বাংলা নিউজ > ময়দান > শাস্ত্রীর দাবিকে নস্যাৎ করে ২০১৯ বিশ্বকাপে রায়াডুর বিরুদ্ধে পক্ষপাতের অভিযোগে গর্জে উঠলেন প্রাক্তন জাতীয় নির্বাচক
ভারতীয় দলের জার্সি গায়ে আম্বাতি রায়াডু। ছবি- পিটিআই।

শাস্ত্রীর দাবিকে নস্যাৎ করে ২০১৯ বিশ্বকাপে রায়াডুর বিরুদ্ধে পক্ষপাতের অভিযোগে গর্জে উঠলেন প্রাক্তন জাতীয় নির্বাচক

  • ২০১৯ বিশ্বকাপে ভারতীয় দলে রায়াডুর সুযোগ না পাওয়ায় সদ্য নিজের আশ্চর্যের কথা জানিয়ে বিতর্ক উস্কে দেন রবি শাস্ত্রী।

শুভব্রত মুখার্জি

২০১৯ ওয়ানডে বিশ্বকাপের ভারতীয় দল থেকে বাদ পড়েছিলেন ডানহাতি মিডল অর্ডার ব্যাটার আম্বাতি রায়ডু। বিষয়টি নিয়ে সেইসময় কম জলঘোলা হয়নি। স্বয়ং রায়ডুও বিষয়টি নিয়ে মুখ খুলেছিলেন। আজ প্রায় বছর দুই বাদে প্রাক্তন ভারতীয় কোচ রবি শাস্ত্রীর এক বক্তব্য সেই পুরনো বিতর্ক ফের উস্কে দিয়েছে। আর সেই বিতর্কে এবার মুখ খুললেন শরনদীপ সিং। 

তিনি জানালেন পক্ষপাতের কোন প্রশ্ন নেই। নির্বাচকদের চোখে সকল ক্রিকেটার সমান‌। রবি শাস্ত্রীর দাবিকে কার্যত নস্যাৎ করে দিয়ে প্রাক্তন ভারতীয় নির্বাচকের বক্তব্য কোচ, অধিনায়কের সঙ্গে কথা বলে তাদের মতামতকে সম্মান দিয়েই যে কোনো দল নির্বাচন করা হয়। তিনি বলেন, 'রবি শাস্ত্রী ঠিকই বলেছেন যে দল নির্বাচনে কোচের হাত থাকে না। তবে দল নির্বাচন করার আগে নির্বাচকরা মাঠে উপস্থিত হন। কোচ, অধিনায়কের সঙ্গে আলাদা করে কথা বলা হয়। তাদেরকে নির্বাচকরা নিজেদের ভাবনাচিন্তা, পরিকল্পনার কথা জানায়। তারা কি চায় সেটাও জিজ্ঞাসা করে। তারা কোন নির্দিষ্ট ক্রিকেটারকে চাইছেন কিনা তা জানতে চাওয়া হয়। সেই কারণেই শেষ কয়েক বছরে ভারতীয় দলের দ্বিপাক্ষিক সিরিজে পারফরম্যান্স অত্যন্ত ভাল।'

শরণদীপ সিং আরও যোগ করেন, 'দলের অধিনায়ক সবসময় নির্বাচনী বৈঠকে থাকেন। নিজের মতামত জানান। কোন ক্রিকেটারকে তিনি চান। কাকে চাননা। বিরাট ও সেটাই করেছে। বিরাট এবং শাস্ত্রীর সম্পর্ক খুব ঘনিষ্ঠ। তারপরে ও এই দাবি বিস্ময়কর। চার বছর ধরে রবি ভাইয়ের সাথে আমাদের কোন মতপার্থক্য হয়নি। আমাদের সঙ্গে তাঁর সবসময় কথা হত। আমাদের কথা ও শুনত। তাই জানিনা হঠাৎ করে কোথা থেকে এইসব কথা সামনে আসছে। দলগঠন নিয়ে পক্ষপাতিত্বের কোন জায়গা নেই।'

বন্ধ করুন