বাংলা নিউজ > ময়দান > নিরাপত্তার কারণে খরচ ৪০ কোটি টাকা! ইংল্যান্ডের পাক সফরে বড় ক্ষতির মুখে PCB
মইন আলি ও বাবর আজম (ছবি-এএফপি)

নিরাপত্তার কারণে খরচ ৪০ কোটি টাকা! ইংল্যান্ডের পাক সফরে বড় ক্ষতির মুখে PCB

  • ১৭ বছর পর ইংল্যান্ড দল পাকিস্তানে আসার পরেই বড় ক্ষতির মুখে পড়তে চলেছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড। দীর্ঘ ১৭ বছর পর পাকিস্তান সফরে এসেছে ইংল্যান্ডের ক্রিকেট দল। ইংল্যান্ড সফর পিসিবিকে ক্ষতিগ্রস্ত করতে চলেছে।

১৭ বছর পর ইংল্যান্ড দল পাকিস্তানে আসার পরেই বড় ক্ষতির মুখে পড়তে চলেছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড। দীর্ঘ ১৭ বছর পর পাকিস্তান সফরে এসেছে ইংল্যান্ডের ক্রিকেট দল। বিশেষজ্ঞরা মনে করেছিলেন এই ঐতিহাসিক সফর থেকে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড অনেক অর্থ উপার্জন করতে পারবে, যেটা অবশ্য হওয়ায় উচিত ছিল। কিন্তু ইংল্যান্ড সফর পিসিবিকে ক্ষতিগ্রস্ত করতে চলেছে। 

পাকিস্তান বনাম ইংল্যান্ডের মধ্যে সাত ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলা হচ্ছে এবং এই সিরিজে নিরাপত্তা ব্যবস্থার কারণে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডকে মোটা অঙ্ক দিতে হচ্ছে। এই অর্থের পরিমান আনুমানিক প্রায় ৪.৪ মিলিয়ন পাউন্ড অর্থাৎ প্রায় ৪০ কোটি টাকা। ইংলিশ দলের কারণে এই অর্থ খরচ করতে হচ্ছে পিসিবি-কে। এই সিরিজের জন্য ক্রিকেটারদের রাষ্ট্রপতি স্তরের নিরাপত্তা দেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন… ভিডিয়ো: সঞ্জুর নামে গর্জে উঠল স্টেডিয়াম! বঞ্চিত তারকা আবারও নিজেকে প্রমাণ করলেন

মিরর রিপোর্ট অনুসারে, এটি একটি আর্থিক ক্ষতির সিরিজ, যা পিসিবি বহন করছে। তবে ক্ষতি বহন করতে প্রস্তুত পাকিস্তানের ক্রিকেট বোর্ড। এর কারণ উভয় দেশ এই বছর টেস্ট সিরিজও খেলবে। ২০০৯ সালে লাহোরে সন্ত্রাসীদের দ্বারা শ্রীলঙ্কার টিম বাসে হামলার পর, এক দশক ধরে পাকিস্তানে কোনও টেস্ট ম্যাচ খেলা হয়নি এবং তাদের হোম ম্যাচগুলি বেশিরভাগই সংযুক্ত আরব আমির শাহিতে অনুষ্ঠিত হয়েছিল। তবে এখন অনেক দেশ পাকিস্তান সফরে আসছে। এমনকি অস্ট্রেলিয়ার মতো দলও সম্প্রতি পাকিস্তানে টেস্ট সিরিজ খেলতে গিয়েছিল। ফলে যে কোনও অর্থে এই সিরিজ করাতে চায় পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড।

আরও পড়ুন… IND vs AUS 2nd T20I: বুমরাহ কী দ্বিতীয় ম্যাচে খেলবেন? বড় আপডেট দিলেন সূর্যকুমার

ইংল্যান্ড এখন ৭ ম্যাচের এই সিরিজে ১-০ তে এগিয়ে রয়েছে। কারণ ইংলিশ দল প্রথম ম্যাচে পাকিস্তানকে ৬ উইকেটে পরাজিত করেছিল। দীর্ঘ সময়ের পরে কামব্যাক করে ওপেনার অ্যালেক্স হেলসের অর্ধশতকের সাহায্যে ইংল্যান্ড জয়ের রাস্তা খুঁজে পেয়েছিল। ২২ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার আবারও দুই দল একে অপরের মুখোমুখি হবে। 

স্বাগতিকরা সিরিজে সমতা আনতে চায়, অন্যদিকে ইংল্যান্ড সিরিজে ২-০ তে এগিয়ে যেতে চায়। সিরিজের পরবর্তী কয়েকটি ম্যাচের জন্য পাকিস্তানকে চাপে রাখতে চায়। এদিকে যদি বাবর আজমরা সিরিজ না জিততে পারে তাহলে পাকিস্তান দলের যেমন আসন্ন টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে চাপে পড়বে, তেমনই বাইশ গজের বাইরের আর্থিক ক্ষতিও বড় প্রভাব ফেলবে। এদিনের ম্যাচে বাবর আজমের পারফরমেন্সের দিকে সকলের নজর থাকবে।

বন্ধ করুন