বাংলা নিউজ > ময়দান > রশিদ খানদের বোলিং পরামর্শদাতার পদ থেকে সরে দাঁড়ালেন শন টেট
শন টেট।
শন টেট।

রশিদ খানদের বোলিং পরামর্শদাতার পদ থেকে সরে দাঁড়ালেন শন টেট

  • ল্যান্স ক্লুসনার আফগানিস্তান ক্রিকেট দলের প্রধান কোচ হিসেবে নিজের চুক্তির মেয়াদ না বাড়ানোর সিদ্ধান্ত ঘোষণা করার পর দিনই, শন টেটও দলের ফাস্ট-বোলিং পরামর্শদাতার পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর কথা ঘোষণা করেন।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগেই আফগানিস্তানের ফাস্ট-বোলিং পরামর্শদাতা হিসেবে নিযুক্ত হয়েছিলেন শন টেট। কিন্তু তিনি হঠাৎ করেই তিনি সরে দাঁড়ালেন সেই পদ থেকে। ল্যান্স ক্লুসনার আফগানিস্তান ক্রিকেট দলের প্রধান কোচ হিসেবে নিজের চুক্তির মেয়াদ না বাড়ানোর সিদ্ধান্ত ঘোষণা করার পর দিনই, শন টেটও দলের ফাস্ট-বোলিং পরামর্শদাতার পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর কথা ঘোষণা করেন।

একটি সংক্ষিপ্ত বিবৃতিতে টেট বলেছেন, ‘আমি এই দলের সঙ্গে কাজ করাটা বেশ উপভোগ করেছি। বিশেষ করে তরুণ আফগান ফাস্ট বোলারদের সঙ্গে, যাদের আমি ব্যক্তিগত ভাবে মনে করি একটি অসাধারণ ভবিষ্যত রয়েছে। ল্যান্স ক্লুসনারের মতো অসাধারণ ক্রিকেটারের সান্নিধ্যে আসতে পেরেছিলাম। আমার এই মেয়াদটুকু আমি খুব ভালো কাটিয়েছি।’

টেটের ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার গ্রেড টু কোচিং সার্টিফিকেট রয়েছে। অবসর গ্রহণের পর বিগ ব্যাশে মেলবোর্ন রেনেগেডসকেও কোচিং করিয়েছেন তিনি। তার পরেই আফগানিস্তান দলের ফাস্টবোলাদের দায়িত্ব নিয়েছিলেন তিনি। সম্ভবত আফগানিস্তানের বর্তমান পরিস্থিতির কারণেই ক্লুসনারের মতে

২০০৫ সাল থেকে ২০১৬ সাল পর্যন্ত অজিদের হয়ে ৩৫ ওয়ান ডে, ২১ টি-টোয়েন্টি এবং তিনটি টেস্ট খেলে মোট ৯৫টি আন্তর্জাতিক উইকেট নিয়েছেন। চোট আঘাতে জর্জরিত কেরিয়ারে বেশি ম্যাচ খেলতে না পারলেও ১৫০ কি.মি-র অধিক গতিতে বল করতে সিদ্ধহস্ত ছিলেন টেট। ৩৮ বছর বয়সী টেট অস্ট্রেলিয়ার ২০০৭ বিশ্বকাপজয়ী দল এবং ২০১০ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের রানার্স আপ দলেরও সদস্য ছিলেন।

বন্ধ করুন