বাংলা নিউজ > ময়দান > SL vs AFG: আফগানদের টিম গেমের কাছে হার দাসুনদের, লঙ্কায় গিয়ে তাদের বিরুদ্ধে প্রথম জয় রশিদদের

SL vs AFG: আফগানদের টিম গেমের কাছে হার দাসুনদের, লঙ্কায় গিয়ে তাদের বিরুদ্ধে প্রথম জয় রশিদদের

শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে নজির আফগানিস্তানের।

শুক্রবার শ্রীলঙ্কাকে ৬০ রানে হারিয়ে নজির গড়ে ফেলল আফগানিস্তান। প্রথম বার তারা শ্রীলঙ্কায় গিয়ে তাদের বিরুদ্ধেই জয় ছিনিয়ে নিল আফগানিস্তান। এর আগে শ্রীলঙ্কায় গিয়ে তাদের বিরুদ্ধে কোনও ম্যাচে কখনও জয় পাননি রশিদ খানরা।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর ফের ব্যর্থ হল শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট টিম। এ বার নিজেদের ঘরের মাঠে আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে ল্যাজেগোবরে হল তারা। শুক্রবার শ্রীলঙ্কাকে ৬০ রানে হারিয়ে নজির গড়ে ফেলল আফগানিস্তান। প্রথম বার তারা শ্রীলঙ্কায় গিয়ে তাদের বিরুদ্ধেই জয় পেল।

এ দিন পাল্লেকেলে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টসে জিতে আগে ব্যাটিং করার সিদ্ধান্ত নেন আফগান অধিনায়ক হাশমতুল্লাহ শাহিদি। শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক মেজাজে ছিল তারা। দুই আফগান ওপেনার রহমানুল্লাহ গুরবাজ এবং ইব্রাহিম জাদরান মারকুটে মেজাজেই খেলা শুরু করেছিলেন। ৫৫ বলে ৫৩ রানের দুরন্ত ইনিংস খেলে দলের ৮৪ রানের মাথায় আউট হন গুরবাজ। শ্রীলঙ্কাকে ব্রেকথ্রু এনে দেন ফর্মে থাকা লেগ স্পিনার ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা।

আরও পড়ুন: ভারত এশিয়া কাপ খেলতে না এলে, পাকিস্তানও যাবে না বিশ্বকাপে- রামিজ রাজা

এর পর তিনে নামা রহমত শাহকে নিয়ে ফের বড় রানের লক্ষ্যে লড়াই শুরু করেন জাদরান। দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে দু'জন মিলে করেন ১১৮ রান। দলের রান যখন ২০২, তখন ৬৪ বলে ৫২ রান করে আউট হন রহমত শাহ। তবে জাদরান দুরন্ত সেঞ্চুরি করেন। তিনি শেষ পর্যন্ত ১২০ বলে ১০৬ রানের অনবদ্য ইনিংস খেলে সাজঘরে যখন ফিরছেন, তখন দলের রান ২৩২।

বাকিদের মধ্যে ২৪ বলে ২২ করেছেন গুলবাদিন নায়েব। আর নাজিবুল্লাহ জাদরানের ২৫ বলে ৪২ রানের ঝড়ো ইনিংসের হাত ধরে নির্দিষ্ট ৫০ ওভার শেষে ৮ উইকেট হারিয়ে ২৯৪ রান করে আফগানিস্তান।

শ্রীলঙ্কার হয়ে ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা ১০ ওভার বল করে মাত্র ৪২ রান দিয়ে ২টি গুরুত্বপূর্ণ উইকেট তুলে নেন। এ ছাড়া ১টি করে উইকেট নিয়েছেন কাসুন রজিথা, ধনঞ্জয় লক্ষণ, লাহিরু কুমারা এবং মহেশ থিকশানা।

আরও পড়ুন: ভারত এখনও এক নম্বরে, পরের ম্যাচ জিতলে সিংহাসন ছিনিয়ে নেবে নিউজিল্যান্ড

জবাবে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা একদমই ভালো করেনি শ্রীলঙ্কা। মাত্র ১৬ রানের মাথায় ১ রান করে ফিরে যান ওপেনার কুশল মেন্ডিস। তিনে নেমে দীনেশ চান্ডিমাল পাল্টা আক্রমণের চেষ্টা চালালেও বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি ক্রিজে। ১১ বলে ১৪ করে ফিরে যান তিনি। তবে ক্রিজে টিকে ছিলেন ওপেনার পাথুম নিশঙ্কা। এক প্রান্ত আগলে লড়াই চালাচ্ছিলেন তিনি।

তবে শ্রীলঙ্কার মিডল অর্ডার হতাশ করেছে। নিশঙ্কাকে যোগ্য সঙ্গত করতে পারেননি কেউই। ১৬ বলে ১৬ করেন ধনঞ্জয় ডি'সিলভা, ১৮ বলে ১০ করেছেন চরিথ আশালঙ্কা এবং অধিনায়ক দাসুন শনাকা করেছেন ২৭ বলে ১৬ রান। ১৩৭ রানের মধ্যে ৫ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে গিয়েছিল লঙ্কা ব্রিগেড।

এর পরই সাতে নেমে পাল্টা লড়াই শুরু করেন হাসারাঙ্গা। তবে শনাকা যদি ৮৩ বলে ৮৫ করে সাজঘরে না ফিরতেন তবে হয়তো ম্যাচটা বের করে নিতে পারত শ্রীলঙ্কা। তাও হাসারাঙ্গা চেষ্টা চালিয়েছিলেন। ৪৬ বলে ৬৬ করে তিনি আউট হয়ে গেলে শ্রীলঙ্কার আশার আলো শেষ হয়ে যায়। শেষ পর্যন্ত ৩৮ ওভারে ২৩৪ রানে অলআউট হয়ে যায় শ্রীলঙ্কা। ৬০ রানে জয় ছিনিয়ে নেয় আফগানিস্তান।

আফগানদের হয়ে ফজলহক ফারুকি ৪ উইকেট নিয়েছেন। এ ছাড়া ৩ উইকেট নেন গুলবাদিন নায়েব। ২ উইকেট নেন ইয়ামিন আহমদজাই এবং ১টি উইকেট নিয়েছেন রশিদ খান।

বন্ধ করুন