বাংলা নিউজ > ময়দান > ও ক্যাচ ফেললেই মাহি মাহি রব উঠত, শুরুর দিকে পন্তের ওপর অত্যাধিক চাপ নিয়ে মুখ খুললেন চাহাল
হতাশ ঋষভ পন্ত। ছবি- টুইটার।
হতাশ ঋষভ পন্ত। ছবি- টুইটার।

ও ক্যাচ ফেললেই মাহি মাহি রব উঠত, শুরুর দিকে পন্তের ওপর অত্যাধিক চাপ নিয়ে মুখ খুললেন চাহাল

  • খেলোয়াড়দের নূন্যতম সম্মান জানানো দাবিতে মুখর পন্তের ভারতীয় দলের সতীর্থ চাহাল।

রবিবার (১০ অক্টোবর) আইপিএল ফাইনালের টিকিট পাকা করার উদ্দেশ্যে গুরু মহেন্দ্র সিং ধোনির চেন্নাই সুপার কিংসের বিপক্ষে মাঠে নামবে ঋষভ পন্তের নেতৃত্বাধীন দিল্লি ক্যাপিটালস। ব্যাটসম্যান হিসাবে আগেই পন্ত নিজের জাত চিনিয়েছেন, এবার আইপিএলে অধিনায়কত্বও মন্দ করেননি তরুণ উইকেটকিপার ব্যাটার, দুইবার সাক্ষাৎই মাত দিয়েছেন সিএসকেকে। তবে সবসময় পন্তের ভাগ্য কিন্তু এত সুপ্রসন্ন ছিলনা।

ভারতীয় ক্রিকেটের সর্বকালের সেরা উইকেটকিপার ব্যাটার, তথা মতান্তরে সেরা অধিনায়ক ধোনি। তাঁর বদলে ভারতীয় দলে যেই আসুক না কেন, দিনের শেষে ধোনির সঙ্গে তাঁর তুলনা হওয়া অবধারিত ছিলই। দুর্ভাগ্যক্রমে পন্তকে ধোনির জায়গায় দলের পরবর্তী উইকেটকিপার হওয়ায় অত্যন্ত চাপের মধ্যে দিয়েই যেতে হয়েছিল। সেইসব দিনের কথাই ফের একবার মনে করিয়ে দিলেন তাঁর জাতীয় দলের সতীর্থ যুজবেন্দ্র চাহাল।

SGTV-কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে চাহাল স্মৃতিচারণা করে বলেন, ‘সকলেই ওকে একেবারে ধোনি ভাইয়ের মতোই একই স্তরে দেখার দাবি করত। আমার স্পষ্ট মনে আছে পন্ত যদি কোন ক্যাচ ফেলত বা কোন ভুল ডিআরএসের সিদ্ধান্ত নিত, তখনই গোটা মাঠ মাহি মাহির ধ্বনি জুড়ে দিত। ওই সময় পন্তের বয়স ছিল মাত্র ১৯ কি ২০, তাই স্বাভাবিকভাবেই ওর ওপর বিশাল চাপ তৈরি হয়েছিল এর কারণে। আমরা ওকে এসবের থেকে নজর সরিয়ে নিজের খেলায় মন দেওয়ারই পরামর্শ দিতাম, কিন্তু ওর ওপর বীভৎস রকমের চাপ ছিল।’

এক সময় খারাপ পারফরম্যান্সের জন্য জাতীয় দল থেকে বাদও পড়তে হয় ঋষভকে। কিন্তু তারপরে অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ডের মতো জায়গায় গিয়ে টেস্ট শতরান করা থেকে একের পর এক ম্যাচ জেতানো ইনিংস খেলে ২৪ বছর বয়সী ভারতীয় তারকা নিজেকে প্রমাণ করেছেন। এই কামব্যাকের জন্য পন্তকে যোগ্য সম্মান দেওয়া উচিত বলেই চাহাল মনে করেন। ‘ও আগের থেকে অনেক উন্নতি ঘটিয়েছে এবং পরিপক্ক হয়েছে। লোকেদের এটা বোঝা উচিত যে সবাই সবসময় নিজেদের সেরাটাই দিতে চায়। তাই খেলোয়াড়দের নূন্যতম সম্মানটুকু দেওয়া উচিত।’

বন্ধ করুন