি-র নিয়ম ভাঙার অপরাধে রাহুলের ম্যাচ ফি-র ১৫ শতাংশ কেটে নেওয়া হয়।

আইসিসি-র কোড অফ কন্ডাক্ট অনুযায়ী লেভেল ওয়ান অপরাধ করেছেন রাহুল। এই ঘটনার ফলে দু'বছরের মধ্যে প্রথম বার আইসিসি-র শৃঙ্খলারক্ষা কমিটির রেকর্ডে এই ঘটনাটি রাহুলের অপরাধ হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করা হল। 

রাহুলের বিরুদ্ধে অভিযোগ এনেছিলেন অনফিল্ড আম্পায়ার রিচার্ড ইলিংওয়ার্থ ও অ্যালেক্স হারফ, তৃতীয় আম্পায়ার মাইকেল গগ এবং চতুর্থ অফিসিয়াল মাইক বার্নস। ভারতের ওপেনার নিজের ভুল স্বীকার করে নিয়েছেন।

লাঞ্চের ঠিক আগেই জেমস আন্ডারসনের বলে বেয়ারস্টোর হাতে ক্যাচ তুলে সাজঘরে ফিরে গিয়েছিলেন কেএল রাহুল। হাফসেঞ্চুরির আগে আউট হয়ে যাওয়ায় আম্পায়ারের ওপর ক্ষোভ প্রকাশ করেছিলেন তারকা ব্যাটসম্যান। যার জেরে শাস্তির কবলে পড়তে হয় তাঁকে।

ওভাল টেস্টে প্রথম ইনিংসে ৯৯ রানে পিছিয়ে পড়েছিল ভারত। দ্বিতীয় দিনে ভারতের স্কোর ছিল কোনও উইকেট না হারিয়ে ৪৩ রান। সেখান থেকে তৃতীয় দিনের শুরুটাও ভাল করেছিলেন ভারতীয় ওপেনার লোকেশ রাহুল এবং রোহিত শর্মা। তবে যখন মনে হচ্ছিল বিনা উইকেটেই ভারত লিড নিতে সক্ষম হবে, ঠিক তখনই আউট হন রাহুল। আর এই আউটকে ঘিরেই যত বিতর্ক।|#+|

দ্বিতীয় ইনিংসের ৩৪তম ওভারে অর্ধশতরানের দোরগোড়ায় দাঁড়িয়ে থাকা রাহুলকে আউট করেন জেমস অ্যান্ডারসন। তখন রাহুল সেট হয়ে গিয়েছিল। সামনের পায়ে ডিফেন্স করতে গিয়েই এজে লেগে কিপার জনি বেয়ারস্টোর দস্তানায় ধরা দেন ভারতীয় ওপেনার। আম্পায়র রাহুলকে আউট না দিলেও ডিআরএসের মদতে নিজের সিদ্ধান্ত বদলাতে বাধ্য হন তিনি। রিভিউতে স্পষ্টতই বোঝা যাচ্ছিল, বল রাহুলের ব্যাটের কাছাকাছি থাকার সময়ই স্পাইক ধরা পড়ে।  যদিও আম্পায়ারের এই সিদ্ধান্ত মেনে নিতে পারেননি কেএল রাহুল। প্যাভিলিয়নে ফিরে যাওয়ার সময়ে বারবারই ক্ষিপ্ত হয়ে ঘাড় নাড়তে নাড়তে হাঁটা দেন তিনি।

বন্ধ করুন