বাংলা নিউজ > ময়দান > Ranji Trophy: ব্যর্থ গিল, MI-এর জার্সিতে নজর কাড়া কার্তিকেয়র আগুনে বোলিংয়ে সেমিতে মধ্যপ্রদেশ
পঞ্জাবেব বিরুদ্ধে ১০ উইকেটে জয় পঞ্জাবের।

Ranji Trophy: ব্যর্থ গিল, MI-এর জার্সিতে নজর কাড়া কার্তিকেয়র আগুনে বোলিংয়ে সেমিতে মধ্যপ্রদেশ

  • মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের বোলারের দাপটে কোয়ার্টার ফাইনাল থেকে ছিটকে গেল পঞ্জাব। সেমিফাইনালে মধ্যপ্রদেশের সম্ভাব্য প্রতিপক্ষ বাংলা। ঝাড়খণ্ডের বিরুদ্ধে চালকের আসনে রয়েছেন অভিমন্যু ঈশ্বরণরা। বাংলার জয় এখন কার্যত সময়ের অপেক্ষা।

শুভমন গিলদের লড়াই ব্যর্থ করে সেমিফাইনালে পৌঁছে গেল মধ্যপ্রদেশ। দুরন্ত বোলিং করলেন মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের কুমার কার্তিকেয়। মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের জার্সিতে আগেই নজর কেড়েছিলেন। এ বার পঞ্জাবের বিরুদ্ধে মধ্যপ্রদেশের হয়ে রঞ্জির কোয়ার্টার ফাইনাল দুরন্ত ছন্দে ছিলেন কার্তিকেয়। দ্বিতীয় ইনিংসে একাই ৬ উইকেট তুলে নেন। আর বাকি ৪ উইকেট নেন সারাংশ জৈন। এই দুই বোলারের দাপটে সাড়ে তিন দিনেই ম্যাচ জিতে সেমিফাইনালে পৌঁছে যায় মধ্যপ্রদেশ।

সেমিফাইনালে মধ্যপ্রদেশের সম্ভাব্য প্রতিপক্ষ বাংলা। ঝাড়খণ্ডের বিরুদ্ধে চালকের আসনে রয়েছেন অভিমন্যু ঈশ্বরণরা। বাংলার জয় কার্যত সময়ের অপেক্ষা।

টসে জিতে পঞ্জাব অধিনায়ক অভিষেক শর্মা প্রথমে ব্যাট নেন। তবে প্রথম ইনিংসে পঞ্জাবের কোনও ব্যাটারই ৫০ রান করতে পারেননি। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ রান অভিষেক এবং অনমলপ্রীত সিংহের ৪৭। প্রথম ইনিংসে গুজরাট টাইটানসের তারকা ক্রিকেটার মাত্র ৯ বলে ৯ রান করেছিলেন।

আরও পড়ুন: সেমির পথে বাংলা-বিরাটের শতরান কাজে এল না,সায়ন-শাহবাজ ২৯৮-এ উড়িয়ে দিল ঝাড়খণ্ডকে

আরও পড়ুন: উত্তরাখণ্ডকে ৭২৫ রানে হারিয়ে প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে বিশ্ব রেকর্ড, সেমিতে মুম্বই

পঞ্জাবের ২১৯ রানের জবাবে মধ্যপ্রদেশ করে ৩৯৭ রান। শতরান করেন শুভম শর্মা। তাঁর ১০২ রানের ইনিংস ছাড়াও হিমাংশু মন্ত্রী ৮৯ এবং রজত পতিদার ৮৫ করেন।

দ্বিতীয় ইনিংসে ফের ব্যর্থ হয় পঞ্জাব। আবারও ব্যর্থ হন শুভমন গিল। তিনি এই ইনিংসে ১৩ বলে ১৯ করেন। পঞ্জাবের হয়ে সর্বোচ্চ রান অনমোল মলহোত্রার ৩৪ এবং দ্বিতীয় সর্বোচ্চ মায়াঙ্ক মার্কান্দের ৩৩। এ ছাড়া ৩১ করে রান করেছেন দুই ক্রিকেটার- অনমলপ্রীত সিং এবং সিদ্ধার্থ কাউল। পঞ্জাবের দ্বিতীয় ইনিংস শেষ হয়ে যায় ২০৩ রানে কুমার কার্তিকেয় এবং সারাংশের দাপটের সৌজন্যে।

মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের কুমার কার্তিকেয় ৩৪ ওভার বল করে মাত্র ৫০ রান দিয়ে ৬ উইকেট তুলে নেন। প্রথম ইনিংসে নিয়েছিলেন ১ উইকেট। দ্বিতীয় ইনিংসে জয়ের জন্য মধ্যপ্রদেশের প্রয়োজন ছিল ২৬ রান। ৫.১ ওভার খেলেই সেই রান তুলে নেন দুই ওপেনার হিমাংশু (৯) এবং যশ দুবে (১৭)। ১০ উইকেটে জয় ছিনিয়ে নেয় মধ্যপ্রদেশ।

বন্ধ করুন