আইসিসি চেয়ারম্যান শশাঙ্ক মনোহর। ছবি- এপি।
আইসিসি চেয়ারম্যান শশাঙ্ক মনোহর। ছবি- এপি।

ICC চেয়ারম্যান পদে সংক্ষিপ্ত মেয়াদ বাড়তে পারে শশাঙ্ক মনোহরের

  • ICC-র স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান হিসেবে প্রাক্তন BCCI সভাপতির দ্বিতীয় দফার মেয়াদ শেষ হচ্ছে জুনে।

আইসিসি চেয়ারম্যান পদে আরও কিছুদিন থেকে যেতে পারেন প্রাক্তন বিসিসিআই সভাপতি শশাঙ্ক মনোহর। করোনা মহামারির জেরে ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিলের বার্ষিক সাধারণ সভা পিছিয়ে যেতে পারে দু'মাসের জন্য। সেকারণেই বাড়তি দু'মাস আইসিসির মসনদে আসীন থাকতে পারেন মনোহর।

আইসিসির স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান হিসেবে মনোহরের দ্বিতীয় দফার মেয়াদ শেষ হচ্ছে আগামী জুনে। তার পর আর তিনি তৃতীয়বারের জন্য পদ আঁকড়ে পড়ে থাকতে চান না বলেই খবর। সুতরাং আইসিসি চেয়ারম্যানের পদ থেকে মনোহরের সরে যাওয়া কার্যত নিশ্চিত। জুনের বদলে অগস্টে আইসিসির অ্যানুয়াল বোর্ড মিটিং অনুষ্ঠিত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। সুতরাং সেই পর্যন্ত আইসিসির চেয়ারম্যান থাকছেন শশাঙ্কই।

মনোহর সরে যাওয়ার পর তাঁর চেয়ারে বসতে পারেন ইসিবি চেয়ারম্যান কলিন গ্রেভস। হংকংয়ের ইমরান খোওয়াজার নামও ঘোরাফেরা করছিল পরবর্তী আইসিসি চেয়ারম্যান হিসেবে। তবে পূর্ণ সদস্য দেশের সমর্থন পাবেন না বলে লড়াইয়ে পিছিয়ে পড়েছেন তিনি।

আইসিসির অভ্যন্তরীণ রাজনীতির সঙ্গে যাঁরা পরিচিত, তাঁরা জানেন বেশিরভাগ টেস্ট খেলিয়ে দেশের সমর্থন রয়েছে গ্রেভসের দিকে। ইংল্যান্ড ছাড়াও অস্ট্রেলিয়া, ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড আইসিসি চেয়ারম্যানের পদে সমর্থন জানাবে গ্রেভসকে। বিসিসিআই খোলাখুলি সমর্থন না করলেও গ্রেভসের সঙ্গে ভারতীয় বোর্ডের সম্পর্ক মন্দ নয়।

বিসিসিআই অবশ্য এখনও মনোহরের সরে যাওয়ার বিষয়ে নিশ্চিত নয়। এক সিনিয়র বোর্ড কর্তা সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে জানান, 'দু'বছরের একটা মেয়াদ এখনও বাকি রয়েছে মনোহরের। তাই শেষ মুহূর্তে যদি ও থেকে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়, তবে হিসাবটা বদলে যাবে মুহূর্তে।'

বন্ধ করুন