বাংলা নিউজ > ময়দান > SA vs NZ: গ্র্যান্ডহোমের শতরান, তবে ২৯৩-তে অলআউট কিউয়িরা, ৫ উইকেট হারালেও ২১১-এর লিড প্রোটিয়াদের

SA vs NZ: গ্র্যান্ডহোমের শতরান, তবে ২৯৩-তে অলআউট কিউয়িরা, ৫ উইকেট হারালেও ২১১-এর লিড প্রোটিয়াদের

নিউজিল্যান্ড টিম।

তৃতীয় দিনের শেষে প্রোটিয়াদের দ্বিতীয় ইনিংসে ১৪০ রানে ৫ উইকেট পড়ে গিয়েছে। যা নিঃসন্দেহে চাপের। তবে প্রথম ইনিংসে ৭১ রানের লিড পাওয়ার কারণে তৃতীয় দিনের শেষে ২১১ রানে এগিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকা।

নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে প্রথম টেস্টে একেবারে ল্যাজেগোবরে হয়েছিল দক্ষিণ আফ্রিকা। কিন্তু দ্বিতীয় টেস্টে তারা পাল্টা ঘুরে দাঁড়িয়েছে। তৃতীয় দিনের শেষে প্রোটিয়াদের দ্বিতীয় ইনিংসে ১৪০ রানে ৫ উইকেট পড়ে গিয়েছে। যা নিঃসন্দেহে চাপের। তবে প্রথম ইনিংসে ৭১ রানের লিড পাওয়ার কারণে তৃতীয় দিনের শেষে ২১১ রানে এগিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকা।

দ্বিতীয় দিনের নিউজিল্যান্ডের স্কোর ছিল ৫ উইকেটে ১৫৭ রান। তৃতীয় দিন সকালে ব্যাট করতে নেমে আর মাত্র ১৩৬ রান যোগ করতে পারে কিউয়িরা। ২৯৩ রানে তারা অলআউট হয়ে যায়। নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে দক্ষিণ আফ্রিকাও পরপর উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে গিয়েছে। ৩৮ রানে তারা ৩ উইকেট হারিয়ে বসে। রাসি ভ্যান ডার ডুসেন ৮৫ বলে ৪৫ রান করেন। এটাই দক্ষিণ আফ্রিকার দ্বিতীয় ইনিংসে এখনও পর্যন্ত সর্বোচ্চ রান। তেম্বা বাভুমা করেছেন ২৩ রান। কাইল ভেরেনি ২২ এবং উইয়ান মালদার ১০ রান করে ক্রিজে রয়েছেন। নিউজিল্যান্ডের টিম সাউদি এবং নেইল ওয়াগনার ২টি করে উইকেট নিয়েছেন। ম্যাট হেনরি নিয়েছেন ১ উইকেট।

প্রসঙ্গত রবিবার সকালে নিউজিল্যান্ড ব্যাট করতে নেমে ড্য়ারেল মিচেল এবং কলিন ডি'গ্র্যান্ডহোম লড়াই চালাচ্ছিলেন। তবে ৬০ রান করে আউট হয়ে যান মিচেল। কিন্তু গ্র্যান্ডহোম ১৫৮ বলে ১২০ করে অপরাজিত থাকেন। তাঁর ইনিংসের হাত ধরেই তাও ২৯৩ রানে পৌঁছয় নিউজিল্যান্ডের ইনিংস। নিউজিল্যান্ডের তৃতীয় সর্বোচ্চ রান হেনরি নিকোলসের। তিনি করেছেন ৩৯ রান। দক্ষিণ আফ্রিকার কাগিসো রাবাডা নেন মোট ৫ উইকেট। ৪ উইকেট নিয়েছেন মার্কো জানসেন। এই দুই বোলারই দক্ষিণ আফ্রিকাকে প্রথম ইনিংসে ৭১ রানের লিড পেতে সাহায্য করে।

ক্রাইস্টচার্চে দ্বিতীয় টেস্টের যা পরিস্থিতি তাতে, খেলার ফল হওয়াটাই স্বাভাবিক। দু'দলেরই সামনেই এখন ফিফটি ফিফটি সুযোগ রয়েছে। তবে প্রথম ইনিংসে ৭১ রানের এগিয়ে থাকার সুবাদে কিছুটা অ্যাডভান্টেজে ছিল প্রোটিয়ারা। কিন্তু তৃতীয় দিনে আবার ৫ উইকেট হারিয়ে বসায় কিছুটা হলেও চাপে তারা। সোমবার যদি সকাল সকাল দক্ষিণ আফ্রিকার বাকি ৫ উইকেট ফেলে দিতে পারে নিউজিল্যান্ড, এবং নিজেরা ক্রিজে টিকে থেকে লড়াই চালাতে পারে, তবে দ্বিতীয় টেস্ট জেতাটা তাদের ক্ষেত্রে অসম্ভব কিছু নয়।

আর দক্ষিণ আফ্রিকা যদি টিকে যেতে পারে, সেক্ষেত্রে কিন্তু পাল্টা চাপ বাড়বে নিউজিল্যান্ডের উপর। বড় রানের স্কোর করে নিউজিল্যান্ডের ১০ উইকেট ফেলার জন্য কিন্তু অনেকটা সময় হাতে পাবে দক্ষিণ আফ্রিকা।

বন্ধ করুন