বাড়ি > ময়দান > করোনার বিড়াম্বনা, মাঠে হাঁচি-কাশির জন্য ফুটবলারদের লাল কার্ড দেখাত পারেন রেফারি
লাল কার্ড দেখাচ্ছেন রেফারি। - প্রতীকী ছবি।
লাল কার্ড দেখাচ্ছেন রেফারি। - প্রতীকী ছবি।

করোনার বিড়াম্বনা, মাঠে হাঁচি-কাশির জন্য ফুটবলারদের লাল কার্ড দেখাত পারেন রেফারি

  • করোনা সংক্রান্ত গাইডলাইনে এমনই নির্দেশ দিয়েছে ইংল্যান্ডের ফুটবল সংস্থা।

অন্য সময় হলে হাস্যকর হতো এমন নিয়ম। সমালোচনা হতো বিস্তর। তবে করোনা মহামারির কথা মাথায় রেখে ইংল্যান্ডের ফুটবল সংস্থা (এফএ)-র নির্দেশিকা যথাযথ মনে হওয়াই স্বাভাবিক। তবে নিয়মটা যে অদ্ভূত, সেবিষয়ে কোনও সন্দেহ নেই।

করোনা মহামারির পর আন্তর্জাতিক ফুটবলে বেশ কিছু নিয়ম পরিবর্তন হয়েছে। বদলে গিয়েছে দীর্ঘদিনের পরিচিত কিছু ছবি। বহু বিধি-নিষেধ আরোপিত হয়েছে। খালি গ্যালারি, সেলিব্রেশনের ধরণ, সব মিলিয়ে বেশ অপরিচিত মনে হচ্ছে ফুটবল খেলাটাকেই। 

ইংল্যান্ডের ফুটবল সংস্থা সেরকমই করোনা সংক্রান্ত গাইডলাইনে রেফারিদের নির্দেশ দিয়েছে, মাঠে কোনও ফুটবলার কাশলে বা হাঁচলে, তাঁকে লাল কার্ড দেখানো যেতে পারে। কাশির জন্য লাল কার্ড! বিষয়টা অবাক করার মতো হলেও ওদেশের ফুটবল সংস্থা করোনা সংক্রমণ এড়াতেই এমন পদক্ষেপ নিয়েছে।

যদিও কাশলেই কার্ড দেখাতে হবে, এমন কথা লেখা নেই নির্দেশিকায়। কোনও ফুটবলার যদি প্রতিপক্ষ খেলোয়াড় বা ম্যাচ অফিসিয়ালদের মুখের সামনে ইচ্ছাকৃতভাবে কাশেন বা হাঁচেন, তবে তাঁকে লাল কার্ড দেখিয়ে মাঠ থেকে বার করে দিতে পারেন রেফারি।

সংস্থার তরফে এটা আলাদা করে বলে দেওয়া হয়েছে যে, স্বাভাবিক হাঁচি-কাশির জন্য কার্ড দেখানো যাবে না। যদি রেফারির মনে হয়ে সেটা ইচ্ছাকৃত এবং প্রতিপক্ষ খেলোয়াড় বা ম্যাচ অফিসিয়ালদের কাছাকাছি, তবেই সংশ্লিষ্ট ফুটবলারকে শাস্তি দেওয়া যাবে। অন্যথায় (নিরাপদ দূরত্বে কাশলে) হলুদ কার্ড দেখিয়ে সতর্ক করা যেতে পারে।

এমন অপরাধকে ‘মাঠে আপত্তিজনক ভাষা ব্যবহার, অপমানজনক আচরণ বা অঙ্গভঙ্গি'র পর্যায়ে ফেলা হয়েছে। অপরাধ বলে বিবেচিত না হলেও ফুটবলাররা যাতে মাঠে থুতু না ফেলেন, সেদিকেও নজর রাখতে বলা হয়েছে রেফারিদের।

বন্ধ করুন