বাংলা নিউজ > ময়দান > Ranji Trophy: ‘বেশ খারাপ লাগছে;’ হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে দুরন্ত ৭৩ রান করেও হতাশ অভিষেক পোড়েল
হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে আগে টিম বাংলা (ছবি:সিএবি)

Ranji Trophy: ‘বেশ খারাপ লাগছে;’ হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে দুরন্ত ৭৩ রান করেও হতাশ অভিষেক পোড়েল

  • দিনের শেষে অভিষেক জানিয়েছেন, ‘ইতিবাচক খেলা খেলতে চেয়েছিলাম। অনুশীলনে যা করেছি সেটাই ম্যাচে করার চেষ্টা করেছি। দলের জন্য আরও বড় ইনিংস আমার খেলার দরকার ছিল। সেটা করতে পারিনি। বেশ খারাপ লাগছে।’

শুভব্রত মুখার্জি: চলতি মরশুমে রঞ্জি ট্রফির প্রথম ম্যাচে এক অবিস্মরণীয় জয় তুলে নিয়েছিল বাংলা দল। কটকে এই মরশুমের প্রথম ম্যাচে বরোদার বিরুদ্ধে প্রথম ইনিংসে যেভাবে মাত্র ৮৮ রানে অলআউট হয়ে যাওয়ার পরবর্তীতে ম্যাচ জিতেছিল বাংলা তা এককথায় অনবদ্য বললেও কম বলা হয়। সেই ম্যাচের আত্মবিশ্বাস নিয়েই দ্বিতীয় ম্যাচে হায়দরাবাদ দলের মুখোমুখি হয়েছে বাংলা। তবে প্রথম দিনের শেষে বাংলাকে লড়াইয়ে টিকিয়ে রেখেছেন প্রথম ম্যাচের অন্যতম নায়ক, তরুণ প্রতিভাবান ব্যাটার অভিষেক পোড়েল। তার করা ৭৩ রানের ইনিংসে আপাতত ম্যাচে বাংলাকে লড়াইয়ে রেখছে।

প্রথম দিনে ৭৩ রানের অনবদ্য এক ইনিংস খেলার পরেও কার্যত খুশি নন বাংলার তরুণ ক্রিকেটার। উল্লেখ্য অভিষেক বরোদার বিরুদ্ধে নিজের অভিষেক ম্যাচে অর্ধশতরান করে বাংলাকে এক অনবদ্য জয় এনে দিয়েছিলেন। দ্বিতীয় ম্যাচেও সেই ফর্ম ধরে রেখে তিনি অর্ধশতরান করলেন। রঞ্জিতে প্রথম দিনে ২৪২ রানে অলআউট হয়েছে বাংলা। অভিষেক পোড়েলের ৭৩ রানে ভর করেই বাংলা ২৪২ রান করতে সফল হয়। তরুণ উইকেটরক্ষক মনে করছেন আরও বড় ইনিংস খেলা তার উচিত ছিল । যা দলের পক্ষে খুব প্রয়োজন ছিল বলে তিনি মনে করছেন। আজ ৬২ বলে ৭৩ রান করেছেন অভিষেক। বাংলার প্রথম ইনিংসের জবাবে ব্যাট করতে দিনের শেষে হায়দরাবাদের স্কোর ১৫/২।

দিনের শেষে অভিষেক জানিয়েছেন, ‘ইতিবাচক খেলা খেলতে চেয়েছিলাম। অনুশীলনে যা করেছি সেটাই ম্যাচে করার চেষ্টা করেছি। দলের জন্য আরও বড় ইনিংস আমার খেলার দরকার ছিল। সেটা করতে পারিনি। বেশ খারাপ লাগছে। যে বলে আউট হয়েছি তা ঠিক করে বুঝতে পারিনি। পরে ব্যাট করতে এসে আগের ম্যাচেও রান করেছি। ফলে ব্যাট করার সময়ে এদিন কোনও চাপ ছিল না আমার উপর।’ দিনের শেষে বাংলা এগিয়ে ২২৭ রানে। হায়দরাবাদের হাতে রয়েছে ৮ উইকেট।

বন্ধ করুন