বাংলা নিউজ > ময়দান > SL vs AUS: অজি ব্যাটিংয়ে ধস নামিয়ে নজির, লঙ্কার নয়া জয়সূর্য জায়গা পেলেন দিলীপ দোশির পরেই
নয়া নজির প্রভাত জয়সূর্য।

SL vs AUS: অজি ব্যাটিংয়ে ধস নামিয়ে নজির, লঙ্কার নয়া জয়সূর্য জায়গা পেলেন দিলীপ দোশির পরেই

  • ব্রিটিশ তারকা ফ্রেড মার্টিন ১৮৯০ সালে দু'বার অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে সেরা বোলিং পরিসংখ্যানের নজির গড়েছিলেন। যা এখনও রেকর্ড। তাঁর বোলিং পরিসংখ্যান ছিল যথাক্রমে ৫০/৬ এবং ৫২/৬। এই নজির এখনও কেউ স্পর্শ করতে পারেননি।

প্রথম দিনের শেষে ৫ উইকেট হারিয়ে ২৯৮ করে ফেলেছিল অস্ট্রেলিয়া। ১০৯ রান করে ক্রিজে ছিলেন স্টিভ স্মিথ। তাঁর সঙ্গে ১৬ রান করে অপরাজিত ছিলেন অ্যালেক্স ক্যারি। শুক্রবার প্রথম দিনই মার্নাস ল্যাবুশান, ট্রেভিস হেড, ক্যামেরন গ্রিনের মতো তিনটি গুরুত্বপূর্ণ উইকেট তুলে নিয়ে অস্ট্রেলিয়াকে বেকায়দায় ফেলে দিয়েছিলেন প্রভাত জয়সূর্য। দ্বিতীয় দিনেও তাঁর দাপটেই আর মাত্র ৬৬ রান স্কোরবোর্ডে যোগ করতে পারে অস্ট্রেলিয়া। এ দিন সকালে আরও ৩ উইকেট তুলে নেন জয়সূর্য। যার জেরে অস্ট্রেলিয়া অল আউট হয়ে যায় মাত্র ৩৬৪ রানে।

আরও পড়ুন: ১৮ মাস পরে সেঞ্চুরি করে কোহলিকে পিছনে ফেললেন স্মিথ! রুটের পাশে স্টিভ

৩৬ ওভার বল করে ১১৮ রান দিয়ে ৬ উইকেট তুলে নেন জয়সূর্য। সেই সঙ্গে গড়ে ফেলেন নজিরও। অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে অভিষেক টেস্টে বাঁহাতি বোলারদের এক ইনিংসে সেরা বোলিং পরিসংখ্যানের তালিকায় চার নম্বর জায়গা করে নেন শ্রীলঙ্কার নতুন জয়সূর্য। তার আগে রয়েছেন শুধু ফ্রেড মার্টিন এবং দিলীপ দোশি। ব্রিটিশ তারকা ফ্রেড মার্টিন ১৮৯০ সালে দু'বার অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে সেরা বোলিং পরিসংখ্যানের নজির গড়েছিলেন। যা এখনও রেকর্ড। তাঁর বোলিং পরিসংখ্যান ছিল যথাক্রমে ৫০/৬ এবং ৫২/৬। এই নজির এখনও কেউ স্পর্শ করতে পারেননি।

আরও পড়ুন: নিজেদের জালেই ফেঁসে গেল শ্রীলঙ্কা, লিয়ঁ-হেডের স্পিনে ভর করে ১০ উইকেটে জিতল অজিরা

এর পর ১৯৭৯ সালে ভারতের দিলীপ দোশি অজিদের বিরুদ্ধে ৬ উইকেট নিয়েছিলেন। তিনি দিয়েছিলেন ১০৩ রান। এর ৪৩ বছর পর শ্রীলঙ্কার প্রভাত জয়সূর্য ১১৮ রান দিয়ে ৬ উইকেট নিয়ে দিলীপ দোশির পর জায়গা করে নিলেন।

শনিবার সকাল থেকে বিধ্বংসী মেজাজে ছিলেন জয়সূর্য। তিনি প্রথমে ফেরান অ্যালেক্স ক্যারিকে (২৮)। তার পর মিচেল স্টার্ককে ১ রানে আউট করেন। আর নাথান লিয়ন তাঁর বলে ৫ করে আউট হন। স্টিভ স্মিথ অবশ্য ১৪৫ রান করে অপরাজিত থাকেন। ল্যাবুশান প্রথম দিন ১০৪ করেছিলেন। এই দুই তারকার ব্যাটে ভর করেই অস্ট্রেলিয়ার ইনিংস সাড়ে তিনশো রানের গণ্ডি টপকায়। অজিদের বাকিরা কেউই হাফসেঞ্চুরিও করতে পারেননি। তৃতীয় সর্বোচ্চ উসমান খোয়াজার ৩৭। আর ক্যারি ২০ রানের গণ্ডি টপকেছেন। বাকিরা সেটাও পারেননি।

জয়সূর্যর ৬ উইকেট ছাড়াও কাসুম রাজিথা ২ উইকেট নিয়েছেন। ১টি করে উইকেট নিয়েছেন রমেশ মেন্ডিস এবং মহেশ থিকসানা।

বন্ধ করুন