বাংলা নিউজ > ময়দান > Ranji Trophy Final: MI তরুণের হাতে বধ মুম্বই, জিতে চ্যাম্পিয়ন হতে MP-র চাই ১০৮
দ্বিতীয় ইনিংসে ২৬৯ কানে অলআউট হয়ে যায় মুম্বই।

Ranji Trophy Final: MI তরুণের হাতে বধ মুম্বই, জিতে চ্যাম্পিয়ন হতে MP-র চাই ১০৮

  • রঞ্জি ফাইনালের শেষ দিনে মুম্বইকে রীতিমতো চোখে সর্ষেফুল দেখালেন আইপিএলের টিম মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের তরুণ বোলার কুমার কার্তিকেয়। তিনি দ্বিতীয় ইনিংসে মোট ৪ উইকেট তুলে নেন। মুম্বই অল আউট হয়ে যায় ২৬৯ রানে।

২৩ বছর আগের ভেঙে যাওয়া স্বপ্নটি পূরণের মাঝে এখন শুধু ঠোঁট আর কাপের পার্থক্য। আর মাত্র ১০৮ রান করলেই রঞ্জি ফাইনাল জিতে যাবে মধ্যপ্রদেশ। এমনিতেই ড্র করলেই চ্যাম্পিয়ন হয়ে যেত তারা। তবে এখন ম্যাচ জিতে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার বড় সুযোগ চন্দ্রকান্ত পণ্ডিতের ছেলেদের সামনে।

রঞ্জি ফাইনালের শেষ দিনে মুম্বইকে রীতিমতো চোখে সর্ষেফুল দেখালেন আইপিএলের টিম মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের তরুণ বোলার কুমার কার্তিকেয়। তিনি দ্বিতীয় ইনিংসে মোট ৪ উইকেট তুলে নেন। এ দিন নিয়েছেন ৩ উইকেট। হার্দিক তামোরেকে শনিবারই আউট করেছিলেন তিনি। এ দিন সুভেদ পার্কার, যশস্বী জয়সওয়াল, তনুশ কোটিয়ানের মতো তিনটি গুরুত্বপূর্ণ উইকেট তুলে নেন। এ ছাড়া ২টি করে উইকেট নিয়েছেন গৌরব যাদব এবং পার্থ সাহানি।

আরও পড়ুন: ৪৫ করে আউট সরফরাজ, ১৮ রানের জন্য হাজার করার স্বপ্নপূরণ হল না

মুম্বইয়ের হয়ে পৃথ্বী ৪৪ করে শনিবার আউট হয়েছিলেন। চতুর্থ দিনের শেষে ক্রিজে ছিলেন আরমান জাফর (৩৪ বলে ৩০ রান) এবং সুদেভ পার্কার (১৪ বলে ৯ রান)। মুম্বই স্কোর ছিল ২ উইকেটে ১১৩ রান। সেখান থেকে এ দিন মাত্র ১৫৬ রান যোগ করে মুম্বই। জাফর ৩৭ করে আউট হয়ে যান। সুভেদ পার্কার ৫১ করেন। ৪৫ করেন সরফরাজ খান। বাকিরা কেউ ২০ রানের গণ্ডিই টপকাতে পারেননি।

আরও পড়ুন: ‘বাইরের আওয়াজ শুনব না’, শতরান করে কেএল-এর মতো কানে আঙুল দিয়ে সেলিব্রেশন যশ দুবের

১৯৯৮-৯৯ রঞ্জিতে ২৩ বছর আগে প্রথম বার রঞ্জির ফাইনালে উঠেছিল মধ্যপ্রদেশ। কিন্তু কর্ণাটকের বিরুদ্ধে তারা সে বার হেরে যায়। এর পর ফের এই বছর ফাইনালে উঠেছে এমপি। মধ্যপ্রদেশ ২৩ বছর আগে যখন রঞ্জির ফাইনাল খেলেছিল, তখন সেই দলের অধিনায়ক ছিলেন চন্দ্রকান্ত পণ্ডিত। সে বার তিনি দলকে চ্যাম্পিয়ন করতে পারেননি। আর এ বার তিনি মধ্যপ্রদেশের কোচ। নিখুঁত অঙ্কে এই বছরের হিসেবটা প্রায় মিলিয়ে এনেছেন। এখন একেবারে শেষ ধাপের অঙ্কটুকু মেলান বাকি। সেটা করতে পারলেই ইতিহাস লিখে ফেলবেন চন্দ্রকান্ত পণ্ডিত এবং তাঁর দলের ছেলেরা।

আশা করা যায়, মধ্যপ্রদেশ ১০৮ রান করেই চ্যাম্পিয়ন হবে। তবে মুম্বইয়ের বোলাররা যদি মারাত্মক বিধ্বংসী হয়ে ১০০ রানের মধ্যে মধ্যপ্রদেশকে বাণ্ডিল করে দেন, তা হলে সেটা রঞ্জির ইতিহাসে কম বড় অঘটন হবে। দেখার, মুম্বই বোলাররা অঘটন ঘটান, নাকি মধ্যপ্রদেশের ব্যাটাররা হাসতে হাসতে ম্যাচ বের করে নেন!

বন্ধ করুন