বাংলা নিউজ > ময়দান > চোট লুকিয়ে WTC Final-এ খেলার অভিযোগ, শুভমনের উপর ক্ষোভ উগড়ে দিলেন সাবা করিম
শুভমন গিল।
শুভমন গিল।

চোট লুকিয়ে WTC Final-এ খেলার অভিযোগ, শুভমনের উপর ক্ষোভ উগড়ে দিলেন সাবা করিম

  • বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ ফাইনালের প্রথম ইনিংসে শুভমন গিল ২৮ রান করেন। এবং দ্বিতীয় ইনিংসে তাঁর সংগ্রহ ছিল মাত্র ৮ রান। বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ ফাইনালে বিশ্রি ভাবে হারের পর শুভমনের চোটের বিষয়টি সামনে আসে।

চোট লুকিয়ে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে খেলেছেন শুভমন গিল! আর এতেই ক্ষোভে ফেটে পড়েছেন প্রাক্তন ক্রিকেটার এবং জাতীয় নির্বাচক সাবা করিম। শুভমন গিলের এই কাণ্ডে তিনি রীতিমতো বিরক্ত। পাশাপাশি তিনি অবাকও হয়েছেন। কারণ তাঁর বক্তব্য, ভারতীয় দলের সঙ্গে এত ট্রেনার্স এবং ফিজিও-রা রয়েছেন, তবু কেউ কী ভাবে শুভমন গিলের এই চোটের কথা জানতে পারলেন না!

সাবা করিমের পরিষ্কার বক্তব্য, ‘শুভমন গিল ওর চোট লুকিয়ে খেলেছে দেখে আমি অবাক হয়ে গিয়েছি! ও অনেক দিন ধরেই ভারতীয় দলের সঙ্গে রয়েছে। দলের সঙ্গে অনেক ফিজিও এবং মেডিক্যাল স্টাফেরা রয়েছেন, যাঁরা প্রতি নিয়ত প্লেয়ারদের ফিটনেসে নজর রাখছেন। এটা খুবই অবাক করার মতো ঘটনা। কী ভাবে এটা ঘটল আর কেনই বা সকলের নজর এড়িয়ে গেল, বুঝতে পারছি না।’

ভারতের আর এক প্রাক্তন ক্রিকেটার নিখিল চোপড়া আবার ভারতের সিনিয়র প্লেয়ার রোহিত শর্মার প্রসঙ্গ টেনে বলেছেন, গত বছর চোটের জন্য অস্ট্রেলিয়া সফরে কিন্তু রোহিত শর্মাকে খেলানো হয়নি। নিখিল চোপড়ার দাবি, ‘যে নিয়মটা রোহিত শর্মার মতো সিনিয়র প্লেয়ারের জন্য প্রযোজ্য, সেটা অন্য প্লেয়ারদের ক্ষেত্রেও প্রযোজ্য হওয়া উচিত।’

বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ ফাইনালের প্রথম ইনিংসে শুভমন গিল ২৮ রান করেন। এবং দ্বিতীয় ইনিংসে তাঁর সংগ্রহ ছিল মাত্র ৮ রান। বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ ফাইনালে বিশ্রি ভাবে হারের পর শুভমনের চোটের বিষয়টি সামনে আসে। এবং চোট এতটাই গুরুতর যে, তাঁকে আগামী দু'মাস মাঠের বাইরে থাকতে হবে। যে কারেণ শুভমন গিলকে ভারতে ফেরৎ পাঠানো হচ্ছে। 

এখন প্রশ্ন হল, তাঁর জায়গায় রোহিত শর্মার সঙ্গে কে ওপেন করবেন? এই নিয়ে বহু আলোচনা চলছে। শ্রীলঙ্কা থেকে পৃথ্বী শ'কে ইংল্যান্ডে উড়িয়ে নিয়ে যাওয়ার ভাবনাও চলছে। শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে সংক্ষিপ্ত ওভারের সিরিজ খেলতে যাওয়া রাহুল দ্রাবিড়ের দলের বড় ভরসা হলেন পৃথ্বী। নাম রয়েছে ময়াঙ্গ আগরওয়াল, হনুমা বিহারীরও।

তবে সাবা করিম মনে করেন শুভমনের জায়গায় ময়াঙ্ক আগরওয়ালকেই খেলানো উচিত। তার কারণ ব্যাখ্যা করে সাবা করিম বলেছেন, ‘ময়াঙ্ককেই আগে সুযোগ দেওয়া উচিত। ওর সঙ্গে একটু বেশি কঠিন হয়ে যাচ্ছি। মাত্র দু'-তিনটে ইনিংসে ব্যর্থ হওয়ার পরেই ওকে সাইডলাইন করে দেওয়া হয়েছে।’

বন্ধ করুন