বাংলা নিউজ > ময়দান > ইনভেস্টর-কর্তা চুক্তি বিতর্কে বন্ধ হয়ে গেল SC ইস্টবেঙ্গলের সোশ্যাল মিডিয়া!
SC ইস্টবেঙ্গলের সোশ্যাল মিডিয়া বন্ধ (ছবি: গুগল)
SC ইস্টবেঙ্গলের সোশ্যাল মিডিয়া বন্ধ (ছবি: গুগল)

ইনভেস্টর-কর্তা চুক্তি বিতর্কে বন্ধ হয়ে গেল SC ইস্টবেঙ্গলের সোশ্যাল মিডিয়া!

  • SC ইস্টবেঙ্গলের টুইটার পেজ থেকে একটি পোস্ট করা হয়। সেখানে লেখা ‘পরবর্তী বিজ্ঞপ্তি না আসা পর্যন্ত সমস্ত সামাজিক মিডিয়া কার্যক্রম এখানে স্থগিত করা হচ্ছে।’ এরপরেই শুরু হয়েছে জল্পনা। SC ইস্টবেঙ্গলের ফেসবুকেও একই বার্তা দিয়ে ইনস্টাগ্রাম ও ফেসবুক পেজকেও স্থগিত করে দেওয়া হয়।

শুরু হয়ে গেল চাপের খেলা। মঙ্গলবার লাল হলুদ ক্লাব তাঁবুতে ইস্টবেঙ্গলের কর্মসমিতি বৈঠকে ঠিক হয় শ্রী সিমেন্টের পাঠানো চুক্তিপত্রে সই করবেনা ইস্টবেঙ্গল। তাদের তরফ থেকে বলা হয়, যদি উঁচু মহল থেকে চাপ আসে তা স্বত্ত্বেও কোনও প্রকারে সই করবেনা ক্লাব। সেক্ষেত্রে ইস্টবেঙ্গলের কর্মসমিতি থেকে সকল সদস্য একসঙ্গে পদত্যাগ করবেন। এই খবর প্রকাশ হতেই আরও কঠোর সিদ্ধান্ত নিতে শুরু করে শ্রী সিমেন্ট কতৃপক্ষ।

এদিন রাতেই SC ইস্টবেঙ্গলের টুইটার পেজ থেকে একটি পোস্ট করা হয়। সেখানে লেখা ‘পরবর্তী বিজ্ঞপ্তি না আসা পর্যন্ত সমস্ত সামাজিক মিডিয়া কার্যক্রম এখানে স্থগিত করা হচ্ছে।’ এরপরেই শুরু হয়েছে জল্পনা। SC ইস্টবেঙ্গলের ফেসবুকেও একই বার্তা দিয়ে ইনস্টাগ্রাম ও ফেসবুক পেজকেও স্থগিত করে দেওয়া হয়। কারণ SC ইস্টবেঙ্গলের টুইটার পেজ কিমবা সকল সোশ্যাল মিডিয়ার প্ল্যাটফর্ম দেখা শোনা করা হত শ্রী সিমেন্ট কতৃপক্ষের দ্বারা। এমন ভাবে বিজ্ঞপ্তি দেওয়াতে সকলেই চিন্তায় পড়েছেন।

শ্রী সিমেন্ট কর্ণধার হরিমোহন বাঙুরের মতে ক্লাবের কর্তারা যদি চুক্তিপত্রে সই না করে তাহলে তাদের কিছু যায় আসেনা। তিনি জানান, ‘সই না করলে করবে না, তাতে কী এল-গেল। আমি ফুটবলে বিনিয়োগ করতে চাই বলেই এগিয়ে এসেছিলাম। এর মধ্যে কোথাও কোনও চাপের ব্যাপার নেই। ওরা সই না করলে সম্পর্ক থাকবে শ্রী সিমেন্টের সঙ্গে। তবে আমি এ ব্যাপারে সরকারি ভাবে কিছু জানি না।’  

এদিনের ঘটনার পরে বলা যেতেই পারে ইনভেস্টর ও ইস্টবেঙ্গল কর্তাদের লড়াইয়ে নতুন মাত্রা যোগ হল। চুক্তি বিতর্ক এবার কোন পথে এগোয় সেটাই এখন দেখার।

বন্ধ করুন