বাংলা নিউজ > ময়দান > Ranji Trophy Semifinal: শেষবেলায় আকাশ দীপের জোড়া উইকেট লড়াইয়ে রাখল বাংলাকে
দিনের শেষবেলায় জোড়া সাফল্য আকাশের। ছবি- স্ক্রিনগ্র্যাব।

Ranji Trophy Semifinal: শেষবেলায় আকাশ দীপের জোড়া উইকেট লড়াইয়ে রাখল বাংলাকে

  • শতরান করে মধ্যপ্রদেশের হয়ে লড়াই জারি হিমাংশু মন্ত্রীর।

টসভাগ্য সঙ্গ দেয়নি বাংলার। তা সত্ত্বেও মধ্যপ্রদেশের বিরুদ্ধে রঞ্জি ট্রফির সেমিফাইনালের প্রথম দিনের শেষে অভিমন্যু ঈশ্বরনরা লড়াইয়ে টিকে নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ের সুবাদে।

আলুরের কেএসসিএ ক্রিকেট গ্রাউন্ডের বাইশগজকে প্রথম দিনে অন্তত স্পোর্টিং মনে হওয়াই স্বাভাবিক। বোলাররা অল্প-বিস্তর সাহায্য পেয়েছেন। রান তুলতেও বিশেষ অসুবিধা হয়নি। একসময় হিমাংশু মন্ত্রী ও অক্ষত রঘুবংশী যখন ব্যাট করছিলেন, বাংলাকে ব্যাকফুটে দেখাচ্ছিল। তবে শেষবেলায় আকাশ দীপের জোড়া উইকেট ম্যাচে ফেরায় বাংলাকে।

টস জিতে শুরুতে ব্যাট করতে নামে মধ্যপ্রদেশ। তারা ইনিংসের পঞ্চম ওভারে ওপেনার যশ দুবের উইকেট হারায়। ৯ রান করে মুকেশ কুমারের বলে এলবিডব্লিউ হন যশ। ফর্মে থাকা শুভম শর্মাকে সস্তায় ফেরান ইশান পোড়েলের জায়গায় দলে ঢোকা প্রদীপ্ত প্রামানিক। ১৭ রান করে বোল্ড হন শুভম।

রজত পতিদার খুব বেশিক্ষণ ক্রিজে স্থায়ী হতে পারেননি। ৭ রান করে মুকেশ কুমারের দ্বিতীয় শিকার হন তিনি। ক্যাপ্টেন আদিত্য শ্রীবাস্তবকে ১০ রানের মাথায় বোল্ড করেন শাহবাজ আহমেদ। মধ্যপ্রদেশ একসময় ৯৭ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে বসে।

আরও পড়ুন:- Ranji Trophy Semifinal Live- আনকোরা মন্ত্রীতে মাত বাংলা, ম্যাচে ফিরল মধ্যপ্রদেশ

সেখান থেকে মধ্যপ্রদেশের ইনিংসকে টেনে নিয়ে যান হিমাংশু ও রঘুবংশী। দু'জনে মিলে পঞ্চম উইকেটের জুটিতে যোগ করেন ১২৩ রান। রঘুবংশী ৮টি চার ও ২টি ছক্কার সাহায্যে ৮১ বলে ৬৩ রানের আগ্রাসী ইনিংস খেলে আকাশ দীপের বলে এলবিডব্লিউ হন। সরাংশ জৈন ১৭ রান করে আকাশের বলেই বোল্ড হয়ে সাজঘরে ফেরেন।

আরও পড়ুন:- Ranji Trophy: অবিশ্বাস্য আবির্ভাব, রঞ্জিতে টানা ১টি সেঞ্চুরি ও ৩টি হাফ-সেঞ্চুরি ১৮ বছরের রঘুবংশীর

পুনিতকে সঙ্গে নিয়ে দিনের বাকি সময়টুকু নির্বিঘ্নে কাটিয়ে দেন হিমাংশু মন্ত্রী। আপাতত প্রথম দিনের শেষে মধ্যপ্রদেশ তাদের প্রথম ইনিংসে ৬ উইকেটের বিনিময়ে ২৭১ রান তোলে। মন্ত্রী ১৫টি চার ও ১টি ছক্কার সাহায্যে ১৩৪ রানের অনবদ্য ইনিংস খেলে অপরাজিত থাকেন। ৯ রান করে নট-আউট থাকেন পুনিত।

মুকেশ ৪৫ রানে ২টি ও আকাশ ৫৫ রানে ২টি উইকেট নেন। প্রদীপ্ত ৫০ রানে ১টি ও শাহবাজ ৭০ রানে ১টি উইকেট দখল করেন।

বন্ধ করুন