বাংলা নিউজ > ময়দান > জামাইয়ের অভিযোগ, ছেলের হাতেই খুন রায়গঞ্জের প্রাক্তন ক্রীড়াবিদ তারাশঙ্কর ভট্টাচার্য
প্রতীকি ছবি
প্রতীকি ছবি

জামাইয়ের অভিযোগ, ছেলের হাতেই খুন রায়গঞ্জের প্রাক্তন ক্রীড়াবিদ তারাশঙ্কর ভট্টাচার্য

  • ঘটনায় অভিযুক্ত রাজর্ষি ভট্টাচার্যকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

ছেলের হাতেই কি খুন হলেন রায়গঞ্জের প্রবীণ ক্রীড়াবিদ তথা সাংস্কৃতিক আন্দোলন কর্মী তারাশঙ্কর ভট্টাচার্য? তারাশঙ্কর বাবুর জামাই বিশ্বজিৎ বণিকের অভিযোগ, বৃদ্ধকে খুন করেছে রাজর্ষি ভট্টাচার্য। খুনের অভিযোগ উঠেছে তারাশঙ্কর ভট্টাচার্যের ছেলের বিরুদ্ধেই। পাশাপাশি, রাজর্ষির বিরুদ্ধে স্ত্রী স্বাতী ও ছেলে সায়নকেও মারধরের অভিযোগ করেছেন বিশ্বজিৎ। অভিযোগ, রবিবার গভীর রাতে তারাশঙ্কর বাবুকে বাড়িতেই মারধর করে ছেলে রাজর্ষি ভট্টাচার্য। পরে আহত তারাশঙ্কর বাবুকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া সময় মৃত বলে ঘোষণা করা হয়। এই ঘটনায় অভিযুক্ত রাজর্ষি ভট্টাচার্যকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

সূত্রের খবর, অভিযুক্ত রাজর্ষি তার বাবার সঙ্গেই থাকতেন। অভিযোগ, মদ্যপান করে স্ত্রী-এবং তারাশঙ্কর বাবুকে আগেও মারধর করেছেন রাজর্ষি। সেই অত্যাচারের জন্য রাজর্ষিকে ছে়ড়ে চলে যান তার স্ত্রী। বর্তমানে স্ত্রী-র সঙ্গে বিবাহ বিচ্ছেদের মামলাও চলছে। এরপরেও ৮৩ বছরের বাবাকে বারবার মারধর করতেন রাজর্ষি।   

পুলিশ সূত্রে খবর, রবিবার রাত ২টো নাগাদ ৮৩ বছর বয়সী তারাশঙ্কর ভট্টাচার্যকে কোনও ভারী বস্তু দিয়ে মারধর করেন রাজর্ষি। পরে তারাশঙ্কর বাবু যখন রক্তাক্ত অবস্থায় লুটিয়ে পড়েন। তাঁর মোবাইল ফোন থেকে দিদি স্বাতীকে যোগাযোগ করে রাজর্ষি। ছেলে সায়ন বণিককে নিয়ে দ্রুত বাবার বাড়িতে আসেন। সেখানে এসে তারাশঙ্করকে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখেন স্বাতী। তা দেখেই চিৎকার করে ওঠেন স্বাতী। এর পর তারাশঙ্করও চিৎকার করতে থাকেন। অভিযোগ, সে সময় সায়ন এবং স্বাতীকেও মারধর করে রাজর্ষি। তখনকার মতো সেখান থেকে তাঁরা চলে যান। এর পর স্থানীয়দের নিয়ে ফিরে এলে দেখেন, রাজর্ষি সেখান থেকে পালিয়ে গিয়েছে। আহত বৃদ্ধকে রায়গঞ্জ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে সেখানেই তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করা হয়।

বন্ধ করুন