বাংলা নিউজ > ময়দান > ৩৬ রানে অল-আউটের পর বিদ্রুপ, মেলবোর্নে জয়ের পর টিম ইন্ডিয়ার ভূয়সী প্রশংসা, গিরগিটির মতো রং বদলালেন আখতার
টিম ইন্ডিয়াকে নিয়ে শোয়েব আখতারের মন্তব্য। ছবি- টুইটার।
টিম ইন্ডিয়াকে নিয়ে শোয়েব আখতারের মন্তব্য। ছবি- টুইটার।

৩৬ রানে অল-আউটের পর বিদ্রুপ, মেলবোর্নে জয়ের পর টিম ইন্ডিয়ার ভূয়সী প্রশংসা, গিরগিটির মতো রং বদলালেন আখতার

  • ভারতের হারে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছিলেন, এবার ভারতের জয়ে উচ্ছ্বসিত শোয়েব।

গিরগিটির মতো রং বদলালেন শোয়েব আখতার। অ্যাডিলেডে ৩৬ রানে অল-আউট হওয়ার পর টিম ইন্ডিয়াকে নিয়ে বিদ্রুপ করতে দেখা গিয়েছিল প্রাক্তন পাক তারকাকে। দাবি করেছিলেন, ভারতীয় দলের পারফর্ম্যান্স অত্যন্ত লজ্জার এবং এমন খেলার জন্য বিরাট কোহলিদের সমালোচনা হওয়া উচিত। এবার বক্সিং ডে টেস্টে ভারতের জয়ের পর রাহানেদের প্রশংসায় পঞ্চমুখ প্রাক্তন পাক স্পিডস্টার। টিম ইন্ডিয়াকে অভিনন্দনও জানান তিনি।

এমন ডিগবাজির মাঝে মিল শুধু একটাই। অ্যাডিলেডে ভারেতের ব্যর্থতায় উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন আখতার। এবার মেলবোর্নে ভারতের জয়ের পরও উচ্ছ্বসিত দেখায় তাঁকে।

অ্যাডিলেডে ভারতের হারের পর আখতার যা বলেন: ‘৩৬ রানে ৯ উইকেট, একজন অবসৃত। অত্যন্ত হতাশা জনক ব্যাটিং। বিশ্বের শক্তিশালী ব্যাটিং লাইনআপকে এভাবে ভেঙে পড়তে দেখা সত্যিই হতাশার। ওরা তো আমাদেরও রেকর্ডও ভেঙে দিয়েছে। ৩৬ রানে অল-আউট ভয়ঙ্কর। এটা মেনে নেওয়া যায় না। তবে আমি সবথেকে খুশি ভারত পাকিস্তানের রেকর্ড ভেঙে দিয়েছে বলে। ভারতকে ঠিকঠাক মার দিয়েছে অস্ট্রেলিয়া। এই মার ভারত সহজে ভুলবে না। এমন ব্যাটিংয়ের জন্য কোহলিদের সমালোচনা হওয়া উচিত।’

মেলবোর্নে ভারতের জয়ের পর আখতার যা বললেন: ‘অস্ট্রেলিয়াকে এমনভাবে মেরেছে ভারত, ঠিক যেভাবে একজনকে বস্তার মধ্যে ঢুকিয়ে মারা হয়। কঠিন সময়ে ভারতীয় ক্রিকেটাররা তাদের দৃঢ়তা ও প্রতিভার পরিচয় দিয়েছে। এটাই হল টিম ইন্ডিয়ার আসল রূপ। যে বিষয়টা আমার সবথেকে ভালো লেগেছে, ওরা মার খেয়ে মুখ থুবড়ে পড়েনি। পড়ে যাওয়া উচিত ছিল। ওরা উঠে দাঁড়িয়ে পালটা মেরেছে অস্ট্রেলিয়াকে। রোহিত নেই, শামি নেই, ক্যাপ্টেন (কোহলি) নেই, তার পরেও এমন জয়! রাহানে চুপচাপ নেতৃত্ব দিয়েছে। তবে ওর সাফল্য ওর হয়ে কথা বলছে। অভিনন্দন টিম ইন্ডিয়া।’

বন্ধ করুন