বাংলা নিউজ > ময়দান > জীবনের প্রথম টেস্ট সেঞ্চুরি করলেন শাকিল, কিউয়িদের থেকে ৪২ রান পিছিয়ে পাকিস্তান

জীবনের প্রথম টেস্ট সেঞ্চুরি করলেন শাকিল, কিউয়িদের থেকে ৪২ রান পিছিয়ে পাকিস্তান

শতরান করার পরে সৌদ শাকিল (ছবি-এপি) 

নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট দলের বিরুদ্ধে দ্বিতীয় টেস্টে সেঞ্চুরি করেছিলেন পাকিস্তান ক্রিকেট দলের ২৭ বছরের অলরাউন্ডার সৌদ শাকিল। তিনি ২৪০ বলে তাঁর সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন, টেস্টে এটি তাঁর প্রথম সেঞ্চুরি। সেঞ্চুরি পূর্ণ করতে ১৪টি চার মেরে ছিলেন তিনি।

নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে দ্বিতীয় টেস্টের তৃতীয় দিনের শেষ ৪২ রান পিছিয়ে রয়েছে পাকিস্তান। করাচিতে মঙ্গলবার নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে দ্বিতীয় ক্রিকেট টেস্টের দ্বিতীয় দিনে স্ট্যাম্পে তিন উইকেটে ১৫৪ রান করেছিল পাকিস্তান। এর আগে, টেল-এন্ডার ম্যাট হেনরির অপরাজিত ৬৮ রানে নিউজিল্যান্ডকে ৪৪৯ রানে গুটিয়ে দেয় পাকিস্তান। এই ম্যাচের তৃতীয় দিনে টেস্ট ক্রিকেটে প্রথম সেঞ্চুরি করলেন পাকিস্তানের ক্রিকেটার সৌদ শাকিল।

আরও পড়ুন… ভিডিয়ো: অবাক করে খেলার মাঝে মাঠ থেকে লাইটার চাইলেন ল্যাবুশান! দেখুন কী হল তারপর

নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট দলের বিরুদ্ধে দ্বিতীয় টেস্টে সেঞ্চুরি করেছিলেন পাকিস্তান ক্রিকেট দলের ২৭ বছরের অলরাউন্ডার সৌদ শাকিল। শাকিল ২৪০ বলে তাঁর সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন, টেস্টে এটি তাঁর প্রথম সেঞ্চুরি। সেঞ্চুরি পূর্ণ করতে ১৪টি চার মেরে ছিলেন তিনি। নয় টেস্ট ইনিংসে পাঁচটি হাফ সেঞ্চুরি ও একটি সেঞ্চুরি করলেন শাকিল। এই ফর্ম্যাটে নিজের ৫০০ রানও পূর্ণ করেছেন শাকিল।

আরও পড়ুন… সফ্ট সিগনাল উঠিয়ে দাও! ল্যাবুশানের নট আউট বিতর্ক নিয়ে বললেন স্টোকস

সৌদ শাকিল পঞ্চম উইকেটে সরফরাজ আহমেদের সঙ্গে ১৫০ রানের জুটি গড়েন এবং এর মাধ্যমে পাকিস্তান ম্যাচে দুর্দান্ত ভাবে প্রত্যাবর্তন করে ছিল। নিউজিল্যান্ডের ৪৪৯ রানের জবাবে পাকিস্তান একটা সময়ে ১৮২ রানে চার উইকেট হারিয়ে ছিল। সেখান থেকে দলের রান যখন ৩৩২ ছিল তখন ৭৮ রান করে আউট সরফরাজ আহমেদ। এরপরে আঘা সলমন ৪১ রান করে আউট হন। তবে তারপরে কোনও ব্য়াটার সেভাবে উইকেটে টিকতে পারেননি। হাসান আলি ও নাসিম শাহ দুজনেই ব্যাক্তিগত চার রান করে আউট হন। মির হামজাকে শূন্য রানে সাজঘরে ফিরিয়েছিলেন ইশ সোধি। বর্তমানে সৌদ শাকিলের সঙ্গে ব্যাট করছেন আবরার আহমেদ। ৪০৭ রানে ৯ উইকেট হারিয়েছে পাকিস্তান। এখনও প্রথম ইনিংসে বাবর আজমরা ৪২ রান পিছিয়ে রয়েছে। আজাজ প্যাটেল, ইশ সোধি ও ড্যারেল মিচেলের বোলিং-এর সামনে লড়াই চালান পাক ব্যাটাররা।

এখনও দুই দিনের খেলা বাকি রয়েছে। দেখার এই দু দিনে খেলার গতি কোন দিকে গড়ায়। সিরিজের প্রথম ম্যাচটি ড্র হওয়ায় এখনও সিরিজের ফল পাওয়া যায়নি। যদি চতুর্থ দিনে দুই দলের কোনও দল দুরন্ত পারফর্ম করেন তাহলে ম্যাচের গতি কোনও একটি দিকে ঝুঁকতেই পারে। নয়তো প্রথম টেস্টের মতো এই টেস্টের ফলও ড্র হতে পারে। প্রথম ইনিংসে এখনও তিন উইকেট নিয়ে কিউয়ি বোলারদের মধ্যে সেরা পারফ্রম করেছেন আজাজ প্যাটেল। অন্যদিকে প্রথম ইনিংসে পাকিস্তানের হয়ে ইমাম উল হকের ৮৩ রান ছাড়াও, সৌদ শাকিলের অপরাজিত ১২৪ রান পাকিস্তানকে লড়াই-এ ফিরিয়েছে। তবে এর সঙ্গে ছিল সারফারাজ আহমেদের ৭৮ রানের ইনিংস। এখন দেখার চতুর্থ দিনে খেলার গতি কোন দিকে গড়ায়।

বন্ধ করুন