হোবার্টে জয়ের পর সানিয়া (ছবি সৌজন্য টুইটার @WTA)
হোবার্টে জয়ের পর সানিয়া (ছবি সৌজন্য টুইটার @WTA)

২ বছরের মাতৃত্বকালীন বিরতি থেকে ফিরেই ডাবলস টুর্নামেন্ট জয় সানিয়ার

আজ ফাইনালে চিনা জুটিকে ৬-৪, ৬-৪ গেমে হারান সানিয়া মির্জা ও নাদিয়া কিচেনক জুটি।

প্রতিপক্ষের রিটার্নটা কোর্টের বাইরে পড়তে বাড়তি কোনও উল্লাস নয়। একবার শুধু কোর্টের তাকিয়ে নাদিয়া কিচেনককে জড়িয়ে ধরলেন। দেখে একবারও মনে হবে না, দু'বছর কোর্টে ফিরেই খেতাব জিতলেন সানিয়া মির্জা।

ছেলে ইজানের জন্মের পর হোবার্ট ইন্টারন্যাশনাল ছিল সানিয়ার প্রথম টুর্নামেন্ট। প্রায় দু'বছর পর কোর্টে নামলেও টুর্নামেন্টের শুরু থেকেই সানিয়ার সেই ট্রেডমার্ক ফোরহ্যান্ডের ঝলক মেলে।

আজ ফাইনালে দু'নম্বর বাছাইয়ের বিরুদ্ধে শুরু থেকেই ছন্দে ছিলেন সানিয়া ও তাঁর সঙ্গী নাদিয়া কিচেনক। প্রথম গেমেই প্রতিপক্ষের সার্ভিস ভাঙেন তাঁরা। যদিও নিজেদের সার্ভিস ধরে রাখতে পারেননি। নবম গেমে ফের পেং ও জ্যাংয়ের সার্ভিস ভাঙেন সানিয়ারা। তারপর নিজেদের সার্ভিস ধরে রেখে ৬-৪ ব্যবধানে প্রথম সেট পকেটে পুরে নেন ইন্দো-ইউক্রেনীয় জুটি।

প্রথম গেমের মতো দ্বিতীয় সেটের প্রথম গেমেই চিনা জুটির সার্ভিস ভাঙেন সানিয়ারা। তৃতীয় গেমে ফের সার্ভিস হারায় চিনা জুটি। পরের গেমে সানিয়াদের সার্ভিস ভেঙে ম্যাচে ফেরেন তাঁরা। ছ'নম্বর গেমে ০-৩০-এ কিছুটা চাপে ছিলেন সানিয়ারা। শেষপর্যন্ত নিজেদের নার্ভ ধরে রেখে গেমটি জিতে যান তাঁরা। কিন্তু পরের দুটি গেম জিতে নাছোড়াবান্দা মনোভাবের পরিচয় দেন চিনা জুটি। ৪-৪ অবস্থায় নিজেদের খেলা অন্য পর্যায়ে নিয়ে যান সানিয়ারা। চিনা জুটির সার্ভিস ব্রেক করার পর নিজেদের সার্ভিস ধরে রাখেন তাঁরা। ফলে ৬-৪,৬-৪ ব্যবধানে হোবার্ট ইন্টারন্যাশনাল ডাবলস টুর্নামেন্ট জিতে নেন অবাছাই জুটি।

পরে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে সানিয়া বলেন, 'আমি কোনও চাপ নিইনি প্রথম থেকেই। ভাবতেই পারিনি টুর্নামেন্ট জিততে পারব।এর থেকে আর ভালো প্রত্যাবর্তন হতে পারে না।'

বন্ধ করুন