বাংলা নিউজ > ময়দান > 'প্রচারে থাকতে এরকম মন্তব্য', সিদ্ধার্থের ‘যৌন ইঙ্গিতবাহী’ টুইটে পালটা সাইনার
সিদ্ধার্থ এবং সাইনা নেহওয়াল। (ফাইল ছবি, সৌজন্যে ফেসবুক)

'প্রচারে থাকতে এরকম মন্তব্য', সিদ্ধার্থের ‘যৌন ইঙ্গিতবাহী’ টুইটে পালটা সাইনার

  • সাইনার উদ্দেশ্যে ‘কুরুচিকর’ এবং ‘যৌন ইঙ্গিতবাহী’ মন্তব্যের অভিযোগ উঠেছে সিদ্ধার্থের বিরুদ্ধে।

অভিনেতা সিদ্ধার্থের ‘কুরুচিকর’ এবং ‘যৌন ইঙ্গিতবাহী’ টুইট নিয়ে মুখ খুললেন সাইনা নেহওয়াল। রীতিমতো কড়া ভাষায় বললেন, এরকম বিতর্কিত মন্তব্য করে লোকজন প্রচারের আলোয় থাকতে চান।

সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমে ইন্ডিয়া টু'ডে লন্ডন অলিম্পিক্সে ব্রোঞ্জ পদকজয়ী সাইনা বলেন,‘আমি ঠিক নিশ্চিত নই যে উনি কী বোঝাতে চেয়েছেন। অভিনেতা হিসেবে ওঁকে ভালো লাগত। কিন্তু এটা ভালো নয়। কিছুটা ভালো শব্দ ব্যবহার করে নিজের মনোভাব প্রকাশ করতে পারতেন। কিন্তু এটা আবার টুইটার। এরকম শব্দ ব্যবহার করে এবং মন্তব্য করে লোকজন আলোয় থেকে যেতে চান।’

কী বলেছিলেন অভিনেতা সিদ্ধার্থ?

গত সপ্তাহে পঞ্জাবের ফিরোজপুরে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ‘নিরাপত্তায় গলদ’ নিয়ে টুইটারে ক্ষোভ উগরে দিয়েছিলেন সাইনা। লিখেছিলেন, 'কোনও দেশকেই সুরক্ষিত হিসেবে দাবি করা যেতে পারে না, যদি সেই দেশের প্রধানমন্ত্রীর সুরক্ষার আপস করা হয়। প্রধানমন্ত্রীর উপর কাপুরুষোচিত আক্রমণের ঘটনাকে কঠোরতম ভাষায় নিন্দা করছি আমি।' সেই টুইট রিটুইট করে অভিনেতা লেখেন, ‘‍বিশ্বের subtle cock চ্যাম্পিয়ন, ঈশ্বরকে ধন্যবাদ যে ভারতের রক্ষক আছে। লজ্জা হওয়া দরকার রিহানা।’

ব্যাডমিন্টনের 'শাটলককের' (Shuttlecock) পরিবর্তে ‘Subtle Cock’ শব্দ ব্যবহার করায় সোশ্যাল মিডিয়ায় তোপের মুখে পড়েন সিদ্ধার্থ। নেটিজেনদের একাংশ দাবি করেন, ‘কুরুচিকর’ এবং ‘যৌন ইঙ্গিতবাহী’ টুইট করেছেন অভিনেতা। তাঁর বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন জাতীয় মহিলা কমিশনের চেয়ারপার্সন রেখা শর্মা। স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে ব্যবস্থা নিচ্ছে কমিশনও। যদিও সিদ্ধার্থ দাবি করেছেন, অহেতুক বিতর্ক তৈরি করা হচ্ছে। সাইনাকে অপমান করার কোনও অভিপ্রায় ছিল না। ‘কক অ্যান্ড বুল’-এর প্রসঙ্গে টেনে বলেন, ‘কাউকে অপমান করবার কোনও উদ্দেশ্য ছিল না, অশ্লীল কিছু আমি বলিনি। এইটুকুই বলব।’ ‘Subtle Cock’-র ক্ষেত্রে অন্য কোনও অর্থ খুঁজতে যাওয়া অনুচিত বলে দাবি করেছেন।

বন্ধ করুন