বাংলা নিউজ > ময়দান > অপ্রতিরোধ্য রশিদ খান, পরপর দু'ম্যাচে কার্যত একাই জেতালেন দলকে
পিএসএলে রশিদ। ছবি- টুইটার।
পিএসএলে রশিদ। ছবি- টুইটার।

অপ্রতিরোধ্য রশিদ খান, পরপর দু'ম্যাচে কার্যত একাই জেতালেন দলকে

  • টি-২০ ক্রিকেটে এই নিয়ে মোট তিনবার ইনিংসে ৫ উইকেট নেন আফগান স্পিনার।

জবাব নেই রশিদ খানের। চলতি পাকিস্তান সুপার লিগে পরপর দু'টি ম্যাচে আফগান স্পিনারের ঘূর্ণিতে বিধ্বস্ত প্রতিপক্ষ দল। শুধু বল হাতেই নয়, বরং ব্যাট হাতেও দলকে ম্যাচ জিতিয়েছেন রশিদ।

লাহোর বনাম ইসলামাবাদ: স্থগিত হয়ে যাওয়া পিএসএল পুরনায় শুরু হলে প্রথম ম্যাচেই মাঠে নামে ইসলামাবাদ ইউনাইটেড ও লাহোর কালান্দার্স। প্রথমে ব্যাট করে ইসলামাবাদ ২০ ওভারে ৯ উইকেটে ১৪৩ রান তোলে। রশিদ ৪ ওভারে মাত্র ৯ রানের বিনিময়ে ১ উইকেট দখল করেন।

পালটা ব্যাট করতে নেমে লাহোর একেবারে শেষ বলে ম্যাচ জেতে। তারা ২০ ওভারে ৫ উইকেটের বিনিময়ে ১৪৪ রান তুলে জয় নিশ্চিত করে। উল্লেখযোগ্য বিষয় হল, রশিদ খান সেই ম্যাচে ৭ নম্বরে ব্যাট করতে নেমে ৩টি বাউন্ডারির সাহায্যে ৫ বলে ১৫ রান করে অপরাজিত থাকেন। ম্যাচের সেরা হন রশিদ।

লাহোর বনাম পেশোয়ার: এবার পেশোয়ার জালমির বিরুদ্ধেও রশিদ ছিলেন অপ্রতিরোধ্য। প্রথমে ব্যাট করে লাহোর ২০ ওভারে ৮ উইকেটের বিনিময়ে ১৭০ রান তোলে। টিম ডেভিড ৬৪ রান করে অপরাজিত থাকেন। বেন ডাঙ্ক করেন ৪৮ রান। রশিদ খান ৮ রানের যোগদান রাখেন।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে পেশোয়ার ২০ ওভারে ৮ উইকেটের বিনিময়ে ১৬০ রানে আটকে যায়। শোয়েব মালিক ৭৩ রানের অনবদ্য ইনিংস খেলেন। যদিও রশিদ খান ৪ ওভারে ২০ রানের বিনিময়ে ৫ উইকেট দখল করে জয় এনে দেন লাহোরকে। টি-২০ ক্রিকেটে এই নিয়ে তৃতীয় বার ইনিংসে ৫ উইকেট দখল করেন আফগান স্পিনার। স্বাভাবিকভাবেই উপর্যুপরি দ্বিতীয় ম্যাচের সেরা ক্রিকেটারের পুরস্কার ওঠে রশিদের হাতে।

বন্ধ করুন