বাংলা নিউজ > ময়দান > কাঙ্খিত শতরান বিরাটের, যদিও টুর্নামেন্ট থেকে বিদায় ঘণ্টা বেজে গেল তাঁর দলের
শতরানের পরে বিরাটকে অভিনন্দন ইশানের। ছবি- স্ক্রিনগ্র্যাব।

কাঙ্খিত শতরান বিরাটের, যদিও টুর্নামেন্ট থেকে বিদায় ঘণ্টা বেজে গেল তাঁর দলের

  • বাকিরা প্রতিরোধ গড়তে না পারলেও ব্যাট হাতে চোয়ালচাপা লড়াই চালান বিরাট। 

বেঙ্গালুরুর জাস্ট ক্রিকেট অ্যাকাডেমি গ্রাউন্ডে বাংলা যখন ব্যাট করছিল, তখন রান তোলা নিতান্ত সহজ বলে মনে হচ্ছিল। তবে রঞ্জির কোয়ার্টার ফাইনালে ঝাড়খণ্ড যখন পালটা ব্যাট করতে নামে, তখন রীতিমতো কষ্ট করে রান তুলতে হয় ব্যাটসম্যানদের। বিরাট সিং একপ্রান্ত আঁকড়ে লড়াই চালালেও বাকিরা তাঁকে যোগ্য সঙ্গত করতে পারেননি।

একসময় সঙ্গীর অভাবে বিরাটের সেঞ্চুরি পূর্ণ করা সম্ভব হবে কিনা, তা নিয়েই দেখা দিয়েছিল সংশয়। দীর্ঘ সময় ক্রিজ আঁকড়ে পড়ে থেকে শেষমেশ কাঙ্খিত লক্ষ্যে পৌঁছে যান বিরাট। টেল-এন্ডারদের সঙ্গে নিয়ে চোয়ালচাপা লড়াইয়ের পরে বিরাট সিং সেঞ্চুরি করতে সক্ষম হন বটে, তবে তাঁর দল ম্যাচে নিতান্ত বেকায়দায়। প্রথম ইনিংসের নিরিখে বাংলার কাছে বড় ব্যবধানে পিছিয়ে পড়ায় চলতি রঞ্জি ট্রফি থেকে বিদায় ঘণ্টা বেজে যায় ঝাড়খণ্ডের।

আরও পড়ুন:- Ranji Trophy: ৮টি ছক্কায় মাত্র ১৮ বলে হাফ-সেঞ্চুরি, লেন্ডল সিমন্সের বিশ্বরেকর্ড ভাঙলেন বাংলার আকাশ দীপ

বাংলার ৭ উইকেটে ৭৭৩ রানের জবাবে ব্যাট করতে নেমে ঝাড়খণ্ড প্রথম ইনিংসে অল-আউট হয়ে যায় ২৯৮ রানে। বিরাট সিং ১৫টি চার ও ৩টি ছক্কার সাহায্যে ২৩৯ বলে ১১৩ রান করে অপরাজিত থাকেন। চলতি রঞ্জি ট্রফিতে এটি তাঁর উপর্যুপরি দ্বিতীয় ও সার্বিকভাবে তৃতীয় শতরান।

এর আগে নাগাল্যান্ডের বিরুদ্ধে প্রি-কোয়ার্টারে ১০৭ রানের অনবদ্য ইনিংস খেলেন বিরাট। তারও আগে গ্রুপ লিগের ম্যাচে দিল্লির বিরুদ্ধে ১০৩ রান করেছিলেন তিনি।

আরও পড়ুন:- Ranji Trophy: যে পিচে যত খুশি রান তুলল বাংলা, সেখানেই খোঁড়াচ্ছে ঝাড়খণ্ড, কোন মন্ত্রে এল সাফল্য, রহস্য ফাঁস সায়নের

ঝাড়খণ্ড ৪৭৫ রানের বিশাল ব্যবধানে পিছিয়ে পড়ায় বাংলার সেমিফাইনালে যাওয়া কার্যত নিশচিত হয়ে যায়। সরাসরি ম্যাচ না জিতলে ঝাড়খণ্ডের পক্ষে শেষ চারের টিকিট পাওয়া সম্ভব নয়। প্রথম ইনিংসের বিশাল খামতি মিটিয়ে এমন পরিস্থিতি থেকে ঝাড়খণ্ডের পক্ষে সরাসরি ম্যাচ জেতাও কার্যত অসম্ভব।

বন্ধ করুন