বাংলা নিউজ > ময়দান > নাইট, কিংসদের পরে তৃতীয় আইপিএল ফ্রাঞ্চাইজি হিসাবে CPL দলের মালিক হলেন রয়্যালসরা
বার্বাডোজ ট্রাইডেন্টস। ছবি- গেটি ইমেজেস।

নাইট, কিংসদের পরে তৃতীয় আইপিএল ফ্রাঞ্চাইজি হিসাবে CPL দলের মালিক হলেন রয়্যালসরা

  • দুইবারের CPL চ্যাম্পিয়ন বার্বাডোজ ফ্রাঞ্চাইজির সঙ্গে যুক্ত হয়েছেন রয়্যালসরা।

ভারতীয় এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেটের সম্পর্ক বহুদিনের। বর্তমানে যেমন আইপিএল মাতান একাধিক ক্যারিবিয়ান ক্রিকেটার, তেমনই ক্যারিবিয়ান টি-টোয়েন্টির লিগে ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়র লিগে (সিপিএল) নাইট রাইডার্স, পঞ্জাব কিংসের মালিকানাভুক্ত দল রয়েছে। সেই তালিকায় যুক্ত হল নতুন নাম। বার্বাডোজ ফ্রাঞ্চাইজির সিংহভাগ স্বত্ব কিনে নিল রাজস্থা রয়্যালস।

রয়্যালস গ্রুপের তরফে শুক্রবার এই ঘোষণাটি করা হয়। দুইবারের সিপিএল চ্যাম্পিয়ন বার্বাজোজ ট্রাইডান্সের নাম বদলে হচ্ছে বার্বাডোজ রয়্যালস। বার্বা়ডোজ ফ্রাঞ্চাইজির সঙ্গে যুক্ত হয়ে ক্রিকেট তো অবশ্যই, পাশপাশি ভ্রমন ব্যবসারও উন্নতি ঘটানোর কথা বলেন মনোজ বাদালে।

রয়্যালস স্পোটর্স গ্রুপের চেয়ারপারসন এবং রাজস্থান রয়্যালসের প্রধান কর্ণধার বাদালে জানান, ‘আমরা মণীশ প্যাটেলের সঙ্গে চুক্তি স্বাক্ষর করে বার্বাডোজের সিপিএল ফ্রাঞ্চাইজির সঙ্গে যুক্ত হতে পেরে খুবই খুশি। আমরা বার্বাডোজ সরকারকেও তাদের নিরন্তর সহযোগিতার জন্য ধন্যবাদ জানাতে চাই। এই দেশের ক্রিকেট এবং ভ্রমন ব্যাবসা, উভয় ক্ষেত্রেই ইতিবাচক প্রভাব ফেলতে পারব বলে আমরা আশাবাদী।’

রাজস্থান রয়্যালসের ডিরেক্টর অফ ক্রিকেট কুমার সঙ্গাকারাও বার্বাডোজ রয়্যালসের গতিবিধির ওপর কাছ থেকে নজর রাখবেন। শ্রীলঙ্কান কিংবদন্তি বলেন, ‘বার্বাডোজ রয়্যালস, রয়্যালস পরিবারের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ অংশ হতে চলেছে। দুই দলই অত্যন্ত প্রতিভাশালী আঞ্চলিক ক্রিকেটার সমৃদ্ধ। বিভিন্ন পরিকল্পনার মাধ্যমে কীভাবে ক্রিকেটের সার্বিক উন্নতি ঘটানো যায়, সেইক্ষেত্রে আমরা সদা তৎপর এবং এই প্রক্রিয়ার অংশ হতে পেরে উৎসাহিতও বটে।’

বন্ধ করুন