বাংলা নিউজ > ময়দান > নীরজ চোপড়াদের টিকাকরণের জন্য বিদেশ মন্ত্রকের দারস্থ ভারতের ক্রীড়ামন্ত্রক
নীরজ চোপড়া।
নীরজ চোপড়া।

নীরজ চোপড়াদের টিকাকরণের জন্য বিদেশ মন্ত্রকের দারস্থ ভারতের ক্রীড়ামন্ত্রক

  • অলিম্পিক্সে অংশগ্রহণকারী ভারতীয় অ্যাথলিটদের মধ্যে মোট সাত জন বিদেশে প্র্যাক্টিস করছেন।

শুভব্রত মুখার্জি

২৩ শে জুলাই থেকে শুরু হতে চলেছে টোকিও অলিম্পিক গেমস। তার আগে শেষ মূহুর্তের প্রস্তুতিতে ব্যস্ত সব দেশের অ্যাথলিটরা। নীরজ চোপড়া সহ একাধিক ভারতীয় অ্যাথলিট ও বিদেশে অনুশীলনরত। করোনা আবহে টিকাকরণ ছাড়া কোন অ্যাথলিট অংশ নিতে পারবেন না টোকিও অলিম্পিক গেমসে। এই অবস্থায় দাঁড়িয়ে বিদেশে থাকা নীরজদের টিকাকরণের ব্যাপারে সহায়তা চেয়ে বিদেশমন্ত্রকের কাছে বিষয়টি হস্তক্ষেপ করে দেখভাল করার জন্য অনুরোধ জানাল কেন্দ্রীয় ক্রীড়ামন্ত্রক।

প্রসঙ্গত ক্রীড়াবিদদের মধ্যে নীরজ এই মুহূর্তে রয়েছেন সুইডেনের,উপ্পাসলাতে। বক্সার মনীশ কৌশিক, সতীশ কুমার, পূজা রানি এবং সিমরানজীত কৌর রয়েছেন ইতালির , আসিসিতে। কুস্তিগীর দীপক পুনিয়া,রবি দাহিয়া রয়েছেন রাশিয়াতে। এই অবস্থায় দাড়িয়ে বিভিন্ন দেশে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থেকে অনুশীলনরত অ্যাথলিটদের টিকাকরনে বিদেশমন্ত্রকের দারস্থ ক্রীড়ামন্ত্রক। সুইডেনে কোভিশিল্ড পর্যাপ্ত পরিমানে থাকলেও তা দেয়া হচ্ছে ৬৫ বছরের উর্ধ্বের মানুষদের জন্য। ইতালির ভ্যাক্সিনেশন যে নীতি রয়েছে তাতে বক্সারদের দ্বিতীয় ডোজ টিকা পাওয়া খুব দুরুহ ব্যাপার। রাশিয়াতে ভারতীয় ক্রীড়াবিদরা অবশ্য স্পুটনিক টিকা নিতে পারেন। সূত্রের খবর ভারতীয় ক্রীড়াবিদ এবং তাদের সাপোর্ট স্টাফরা ভারতীয় মিশনের অধীনে সেইসব দেশে টিকার বন্দোবস্ত করা হবে।

উল্লেখ্য ভারতীয় বক্সাররা এবং যে ১১ জন কোচিং ও সাপোর্ট স্টাফ রয়েছেন তাদের ভারতে ৮ জুলাই আসার কথা থাকলেও বক্সিং ফেডারেশনের তরফে কেন্দ্রীয় সরকারকে চিঠি লিখে অনুরোধ জানানোর পরে তারা ইতালি থেকেই সরাসরি টোকিওতে অলিম্পিকে যোগ দেবেন। সেকারনে বক্সিং স্কোয়াডের ওই ১৫ জনকে টিকা দিতে বিদেশমন্ত্রকের হস্তক্ষেপ জরুরি হয়ে পড়েছে। যদিও টোকিওর আয়োজক সংস্থা অ্যাথলিট এবং কোচিং স্টাফদের টিকাকরন বাধ্যতামূলক করেনি তবু ও পরিস্থিতি বিচার করে এই টিকাকরন সম্পূর্ণ করা অর্থাৎ দ্বিতীয় ডোজ নেয়া অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

বন্ধ করুন